মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

খালেদাকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

প্রকাশিত : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৯:২৮ পি. এম.

অনলাইন ডেস্ক ॥ মুক্তিযুদ্ধে নিহতের সংখ্যা নিয়ে সংশয় প্রকাশের পাশাপাশি স্বাধীনতা সংগ্রামের নেতা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্যের জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম।

বুধবার এক বিবৃতিতে খালেদার ওই বক্তব্যকে ‘নির্জলা মিথ্যাচার ও সংবিধান পরিপন্থি’ বলে আখ্যায়িত করেন ফোরামের নেতারা।

গত সোমবার রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়া বলেন, “আজকে বলা হয়, এতো লক্ষ লোক শহীদ হয়েছেন। এটা নিয়েও অনেক বিতর্ক আছে যে, আসলে কত লক্ষ লোক মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হয়েছেন। নানা বই-কিতাবে নানারকম তথ্য আছে।”

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার এই বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে গবেষকরা। অনলাইন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও এই বক্তব্যের নিন্দা চলছে।

এজন্য ক্ষমা চাইতে খালেদা জিয়াকে এরইমধ্যে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীদের নেতা মোমতাজ উদ্দিন মেহেদী। বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম-বোয়াফসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকেও নিন্দা প্রকাশ করে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধে নিহতের সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তোলার পাশাপাশি জাতিরজনক শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য দেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সেক্টর কমান্ডার জেনারেল জিয়াউর রহমানের স্ত্রী খালেদা।

“তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন, স্বাধীন বাংলাদেশ চাননি,” বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বলেন তিনি।

বিএনপি নেত্রীর এই বক্তব্য বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসের নির্জলা মিথ্যাচার এবং সংবিধানের লংঘন অভিযোগ করে সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের বিবৃতিতে বলা হয়, “মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদের সংখ্যা-বিতর্ক তুলে এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে ইতিহাস বিবর্জিত অসত্য বক্তব্য উপস্থাপন করে বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশের জাতীয় ইতিহাসের উদ্দেশ্যমূলক অবমাননা করেছেন।”

পাকিস্তান সরকার একাত্তরের গণহত্যার দায় অস্বীকারের কয়েক দিনের মাথায় খালেদা জিয়ার এই বক্তব্য উদ্দেশ্যমূলক বলে মনে করছে সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম।

এজন্য তাকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, “মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের অবমাননা এবং জাতির পিতা সম্পর্কে বিকৃত ইতিহাসনির্ভর বক্তব্য প্রদান করার জন্যে আমরা বেগম খালেদা জিয়াকে জাতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনার আহ্বান জানাই।”

সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ ’৭১ এর চেয়ারেম্যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল কে এম সফিউল্লাহ বীর উত্তম, ভাইস চেয়ারম্যান লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবু ওসমান চৌধূরী এবং মহাসচিব হারুন হাবীব যৌথভাবে এই বিবৃতি দেন।

খালেদা জিয়ার বক্তব্যের প্রতিবাদে ফোরামের সব বিভাগ, জেলা ও প্রাতিষ্ঠানিক শাখাকে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানানো হয়েছে বিবৃতিতে।

প্রকাশিত : ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৯:২৮ পি. এম.

২৩/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

জাতীয়



শীর্ষ সংবাদ: