মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ আগস্ট ২০১৭, ৬ ভাদ্র ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

এল নিনোর প্রভাব ক্ষুধা ও দারিদ্র্যের শিকার ৪৭ লাখ লোক

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫

সুপার এল নিনো খরা, অস্বাভাবিক বৃষ্টি ও তুষারপাত বয়ে আনছে। এর ব্যাপক ক্ষতিকর প্রভাব পড়ছে প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায়। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পাপুয়া নিউগিনি। দাতব্য সংস্থা অক্সফাম সোমবার এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে। লোকজনের জীবন বাঁচাতে ত্রাণ সহায়তা আরও জোরদার করা প্রয়োজন উল্লেখ করে অক্সফাম বলেছে, আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ৪৭ লাখ লোক ক্ষুধা, দারিদ্র্য ও বিভিন্ন অসুখের সম্মুখীন। খবর এএফপির।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী এটা একটা সঙ্কট। জীবন বাঁচাতে এল নিনোর বিরুদ্ধে অবিলম্বে পদক্ষেপ নেয়া জরুরী। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলমান এল নিনো এ যাবতকালের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী। এটি আবহাওয়াকে আরও চরম করে তুলবে এবং এর ফলে লোকজনের খাদ্য নিরাপত্তা, জীবন ও জীবিকা হুমকির মুখে পড়বে। প্রশান্ত মহাসাগরের মধ্য ও পূর্বাঞ্চলে একটি বিশেষ উষ্ণতার সময়ের পাশাপাশি আবহাওয়ার ধরনগত একটি অবস্থার নাম এল নিনো। এর প্রভাবে জলবায়ু চরম হয়ে উঠতে পারে। গত মাসে জাতিসংঘ আবহাওয়া সংস্থা এল নিনোর সতর্কবাণী করেছিল। এর ফলে প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকার তাপমাত্রা উষ্ণ হয়ে উঠেছিল যা গত ১৫ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ছিল।

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫

১৬/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: