১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পানি ব্যবস্থাপনা উন্নয়নে এডিবির সঙ্গে ঋণচুক্তি সই


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পানি ব্যবস্থাপনা প্রকল্পে অতিরিক্ত অর্থায়ন করছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) ও নেদারল্যান্ডস। এ উপলক্ষে ৫ কোটি ২০ লাখ মার্কিন ডলারের একটি (ঋণ ও অনুদান) চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। রবিবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন এবং এডিবির কান্ট্রি ডাইরেক্টর কাজুহিকো হিগুচি।

মোট স্বাক্ষরিত অর্থের মধ্যে ৪ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে এডিবি আর ৭০ লাখ মার্কিন ডলার অনুদান দিচ্ছে নেদারল্যান্ডস সরকার। এ ঋণের অর্থ ৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ২৫ বছরে পরিশোধ করতে হবে এবং সুদের হার ২ শতাংশ বলে জানানো হয়। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সাউথইস্ট এরিয়া ইন্টিগ্রেটেড ওয়াটার রিসোর্স প্লানিং এ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট শীর্ষক প্রকল্পটি সাত বছর মেয়াদে (২০১৫ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত) বাস্তবায়িত হবে। এটি বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে ৬ কোটি ৩৭ লাখ মার্কিন ডলার। এর মধ্যে এডিবির ঋণ ও নেদারল্যান্ডস সরকারের অনুদানের বাইরে ১ কোটি ১৭ লাখ মার্কিন ডলার ব্যয় করা হবে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে। পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের আওতায় বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে প্রকল্প এলাকার বন্যা নিয়ন্ত্রণ এবং পানি নিষ্কাশন/সেচ ব্যবস্থার উন্নয়নের মাধ্যমে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন ও দারিদ্র্য দূরীকরণ হবে। মেজবাহ উদ্দিন বলেন, ১৯৭৩ সালে বাংলাদেশ সদস্য হওয়ার পর থেকে এডিবি অন্যতম সহযোগী হিসেবে বাংলাদেশকে ঋণ ও অনুদান সহায়তা প্রদান করে আসছে। এ পর্যন্ত বাংলাদেশকে সংস্থাটি সাড়ে ১৫ বিলিয়ন ডলারের বেশি ঋণ দিয়েছে। তিনি জানান, এডিবি মূলত বিদ্যুত, জ্বালানি পরিবহন, স্থানীয় সরকার, শিক্ষা, কৃষি, পানি সম্পদ, সুশাসন স্বাস্থ্য ও আর্থিক খাতে ঋণ সহায়তা প্রদান করছে।

প্রকল্পের আওতায় প্রধান কার্যক্রম হচ্ছে, সমন্বিত পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম প্রবর্তনের জন্য সুবিধাভোগীদের সংগঠিত করে নিবন্ধন ও ব্যাপক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধি নিশ্চিত করা। অংশীদারিত্বমূলক এবং সমন্বিত পানি সম্পদ পরিকল্পনা ও ব্যাপস্থাপনা কার্যক্রম প্রবর্তন করা। বাঁধ, সেচ নিষ্কাশন খাল ও রেগুলেটরসহ প্রকল্পের অন্যান্য অবকাঠামো মেরামত, পুনর্বাসন ও নির্মাণ করা। পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমে সুবিধাভোগীদের অংশগ্রহণ ও উন্নত সেবা বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ও সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা এবং টেকসই সমন্বিত পানি সম্পদ পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের দক্ষতা ও সক্ষমতা বৃদ্ধি করা হবে।

কাজুহিকো হিগুচি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে এডিবি সব সময়ই পাশে থেকেছে। আগামীতেও থাকবে। বাংলাদেশকে মধ্য আয়ের দেশে নিয়ে যেতে এই সহযোগী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।