১৯ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

যাত্রী হত্যা মামলার চার্জশীট বিষয়ে আদেশ ২ নবেম্বর


কোর্ট রিপোর্টার ॥ খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে বাসে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করে যাত্রী হত্যার দুই মামলায় দুটি অভিযোগপত্র (চার্জশীট) গ্রহণের বিষয়ে আদেশের তারিখ ২ নবেম্বর ধার্য করেছে আদালত। গতকাল সোমবার মামলা দুটির অভিযোগপত্র আদালতে উপস্থাপন করা হয়। ঢাকা মহানগর হাকিম শাহরিয়ার মাহমুদ আদনানের আদালত অভিযোগপত্র পর্যালোচনা করে আদেশ প্রদানের জন্য এ দিন ধার্য করেন।

বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদার বিরুদ্ধে যাত্রাবাড়ী থানায় দায়ের করা মামলা দুটিতে (৫৮ ও ৫৯) গত ৫ মে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই বশির আহমেদ। অভিযুক্ত ৩৮ জনের মধ্যে ছয়জন কারাগারে এবং একজন জামিনে রয়েছেন। খালেদা জিয়াসহ ৩১ জনকে পলাতক দেখানো হযেছে।

২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাতে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় গ্লোরি পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোলবোমা ছোড়া হলে বাসের ২৯ যাত্রী দগ্ধ হন। দগ্ধদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হলে ১ ফেব্রুয়ারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নূর আলম (৬০) নামের এক বৃদ্ধ। এ ঘটনায় ২৪ জানুয়ারি বিকেলে খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে যাত্রাবাড়ী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন থানার উপ-পরিদর্শক কে এম নুরুজ্জামান। অভিযোগপত্রে আসামিদের মধ্যে আরও আছেন এম কে আনোয়ার, রুহুল কবির রিজভী, বরকত উল্লাহ বুলু, আমানউল্লাহ আমান, খন্দকার মাহবুব হোসেন, শওকত মাহমুদ, শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, মারুফ কামাল খান প্রমুখ।

অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত না হওয়ায় এজাহারভুক্ত ৪২ আসামিকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতির আবেদন জানানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে সোহাগ ও লিটন নামে দুজন গত ১৯ ফেব্রুয়ারি নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেন। জবানবন্দীতে কারা কারা জড়িত, পরিকল্পনাকারী ও নির্দেশদাতা তার বিস্তারিত বর্ণনা দেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: