ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

এটিএম কার্ডে বিশুদ্ধ পানি সেবা

কর্পোরেট এক্সিলেন্স পুরস্কার-২০২২ পেয়েছে ড্রিংকওয়েল

প্রকাশিত: ১৯:০২, ১৯ মার্চ ২০২৩; আপডেট: ২০:৪৭, ১৯ মার্চ ২০২৩

কর্পোরেট এক্সিলেন্স পুরস্কার-২০২২ পেয়েছে ড্রিংকওয়েল

পুরস্কার ড্রিংকওয়েলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিনহাজ চৌধুরীর হাতে তুলে দেয়া হয়।

উন্নত প্রযুক্তি মাধ্যমে ঢাকার ওয়াসা বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ করে থাকে। এটিএম বুথ এর মাধ্যমে স্বল্প মূল্যে এই বিশুদ্ধ পানি সাধারণ মানুষের মধ্যে সরবরাহ করে ড্রিংকওয়েল নামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। নাগরিক সেবায় পানি ব্যবস্থাপনায় এই সাফল্যের জন্য ইউএস স্টেট ডিপার্টমেন্ট অ্যাওয়ার্ড ফর কোর্পোরেট এক্সেলেন্স পেয়েছে ড্রিংকওয়েল। 

রবিবার রাজধানীর কারওয়ানবাজারে ওয়াসা ভবনে ‘কর্পোরেট এক্সিলেন্স পুরস্কার-২০২২’ ড্রিংকওয়েলের সিইও মিনহাজ চৌধুরীর হাতে তুলে দেয়া হয়। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব মুহম্মদ ইবরাহিম। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ঢাকা ওয়াসার এমডি প্রকৌশলী তাকসিম এ খান।

অনুষ্ঠানে পানির গুরুত্ব তুলে ধরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, গৃহ্যস্থ, কৃষি বা শিল্পখাতে পানির দরকার থাকলেও খাবার সুপেয় পানির অপরিসীম গুরুত্ব রয়েছে। ঢাকা ওয়াসার পার্টনার ড্রিংকওয়েলের যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্পোরেট এক্সিলেন্স পুরস্কার ২০২২ প্রাপ্তি আমাদের জন্য গৌরবের কারণ ডিজিটাল বাংলাদেশে মানুষ এখন পানিও কার্ড দিয়ে এটিএম বুথ থেকে নামমাত্র মূল্যে ক্রয় করতে পারছে। 

মো. তাজুল ইসলাম বলেন, শেখ হাসিনার বাংলাদেশে এ রকম অনেক অসম্ভব বিষয় আজ বাস্তবতায় পরিনত হয়েছে। ফলে মানুষ আগের থেকে অনেক বেশি সেবা পাচ্ছে এবং তাদের জীবনমান উন্নত হয়েছে। ড্রিংকওয়েলের মত বেসরকারি উদ্যোগকে ওয়াসা সহায়তা করার ফলে মানুষের স্বাস্থ্যসম্মত খাবার পানি প্রাপ্তি সহজ হয়েছে।

অনুষ্ঠানে ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খান বলেন, বর্তমানে ঢাকা ওয়াসা ডিজিটাল ওয়াসা। ঘুরে দাঁড়াও ওয়াসা কার্যক্রমের মাধ্যমে আজ ঘুরে দাঁড়িয়েছে ঢাকা ওয়াসা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারায় বাংলাদেশ এখন যেমন সবার কাছে মিরাকেল, তেমনি এ সময়ে ঢাকা ওয়াসার অনেক পরিবর্তন হয়েছে, এগিয়ে গেছে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী একজন চেঞ্জ মেকার, তার নির্দেশনা, দূরদর্শী পদক্ষেপের মাধ্যমে ঢাকা ওয়াসা আজ এগিয়ে চলেছে। এখন পাবলিক ওয়াটার সেবায় আমরা দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চাই। আমরা আমাদের সব কার্যক্রম অনলাইন করতে চাই। অনলাইন কার্যক্রমের মাধ্যমে ঢাকা ওয়াসার অনেক পরিবর্তন হয়েছে। ঢাকা ওয়াসার অনলাইন কার্যক্রম পরিচালিত হওয়ায় গ্রাহকরাও উপকৃত হচ্ছেন প্রতিটি পদক্ষেপে।

আকাশ

×