ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১

গোসল করতে করতে মূত্রত্যাগ বিপজ্জনক

প্রকাশিত: ১২:০৪, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

গোসল করতে করতে মূত্রত্যাগ বিপজ্জনক

ইউটিআই তে আক্রান্ত হতে পারেন

গোসলের আগে মূত্রত্যাগ করার ঘটনা স্বাভাবিক হতে পারে। তবে কিছু মানুষ আছেন যারা গোসল করতে করতে মূত্রত্য়াগ করেন। অর্থাৎ যাদের এই অভ্যাস আছে তারা একসঙ্গে দুটি কাজ করেন। কিন্তু গোসলের সময় প্রস্রাবের এই অভ্যাস স্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক। 

চিকিৎসকদের ধারণা, গোসলের সময় প্রস্রাব যারা করেন তাদের মধ্যে নারীদের জন্য এটা বেশি ক্ষতিকর। কারণ, তারা যখন দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করার চেষ্টা করেন, তখন মূত্রাশয় সম্পূর্ণ খালি হয় না। ফলে শ্রোণী বা পেলভিক পেশীতে বেশি চাপ পড়ে ও তা ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যায়। আর পুরুষদের প্রোস্টেট গ্ল্য়ান্ড থাকায় তারা দাঁড়ানো অবস্থায়ও ঠিকমতো প্রস্রাব করতে পারেন। তবে নারী-পুরুষ যেই হন না কেনো, কারও উচিত নয় গোসলের করতে করতে প্রস্রাব করা।  

গোসলের সময় পানির কুলকুল শব্দের সঙ্গে প্রস্রাব করা এক সময়ে অভ্যাসে পরিণত হয়। এক্ষেত্রে আপনি মূত্রাশয়কে শিক্ষা দিচ্ছেন যে, এটি জলের শব্দ পেলেই সংকুচিত হবে। আর এই কারণে অভ্যাসবশত জলের শব্দ পেলেই এ ধরনের মানুষজন যেখানে সেখানে মূত্রত্যাগ করতে পারেন। 

বিশেষজ্ঞের মতে, এই অভ্যাস পেলভিক ফ্লোর ডিসফাংশনের কারণ হতে পারে। এ ধরনের ব্যক্তিদের কোনো শব্দ শুনলেই প্রস্রাব হয়ে যেতে পারে। বাথরুম আর টয়লেট দুটো আলাদা স্থানে হওয়া ভালো। তবে গোসলের সময় আপনি যদি শাওয়ারের সঙ্গে প্রস্রাব করেন তাহলে স্থানটি নোংরা হয়ে যাবে। গোসলের জায়গা সবসময় পরিষ্কার রাখা উচিত।  

চিকিৎসকদের পরামর্শ, যদি মূত্রনালিতে সংক্রমণ (ইউটিআই) থাকে, আর আপনি পাবলিক টয়লেট কিংবা বাথরুম ব্যবহার করেন তাহলে এই গোসলের সঙ্গে মূত্রত্য়াগের অভ্যাস এখনই ছাড়ুন। কারণ, আপনার প্রস্রাবের জীবাণু বাথরুমে থাকতে পারে ও অন্য কাউকে তা প্রভাবিত করতে পারে। এমনকি আপনি নিজেও ইউটিআই তে আক্রান্ত হতে পারেন। 

এমএইচ

×