ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১

জ্যৈষ্ঠের দাবদাহে

শিউলী আহমেদ

প্রকাশিত: ২১:১১, ১৯ মে ২০২৪

জ্যৈষ্ঠের দাবদাহে

.

প্রচন্ড তাপদাহের পর হঠাৎ এক পশলা বৃষ্টিতে কিছুদিন সবাই একটু আরামে সময় কাটিয়েছে। কিন্তু আবার বাড়তে শুরু করেছে তাপমাত্রা। দেওয়া হচ্ছে হিট এলার্ট। আর মুরব্বিরা বলেন, ‘জ্যৈষ্ঠ হচ্ছে জেঠা মাস। মাসে আম-কাঁঠাল পাকার একটা গরম পরেই সেই গরমটাও হয় অসহ্যরকম। তবে বর্তমানে প্রকৃতি যেন অসহিষ্ণু হয়ে পড়েছে। হিট স্ট্রোকে অনেকে মারাও যাচ্ছে। হিট এলার্ট হিসেবে খুব জরুরি দরকার ছাড়া ঘরের বাইরে বের হওয়াও বারণ করা হচ্ছে। কিন্তু বাইরে তো যেতেই হয় কোনো না কোনো কাজে। অফিস-আদালত, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন প্রয়োজনে তো বের হতেই হয়। কি করবেন তাহলে? বের হওয়ার সময় কিছু সাবধানতা অবলম্বন করুন।

. এখন সকালের রোদও অনেক তীব্র হয়। তাই বের হওয়ার অন্তত আধা ঘণ্টা আগে সানস্কিন ক্রিম মুখে লাগিয়ে নিবেন। না হয় তীব্র রোদের তাপে ত্বক পুড়ে যাবে। বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ড বা কোয়ালিটির সানস্কিন বা সানব্লক পাওয়া যায়। আপনার ত্বক বুঝে বেছে নিন তার যে কোনোটি।

. সঙ্গে অবশ্যই ছাতা নিয়ে বের হবেন। বিভিন্ন রকম ছোট বড় ছাতা পাবেন, যা সহজেই ব্যাগের মধ্যে বহন করা যায়। যেগুলোর দাম ৩০০/- থেকে শুরু। বিভিন্ন রং বেরঙের ছাতা পছন্দসই এবং সাধ্যের মধ্যে কিনে নিতে পারেন।

. সঙ্গে খাওয়ার পানি নিবেন। তবে ফ্রিজের ঠান্ডা পানি এড়িয়ে চলবেন। বাইরের ড্রিংকস, জুস এড়িয়ে চলবেন। ডাবের পানি খেতে পারেন। আর এখন বাজারে তালের শাঁস পাওয়া যায়, সেটাও খেতে পারেন। এটি পানীয় হিসেবে কাজ করবে আর এর পুষ্টিগুণও অনেক। এছাড়া ঘরে ফিরে লেবুর শরবত আর স্যালাইন পান করতে পারেন, যদি তাতে আপনার শারীরিক সমস্যা না হয়। এটি সারাদিনের ক্লান্তি দূর করবে।

. সানগ্লাস, ক্যাপ বা হ্যাটও নিতে পারেন রোদ থেকে বাঁচতে।

. আজকাল বাজারে ছোট ছোট ফ্যান পাওয়া যায়, যা হাতে বহন করা যায়। অথবা নেক ফ্যান আছে যা ঘাড়ের মধ্যে দিয়ে রাখতে পারেন। এতে পথে চলতে বা যানবাহনে চলাচলের সময় আপনাকে সাময়িক স্বস্তি  দেবে। এগুলোও কোয়ালিটি অনুযায়ী বিভিন্ন দামের পাবেন। সর্বনিম্ন দাম ৩০০ টাকা।

. অবশ্যই সুতির ঢিলেঢালা পোশাক পরবেন। এতে গরমে আরাম লাগবে। আজকাল সুতি, লন, ভিসকস, লিলেন ইত্যাদি আরামদায়ক কাপড়ের ফ্যাশনেবল জামা পাওয়া যায়। সুতি শাড়িও পাবেন নানা ধরনের, যা পার্র্টিতেও যাওয়ার মতো। অথবা গজ কাপড় কিনে নিজে ডিজাইন করেও বানিয়ে নিতে পারেন পছন্দসই জামা।

. অবশ্যই হালকা রঙের জামা পরবেন। ছেলেদের ফুল হাতা শার্ট পরার অভ্যাস থাকলে চেক বা অন্য কোনো সুতি কাপড়ের শার্ট বানিয়ে বা কিনে নিতে পারেন। কাজের জন্য যেহেতু আমাদের বাইরে বের হতেই হয়, তাই যথাসম্ভব রোদ এড়িয়ে চলবেন। তাপমাত্রা আবারও ৪০ ডিগ্রি ছুঁয়ে যাওয়ার শঙ্কা আছে। চলতি পথে কখনো খারাপ লাগলে ছায়াতে বা কোনো ঠান্ডা জায়গায় বিশ্রাম নিন। চোখে মুখে পানির ঝাপটা দিন। এবারের গরমে অনেকেই বাড়ির বাইরে সাপ্লাই পানির ব্যবস্থা করেছেন। যা মানবিকতার এক অনন্য নজির। তাই নিজেকে নিজেই রক্ষা করুন।

মডেল : অমি তিনা

×