ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০

শীতে ত্বক বুঝে সাজ

জলি রহমান

প্রকাশিত: ২১:১০, ২৬ নভেম্বর ২০২৩

শীতে ত্বক বুঝে সাজ

.

হেমন্ত ঋতুর প্রকৃতি শীতের আগমনী বার্তা নিয়ে বেশ ব্যস্ত। প্রকৃতির রুক্ষতার আঁচড় ইতোমধ্যে দেখা দিয়েছে ত্বকেও। ঠান্ডা তাপমাত্রার কারণে শরীর প্রচুর আর্দ্রতা হারিয়ে ফেলে, যার ফলে ত্বকের হয় অনেক পরিবর্তন। এজন্য শীতকালে মেকাপের জন্য যত্নশীল হওয়া প্রয়োজন।

মেকআপের জন্য শীতকালটা বেশ উপযোগী। মেকআপ করতে যাঁরা পছন্দ করেন তাঁদের জন্য তো বটেই! যারা মেকআপে অভ্যস্ত নন তারাও সাজার চেষ্টা করেন সময়ে। কেননা শীতে মেকআপ খুব তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় থাকে না। উজ্জ্বল রংগুলো পরার জন্য একদম সঠিক সময়। শীতে সব ধরনের ত্বকেই কিছুটা তারতম্য আসে। ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়া, ত্বকের রঙের পরিবর্তন ইত্যাদি। এসবের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে মেকআপ করতে হয়।

সাজ শুরুর আগে অবশ্যই ফেসিয়াল স্ক্রাব দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন। এরপর ত্বকে প্রয়োজনীয় আর্দ্রতা আনতে ময়েশ্চারাইজ করুন। এতে ত্বকের শুষ্ক অংশের মরা কোষ পরিষ্কার হয়ে যাবে, ফলে সাজের জন্য মসৃণ বেইস তৈরি করা সহজ হয়। ময়েশ্চারাইজার লাগানোর অন্তত ১৫ মিনিট পরে সাজ শুরু করুন, যাতে ময়েশ্চারাইজার ত্বকে ঠিকমতো বসে যায়। বেইস মেকআপ শুরু করুন প্রাইমার দিয়ে।

প্রাইমার ত্বক আর্দ্র রাখে। যা শীতকালে খুবই জরুরি। এটি আপনার মেকআপ দীর্ঘস্থায়ীও করবে। ফাউন্ডেশন পছন্দ করার ক্ষেত্রে শীতকালে বেশ কিছুটা স্বাধীনতা পাওয়া যায়। যদি ত্বকের রঙে পরিবর্তন এসে যায়, তাহলে গরমকালে যেটি ব্যবহার করেছেন তা পাল্টে ত্বকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন নিন। যদি আপনি ম্যাট ফাউন্ডেশন ব্যবহারে অভ্যস্ত হয়ে থাকেন, তাহলে সময় একটু ভিন্নতা আনার জন্য লুমিনাস ফিনিশের ফাউন্ডেশন বেছে নিতে পারেন। লুমিনাস ফাউন্ডেশন ত্বকের শুষ্কতা ঢেকে ফেলে ত্বকে বাড়তি উজ্জ্বলতা যোগ করে। আবার ন্যাচারাল ফিনিশের জন্য বিবি অথবা সিসি ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। এরপর কনসিলার দিয়ে চোখের নিচের কালো দাগ অথবা মুখের অন্য সব দাগ ঢেকে ফেলুন। ত্বক তৈলাক্ত হলে ম্যাট ফিনিশ প্রেসড পাউডার দিয়ে বেইস ঠিক করে নিন। ব্রোঞ্জিং পাউডার দিয়ে মুখের আকার অনুযায়ী কনট্যুর এবং হাইলাইট করতে ভুলবেন না। ব্লাশনের ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন গোলাপি, পিচ, কোরাল অথবা আপনার পছন্দের যেকোনো রং। তবে ব্লাশন ব্যবহার করার সময় খেয়াল করুন ব্লাশনের রঙটি যেন আপনার পোশাক, লিপস্টিক, আইশ্যাডোর রঙের সঙ্গে মানানসই হয়। মেকআপের পর্যায়ে ব্যবহার করুন সেটিং স্প্রে। এটি দীর্ঘক্ষণ মেকআপ ঠিক রাখতে সাহায্য করবে।

চোখের মেকআপের ক্ষেত্রে গরমে আমরা সাধারণত হালকা রংগুলো ব্যবহার করি, কিন্তু এখন যেকোনো উজ্জ্বল রঙের শেড অথবা গাঢ় শেড যেমন নীল, কমলা, উজ্জ্বল গোলাপি, নীলাভ-সবুজ (টিল), বাদামি, টিয়া, সোনালি, কপার ইত্যাদি খুব ভালো মানিয়ে যাবে। আইলাইনার পরতে পারেন ইচ্ছেমতো, চোখের পাতার ওপরে-নিচে অথবা শুধু ওপরের পাতায়, এরপর মাসকারা লাগিয়ে নিন।

পোশাকের সঙ্গে মানিয়ে আপনার পছন্দের যেকোনো লিপস্টিক শেড বেছে নিন। যদি স্বাভাবিক রঙের লিপস্টিক পছন্দ করেন, তাহলে একেবারে স্বাভাবিক শেড না ব্যবহার করে একটু পিচ অথবা বাদামি ছোঁয়া আছে এমন রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করুন। একদম হালকা লিপস্টিক শীতে চেহারার সজীব ভাব কমিয়ে দেয়। ম্যাট লিপস্টিকের বদলে ক্রিম বা হাইড্রেটেড ফিনিশের লিপস্টিক পরতে পারেন। অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফিরে ভালো করে মেকআপ পরিষ্কার করতে ভুলবেন না। নতুবা ত্বকের লোমকূপ বন্ধ হয়ে ব্রণের মতো সমস্যা দেখা দেবে। মেকআপ পরিষ্কার করতে বেবি অয়েল কিংবা ক্লিনজিং মিল্ক ব্যবহার করুন, এরপর পানি আর ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সবশেষে আবার ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

মডেল : রিমু ইসলাম

পোশাক : ডিজাইনার ডোর

স্টাইল : বিডি মিজু

ছবি : মনজুরুল আলম

×