ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১

৪০ শতাংশ ছাড়ে খেজুর বিক্রি

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২২:০০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

৪০ শতাংশ ছাড়ে খেজুর বিক্রি

৪০ শতাংশ ছাড়ে খেজুর বিক্রি

পবিত্র রমজান মাস আসার আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। এ মাসে অন্যতম প্রয়োজনীয় পণ্য খেজুর প্রায় ৪০ শতাংশ ছাড়ে বিক্রি করছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) ব্যবসায়ীরা। খবর খালিজ টাইমসের।

শারজার ওয়াটারফ্রন্ট মার্কেট ও জুবাইল মার্কেটে দেখা গেছে, স্বাভাবিকের তুলনায় খেজুরের দাম উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস পেয়েছে। বর্তমানে ফিলিস্তিন, জর্ডান ও সৌদি আরবের মাজদুলের খেজুরের দাম প্রতি কেজি ২০ দিরহাম (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৫৯৬ টাকা), যা মাত্র কয়েকদিন আগে ছিল ৩০ দিরহাম। একইভাবে রুতাব খেজুর সাধারণত প্রতি তিন কেজির দাম ৬০ দিরহাম (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৭৯০ টাকা), যা এখন কমে দাঁড়িয়েছে ৪৫ দিরহামে অর্থাৎ প্রায় ১৩৪২ টাকায়। 

একইভাবে সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত আজওয়া খেজুরের দাম এখন প্রতি কেজি ৪৫ দিরহাম থেকে কমে দাঁড়িয়েছে ৩৫ দিরহামে। তবে বাজেট সচেতন মানুষের জন্য রয়েছে সবচেয়ে সাশ্রয়ী মূল্যের ইরানের জাইদি খেজুর, এর মূল্য প্রতি কেজি ৫ দিরহাম অর্থাৎ ১৪৯ টাকা৷

ওয়াটারফ্রন্ট মার্কেটের ১৩০ নম্বর স্টলের খেজুর বিক্রেতা মোহাম্মদ রইস বলেন, ‘শুকনো ফল এখন দামে ছাড় দিয়ে বিক্রি হচ্ছে। বর্তমানে, মাজদুল খেজুরের চাহিদা উল্লেখযোগ্যভাবে কম। আমরা প্রতিদিন ১০০ কেজির বেশি খেজুর বিক্রি করছি। আমরা আশা করছি, এটি পরের সপ্তাহে প্রতিদিন ৫০০ কেজির বেশি হবে।’

রমজান মাসে খেজুরের একটি বিশেষ ও গুরুত্বপূর্ণ তাৎপর্য রয়েছে। এটি ইফতারের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে কাজ করে। ঐতিহ্যগতভাবে মুসলমানরা মহানবি হযরত মোহাম্মদ (সা.) এর উদাহরণ অনুসরণ করে খেজুর ও পানি খেয়ে তাদের রোজা ভঙ্গ করেন। 

এই মিষ্টি ও পুষ্টিকর ফলটি একদিনের রোজার পরে দ্রুত শক্তি বৃদ্ধি করে ও রক্তে শর্করার মাত্রা পূরণ করতে সাহায্য করে।

এস

×