ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০

জেনে নিন বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্ট কোন দেশের

প্রকাশিত: ২২:২৩, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

জেনে নিন বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্ট কোন দেশের

পাসপোর্ট।

পাসপোর্ট ছাড়া একদেশ থেকে অন্যদেশ ভ্রমণের সুযোগ নেই। আন্তর্জাতিক ভ্রমণের সময় বাহকের জাতীয়তা ও পরিচয় প্রত্যয়িত করে একটি পাসপোর্ট। এই ভ্রমণ নথিতে বাহকের নাম, জন্মের তারিখ ও স্থান, ছবি, স্বাক্ষরসহ অন্যান্য চিহ্নিতকরণের তথ্য থাকে।

বিশ্বের সব দেশেরই নিজ নিজ পাসপোর্ট রয়েছে। তবে কয়েকটি দেশের পাসপোর্ট এতটাই শক্তিশালী যে, ওইসব দেশের পাসপোর্টধারীরা চাইলে বিশ্বের শত শত দেশ ভ্রমণ করতে পারেন কোনো প্রকার অনুমতি কিংবা ভিসা জটিলতা ছাড়াই। যে পাসপোর্ট তার ধারককে অন্য দেশে ভিসা-অন-অ্যারাইভালসহ, ভিজিটর পারমিটসহ ইত্যাদি সুবিধা বেশি দেয়, সেসব পাসপোর্টকে শক্তিশালী বলে বিবেচনা করা হয়।

আর এই তালিকায় ২০২৪ সালে একধাপ উন্নতিতে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্ট এখন স্পেনের। দেশটির পাসপোর্টধারীরা ভিসা ছাড়াই বিশ্বের ১৯৪টি গন্তব্যে ভ্রমণ করতে পারবেন। এই তালিকায় সমান স্কোর নিয়ে ইউরোপের আরো তিনটি দেশসহ এশিয়ার দুইটি দেশ রয়েছে।

সম্প্রতি লন্ডন-ভিত্তিক নাগরিকত্ব সংক্রান্ত পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্স ২০২৪ সালের পাসপোর্ট ইনডেক্স এই তথ্য জানায়, ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের নথির ভিত্তিতে ১৯৯টি দেশের পাসপোর্ট নিয়ে এই সূচক তৈরি করা হয়। এ সূচক তৈরির সময় পৃথিবীর ২২৭টি গন্তব্যে যেতে পারার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হয়।

নতুন এ সূচকে গত বছর দ্বিতীয় অবস্থান থেকে একধাপ উন্নতিতে যৌথভাবে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ছয়টি পাসপোর্ট এর একটি স্পেন। সমান ১৯৪ স্কোর নিয়ে বাকি পাঁচটি দেশ হচ্ছে- ইউরোপের ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি এবং এশিয়ার জাপান ও সিঙ্গাপুর। এ দেশগুলোর পাসপোর্টধারীরা সহজেই ১৯৪ দেশে ঝামেলামুক্তভাবে প্রবেশ করতে পারবেন।

এদিকে, বিশ্বের শক্তিশালী পাসপোর্ট সূচকে একধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশ। গত বছর অবস্থান ছিল ১০১তম। এবার ১০২ নম্বর অবস্থানে নেমেছে বাংলাদেশ। বর্তমানে বাংলাদেশি পাসপোর্টধারীরা অগ্রীম ভিসা ছাড়া ৪২ দেশে ভ্রমণ করতে পারেন। দক্ষিণ এশিয়ার দেশ মালদ্বীপ আগের মতোই সূচকে ৫৮তম স্থানে রয়েছে। মালদ্বীপের পাসপোর্টধারীরা পৃথিবীর ৯৬টি দেশে ভিসা ছাড়া যাতায়াত করতে পারবেন। 

এম হাসান

×