ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ত্বকের সমস্যায় লেজারের সুবিধা-অসুবিধা

ডা. জাহেদ পারভেজ

প্রকাশিত: ০১:০২, ২৩ এপ্রিল ২০২৪

ত্বকের সমস্যায় লেজারের সুবিধা-অসুবিধা

চুল পড়ে যাচ্ছে অথবা মাথার চুল পাতলা হয়ে যাচ্ছে

চুল পড়ে যাচ্ছে অথবা মাথার চুল পাতলা হয়ে যাচ্ছে এমন সমস্যা অনেকেরই এখন দেখা যাচ্ছে-
মানবদেহে অবাঞ্ছিত লোম ও চুল অপসারণে লেজার আমাদের দেশের শ্যামলা রঙের ত্বকের জন্য নির্মিত ফ্লুক্স এক হাজার ডাইওড মেশিন বাংলাদেশেও অহরহ যা ত্বকের কোনো ক্ষতি না করেই ত্বকের গভীরে প্রবেশ করে অবাঞ্ছিত লোম (চুল) কে অঙ্কুরে ধ্বংস করে। অন্যদিকে আধুনিক কুলিং ব্যবস্থা চিকিৎসাকে নিরাপদ ও আরামদায়ক করে তুলে।

কিউ-সুইচড এনডি ইয়াগ নামক লেজার দুটি ভিন্ন ধরনের মিশ্রিত রশ্মির সৃষ্টি করে ত্বকের গভীরে অবাঞ্ছিত চুলের ওপর কাজ করে। বাংলাদেশে ইনটেন্স পালস লাইট নামক অত্যাধুনিক লেজার মেশিন রয়েছে, যা একই নিয়মে কাজ করে কিন্তু তাতে সময় অনেক কম লাগে। কারণ এর চিকিৎসা স্পট সাইজ অনেক বড়। এ ক্ষেত্রে চার সপ্তাহ পরপর চারটি সিটিংয়ের প্রয়োজন হয়। সব পদ্ধতিই ব্যথামুক্ত ও রক্তপাতবিহীন। চুল অপসারণে এটি একটি বিস্ময়কর আবিষ্কার ও কার্যকর চিকিৎসা পদ্ধতি। ব্রণ নির্মূলে লেজার রশ্মির ব্যবহার
গত ১৫ বছর ধরে ব্রণ চিকিৎসায় ফোটন রশ্মি বিশ্বব্যাপী সফলভাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। যে ব্যাকটেরিয়া ব্রণের জন্য দায়ী তা এ রশ্মি শোষণ করে জীবাণুকে ধ্বংস করে। তাই এ ক্ষেত্রে অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ার প্রয়োজন কমে যায়। এ চিকিৎসার সময়কাল ছয় থেকে আট সপ্তাহ এবং সপ্তাহে এক থেকে দুইবার করতে হয়। এটি খুব সহজ ও ব্যথামুক্ত একটি পদ্ধতি। তবে রোগীকে ধৈর্যসহকারে চিকিৎসকের পরামর্শে চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে।
ত্বকের দাগে লেজার
মুখের সৌন্দর্য বৃদ্ধি ও ত্বকের দাগের চিকিৎসায় লেজার খুবই কার্যকর। 
কিউ সুইচড এনডি ইয়াগ দুটি তরঙ্গ দৈর্ঘ্যে কাজ করে এর সমাধান দেওয়া যায়। ত্বকের কালো ও জন্মদাগ এবং মুখের ত্বকের উপরি ভাগের লোম ও রক্তনালীর সমস্যায় এ চিকিৎসা খুবই ফলপ্রসূ হতে পারে।
ত্বকের টিউমার অপসারণে লেজার
কার্বন ডাই-অক্সাইডযুক্ত লেজার ত্বকের টিউমার ও ক্যান্সার, আঁচিল ও বয়সের ভাঁজের চিকিৎসায় অত্যন্ত কার্যকর পদ্ধতি। সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে এতে অ্যানস্থেসিয়ার প্রয়োজন হয় না। ব্যথামুক্ত এ পদ্ধতিতে এক থেকে দুই বার চিকিৎসার প্রয়োজন হয়।
অসুবিধাসমূহ : প্রতিটি কাজেরই কিছু না কিছু সাইড এপেক্ট মানে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে। রোগীর বয়স, শরীরের অন্য রোগ বা ধরন বুঝেই চিকিৎসা করানো উচিত। তবে বিশেষজ্ঞ লেজার সার্জন ছাড়া করানো উচিত নয়।
শৈল্য চিকিৎসা 
ত্বকের নানাবিধ সমস্যাদি, ঘা ও অপারেশন-পরবর্তী ঘা শুকানোর জন্য লেজার পদ্ধতি বেশ উপকারী হয়ে উঠছে। ইনকোহারেন্ট ফোটন রশ্মির সাহায্যে উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা যেমন ডায়াবেটিস, আলসার, ত্বকের প্রদাহ ও অপারেশন-পরবর্তী ঘা শুকানোর জন্য লেসার ব্যবহৃত হয়। আর তাতে রোগীরাও বেশ স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছে। তবে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের দ্বারা না করালে নানা অসুবিধাও হতে পারে।

লেখক : চর্ম, যৌন ও হেয়ারট্রান্সপ্লান্ট সার্জন ও চেয়ারম্যান, ডা. জাহেদস হেয়ার অ্যান্ড স্কিনিক হাসপাতাল। সাবামুন টাওয়ার, (লিফটের-৫) পুলিশ বাক্সের সঙ্গে। পান্থপথ, মোড়, ঢাকা। ০১৭৩০-৭১৬-০৬০, ০১৭০৭-০১১-২০০

×