ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

ঈদের সিনেমার গানে কণার বাজিমাত

​​​​​​​সংস্কৃতি প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১:৪১, ২১ জুন ২০২৪

ঈদের সিনেমার গানে কণার বাজিমাত

.

ঈদে রায়হান রাফি পরিচালিততুফানসিনেমায় মিমি চক্রবর্ত্তীর কণ্ঠেদুষ্টু কোকিলশিরোনামের যে গানটি সারাবাংলার সংগীতপ্রেমী শ্রোতা-দর্শকদের মধ্যে ঝড় তুলেছে, সেই গানটিই গেয়েছেন প্লে-ব্যাকে এই প্রজন্মের শিল্পী দিলশাদ নাহার কণা। বলা যায়, কিছু দিন বিরতির পর কণার ভাগ্য আরও সুপ্রসন্ন করতেদুষ্টু কোকিলগানটি যেন কণার ক্যারিয়ারের জন্যও আশীর্বাদ হয়ে এলো। সিনেমার গানের হিসাব-নিকাশটা একটু নয়, অনেকটাই অন্যরকম। আধুনিক গান জনপ্রিয় হলেও এর ব্যাপকতা সিনেমার গানের মতো ব্যাপক নয়।তুফানসিনেমা মুক্তির আগেই নানা প্ল্যাটফরমেদুষ্টু কোকিলগানের কুক কুক কুক শব্দটি তুফানের গতিবেগে ছড়িয়ে গেছে। আর গানটি প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই ব্যাপক সাড়া ফেলে সারা বাংলাদেশে। গানটির এমন আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তায় কণাও যেন উচ্ছ্বাসের আকাশে উড়ছেন আনন্দে। প্রিয়জনদের প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।

স্বয়ং মিমি চক্রবর্ত্তীও তার এই গানের দারুণ প্রশংসা করেছেন। পুরোতুফানটিম কণার এই গানের ভক্ত হয়ে গেছে।

২০২৪ সালে নিজের এমন আরও একটি উড়াধুরা বাজিমাত গান প্রসঙ্গে কণা বলেন, এর আগে আমার গাওয়া অনেক গানে বাংলাদেশের জনপ্রিয় নায়িকারা লিপসিং করেছেন। কলকতার শুভশ্রী গাঙ্গুলীও করেছেন। তবেতুফান’- যে মিমি চক্রবর্ত্তী লিপসিং করবেন- এটা আমার জানা ছিল না। তার চেয়েও বেশি ভালো লাগার বা আমার জন্য প্রাপ্তির বিষয় হলো আমার এই গানে আমাদের সিনেমার গর্ব, আমাদের সুপারস্টার শাকিব খানও পারফর্ম করেছেন। এই গানে মিমি এবং শাকিব খানের অনবদ্য পারফর্মেন্স গানটিকে দর্শকের কাছে আরও বেশি গ্রহণযোগ্য করে তুলেছে। এটাই আমার প্রাপ্তি।

ধন্যবাদ রায়হান রাফিসহ পুরো তুফান টিমকে। কৃতজ্ঞতা আমার শ্রোতা-দর্শকের প্রতি। আর তুফান- কেমন সিনেমা, এটা সত্যিই ভাষায় প্রকাশের নয়, বুঝতে হলে, জানতে হলে সিনেমা হলে যেতে হবে। দুষ্টু কোকিল গানটি লিখেছেন আকাশ সেন, প্রিয় চট্টোপাধ্যায়, আর সুর করেছেন আকাশ সেন। এর আগে কণার কণ্ঠে সিনেমায়দিয়েছি তোকে দিল দিল দিল’, ‘ওহে শ্যাম’, ‘তুই কি আমার হবিরে’, ‘হেইলা দুইলা নাচ’, ‘ টাকা তুই আমার কলিজা আর জানসহ আরও বহু জনপ্রিয় সিনেমার গান রয়েছে কণার কণ্ঠে।

×