ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

স্বর্ণমন্দিরে কি করছেন প্রযোজক গুনীত মোঙ্গা

প্রকাশিত: ১৮:৪৫, ১৯ মার্চ ২০২৩

স্বর্ণমন্দিরে কি করছেন প্রযোজক গুনীত মোঙ্গা

প্রযোজক গুনীত মোঙ্গা

স্বল্পদৈর্ঘ্যের তথ্যচিত্রের বিভাগে সেরা ছবি হিসাবে অস্কার জিতেছে ‘দ্য এলিফ্যান্ট হুইস্পারার্স’। দেশে ফিরে সেই স্মারক নিয়ে স্বর্ণমন্দিরে গেলেন ছবির প্রযোজক গুনীত মোঙ্গা।

অস্কারের মঞ্চে নজির গড়েছেন তিনি। স্বল্পদৈর্ঘ্যের তথ্যচিত্রের বিভাগে সেরার শিরোপা অর্জন করেছে ভারতীয় ছবি ‘দ্য এলিফ্যান্ট হুইস্পারার্স’। তথ্যচিত্রের প্রযোজক হিসাবে অস্কার জিতেছেন গুনীত মোঙ্গা। সোনালি সেই স্মারক নিয়ে সদ্য দেশে ফিরেছেন গুনীত। দেশে ফিরেই সোজা অমৃতসরের উদ্দেশে রওনা দিলেন অস্কারজয়ী প্রযোজক। গেলেন স্বর্ণমন্দিরে। সেখানে তাঁকে নিয়ে গেলেন দেশের এক পরিচিত তারকার মা।

কথা দিয়েছিলেন, গুনীত অস্কার জিতলে তাঁকে নিজে গাড়ি চালিয়ে নিয়ে যাবেন স্বর্ণমন্দিরে। কথা রাখলেন জনপ্রিয় রন্ধনশিল্পী বিকাশ খান্নার মা। অস্কারজয়ী গুনীতকে ফুল আর মিষ্টি দিয়ে বরণ করে নেন বিকাশের মা বিন্দু খান্না। তার পর নিজে গাড়ি চালিয়ে গুনীতকে নিয়ে হাজির হলেন স্বর্ণমন্দিরে। সমাজমাধ্যমে সেই ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন বিকাশ। তিনি লেখেন, ‘‘একটা স্বপ্নকে ধাওয়া করা থেকে বিশ্বের অন্যতম সেরা প্রযোজক হয়ে ওঠা। গুনীত, তুমি প্রত্যেক ভারতবাসীকে গর্বিত করেছ। মা কথা দিয়েছিলেন, তুমি অস্কার জিতলে নিজে গাড়ি চালিয়ে তোমাকে স্বর্ণমন্দিরে নিয়ে যাবেন।’’ কথা রেখেছেন বিন্দু। গুনীতের সঙ্গে অস্কারের ট্রফি হাতে ধরে ছবিও তোলেন তিনি। সমাজমাধ্যমের পাতায় সেই মন ভাল করা ছবি ও ভিডিয়ো দেখে আপ্লুত অনুরাগীরা।

উল্লেখ্য, অস্কার মঞ্চে উঠে পুরস্কার গ্রহণ করলেও নিজের বক্তব্য রাখতে পারেননি গুনীত। তথ্যচিত্রের পরিচালক কার্তিকি গনসালভেস বক্তব্য রাখলেও তাঁর পরে গুনীতকে আর কিছু বলার সুযোগ দেননি অস্কার কর্তৃপক্ষ। শুধু অস্কারের স্মারক নিয়েই মঞ্চ ছাড়েন গুনীত। ‘হতাশ’ গুনীত পরে বলেন, ‘‘আমি আমার বক্তব্য রাখার সুযোগই পাইনি। আমি শুধু এইটুকুই বলতে চেয়েছিলাম যে, ভারতীয় প্রযোজনা হিসাবে এটাই ভারতের প্রথম অস্কার। যেটা আমার মতে বেশ বড় একটা ব্যাপার। এত দূর এসে নিজের কথা বলতে পারব না, এটা হতে পারে না। আমি ফিরে যাব এবং আমি নিজের কথা বলেই ছাড়ব।’’

এমএস

×