ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৩ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

ঢাকা চলচ্চিত্র উৎসবে অনিয়ম, বাংলাদেশকে নিষেধাজ্ঞা ফিপ্রেসির

প্রকাশিত: ২০:০২, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ঢাকা চলচ্চিত্র উৎসবে অনিয়ম, বাংলাদেশকে নিষেধাজ্ঞা ফিপ্রেসির

আহমেদ মুজতবা জামাল ও লায়লা চলচ্চিত্রের পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত

এবারের দ্বাবিংশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ছিল গুণী মানুষের ভিড়ে ছিল মুখর। তবে অনিয়মের কথাও শোনা যাচ্ছে। নিয়ম ভেঙে জুরি বোর্ড গঠন করায় এবং আয়োজকের সিনেমা পুরস্কার পাওয়ায় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

আইএফসিএবিকে (ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ক্রিটিকস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ) তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ করেছে চলচ্চিত্র সমালোচকদের আন্তর্জাতিক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব ফিল্ম ক্রিটিকস (ফিপ্রেসি)।

একটি সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর তদন্ত করে সত্যতা পেয়েছে ফিপ্রেসি। অভ্যন্তরীণ তদন্তে বিধিমালা, আইন ও নিয়মের স্পষ্ট লঙ্ঘন খুঁজে পেয়েছে সংগঠনটি।

তদন্তে উঠে এসেছে, ফিপ্রেসির বিধি ভঙ্গ করা হয়েছে। তাই, এ ধরনের কাজ ভবিষ্যতে হবে না মর্মে বাংলাদেশ বিভাগ এবং উৎসব কর্তৃপক্ষকে লিখিত অঙ্গীকারনামা দিতে বলেছে ফ্রিপেসি। এ ছাড়া আগামী তিন মাস ফিপ্রেসির হয়ে যেকোনো ধরনের বিচারিক কার্যক্রমে ফিপ্রেসি বাংলাদেশ অংশকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের ২২তম আসর হয়ে গেল গত ২০ থেকে ২৮ জানুয়ারি। এবারের আসরে স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা বিভাগে ফিপ্রেসি পুরস্কার জিতেছে ‘লায়লা’। এ সিনেমার নির্মাতা বৈশাখী সমাদ্দার ঢাকা চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজক সংস্থা রেইনবো ফিল্ম সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক। পাশাপাশি ঢাকা চলচ্চিত্র উৎসব আয়োজক কমিটিরও নির্বাহী সদস্য তিনি।

জুরি কমিটি গঠনেও ফিপ্রেসির বিধিমালার ১০ নম্বর ধারা লঙ্ঘন করা হয়েছে। বিধিতে স্পষ্ট বলা আছে, ‘সংশ্লিষ্ট উৎসবের সঙ্গে যুক্ত কেউ জুরি কমিটিতে থাকতে পারবেন না।’ অথচ বাংলাদেশ প্যানোরামা বিভাগের তিনজন জুরি সদস্যের একজন ছিলেন মফিদুল হক, যিনি এবারের ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের একজন নির্বাহী সদস্য ও আয়োজক প্রতিষ্ঠান রেইনবো ফিল্ম সোসাইটির উপদেষ্টা।

ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হয়েছিল গত ২০ জানুয়ারি থেকে। চলেছে ৯ দিনব্যাপী। উৎসবে বিনামূল্যে দেখা গেছে সব সিনেমা।

 

এস

×