ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

ওজন কমিয়ে সবাইকে তাক লাগালেন রুনা খান

প্রকাশিত: ২১:৪২, ১৬ নভেম্বর ২০২২

ওজন কমিয়ে সবাইকে তাক লাগালেন রুনা খান

রুনা খান

জনপ্রিয় অভিনেত্রী রুনা খান। অভিনয় দিয়ে বরাবরই ভক্তদের মাতিয়ে রাখেন এই তারকা। রুনা এবার আলোচনায় নিজের শরীরের ওজন কমিয়ে। ওজন বেড়ে এক সময় ১০৫ কেজিকে ঠেকেন রুনা। সেখান থেকে ৩৯ কেজি কমিয়ে তিনি এখন এসেছেন ৬৬ কেজিতে। রুনার এভাবে ওজন কমানোর বিষয়টিকে ভালোভাবেই নিয়েছেন তার ভক্ত-শুভাকাঙক্ষীরা।

রুনা জানান, এক যুগ আগে তার ওজন ছিল ৫৬ কেজি। ২০০৯ সালে তিনি বিয়ের করেন। পরের বছরই সন্তান রাজেশ্বরী পৃথিবীতে আসে। একসময় রুনার ওজন দাঁড়ায় ৯৫ কেজি। সন্তান জন্মের এক বছর পর থেকে ওজন কমানোর মিশনে নামেন রুনা। কিন্তু কোনোভাবেই পারছিলেন না, বরং একপর্যায়ে ওজন আরও বেড়ে হয় ১০৫ কেজিকে গিয়ে ঠেকেন।

এরপর ওজন কমাতে ধানমন্ডির একাধিক জিম, প্রশিক্ষকের শরণাপন্ন হন এই অভিনেত্রী। শুরু করেন সাঁতার। ভর্তি হন ইয়োগা ও অ্যারোবিকস ক্লাসেও। কিন্তু কোনোভাবেই তিনি সফল হচ্ছিলেন না। এ নিয়ে মানসিকভাবেও ভেঙে পড়েন অভিনেত্রী। সেই রুনার ওজন এখন ৬৬ কেজি। সম্প্রতি নিজের নতুন লুকের কিছু ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করেছেন এই তারকা। যা দেখে রীতিমতো চমকে যান সবাই।

হঠাৎ এভাবে রুনাকে বদলে যেতে দেখলেও নিজের এই পরিবর্তনটা ১০ বছর ধরে হয়েছে বলে জানান তিনি। ওজন কমানোটা অভিনেত্রীর জন্য মোটেই সহজ ছিল না। এজন্য তাকে অনেক ত্যাগ এবং কষ্টও করতে হয়েছে।

রুনা জানান, প্রতিদিন সকালে তিনি দুটি ডিম খেতেন। এরপর যে কোনো ফল। তারপর ব্ল্যাক কফি খেয়ে এক ঘণ্টা হাঁটতেন। দুপুরে এক কাপ ভাত, সঙ্গে এক বাটি ভরা সবজি, বড় এক পিস মাংস অথবা মাছ। বিকেলে মুঠো পরিমাণ বাদাম, ব্ল্যাক কফি ও এক ঘন্টা ইয়োগা। রাতে বড় এক বাটি সবজি, এক পিস মাছ অথবা মুরগি, এক গ্লাস দুধ খেতেন। আর কাজগুলো নিয়মিত করেই সাফল্য পেয়েছেন তিনি।

এমএস

monarchmart
monarchmart