ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০

২৪ দিনে এসেছে ১৬৪ কোটি ৬১ লাখ ডলার

ফেব্রুয়ারিতে ২ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স আসার সম্ভাবনা

​​​​​​​অর্থনৈতিক রিপোর্টার

প্রকাশিত: ২২:৩১, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ফেব্রুয়ারিতে ২ বিলিয়ন ডলার  রেমিটেন্স আসার সম্ভাবনা

.

নতুন রেকর্ডের পথে ফেব্রুয়ারি মাসে আসা রেমিটেন্সপ্রবাহচলতি মাসের প্রথম ২৪ দিনে এসেছে ১৬৪ কোটি ৬১ লাখ ডলার, যা দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফেব্রুয়ারি মাসে দুই বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্সের স্বপ্ন দেখাচ্ছেএমন স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রবাসীদের সামাজিক মর্যাদা বাড়ানোর পরামর্শ অর্থনীতিবিদেরচলতি অর্থবছর প্রথমবারের মতো দুই বিলিয়নের বেশি রেমিটেন্স এসেছে ২০২৪ সালের প্রথম মাস জানুয়ারিতেওই মাসে রেমিটেন্স আসে ২১০ দশমিক ১০ কোটি ডলারগত জুনের পর যা সর্বোচ্চ২০২৩ সালের জুনে এসেছিল ২১৯ দশমিক ৯১ কোটি ডলারকেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য বলছে, চলতি মাসের প্রথম ২৪ দিনে ব্যাংকিং চ্যানেলে ১৬৪ কোটি ৬১ লাখ ডলার এসেছেদৈনিক গড়ে এসেছে ৭ কোটি ১৫ লাখ ডলার করেঅথচ গত মাসে দৈনিক গড়ে দেশে রেমিটেন্স এসেছে ৬ কোটি ৭৮ লাখ ডলার করেগড় হিসাবে ফেব্রুয়ারির মাসিক প্রবাসী আয়ের যোগফল দাঁড়ায় ২০৭ কোটি ৫৫ লাখ ডলারচলতি মাসে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ১৭ কোটি ৫৫ লাখ ডলার, বিশেষায়িত একটি ব্যাংকের মাধ্যমে ৬ কোটি ৩০ লাখ মার্কিন ডলার, বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ১৪০ কোটি ৪০ লাখ ডলার এবং বিদেশী ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৩৫ লাখ মার্কিন ডলার২০২৩ সালের জানুয়ারিতে রেমিটেন্স এসেছিল ১৯৫ কোটি ৮৮ লাখ ডলার, ফেব্রুয়ারিতে ১৫৬ কোটি ডলার, মার্চে ২০২ কোটি, এপ্রিলে ১৬৮ কোটি, মে মাসে ১৬৯ কোটি, জুনে  ২২০ কোটি, জুলাইয়ে ১৯৭ কোটি, আগস্টে ১৫৯ কোটি ৯৪ লাখ, সেপ্টেম্বর মাসে ১৩৩ কোটি, অক্টোবরে ১৯৭ কোটি, নভেম্বরে ১৯৩ কোটি ডলার রেমিটেন্স এসেছিলএ ছাড়া গত বছরের ডিসেম্বর মাসে প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন ১৯৯ কোটি ডলারের রেমিটোন্স

২০২২-২৩ অর্থবছরে মোট রেমিটেন্স এসেছিল ২ হাজার ১৬১ কোটি ৭ লাখ মার্কিন ডলার২০২১-২২ অর্থবছরে মোট রেমিটেন্স এসেছিল ২ হাজার ১০৩ কোটি ১৭ লাখ মার্কিন ডলার২০২০-২১ অর্থবছরে রেমিটেন্স এসেছিল ২ হাজার ৪৭৭ কোটি ৭৭ লাখ মার্কিন ডলারযা ছিল সর্বোচ্চ পরিমাণ রেমিটেন্সচলতি মাসের শুরুতে অর্থা গত ১ ফেব্রুয়ারি দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ছিল ২ হাজার ৫০৯ কোটি ডলার২০ ফেব্রুয়ারি এটি বেড়ে দাঁড়ায় ২ হাজার ৫৩২ কোটি ডলারেতবে আন্তর্জাতিক নিয়মে আইএমএফের হিসাব পদ্ধতি বিপিএম ৬ অনুযায়ী, ২০ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রকৃত রিজার্ভ দাঁড়ায় ২ হাজার ২০ কোটি ডলারেযা মাসের শুরুতে ছিল ১ হাজার ৯৯৪ কোটি ডলারঅর্থনীতিবিদরা বলছেন, রেমিটেন্স যোদ্ধাকে সামাজিক মর্যাদা বাড়ালে, তা প্রবাসী আয় বৃদ্ধির প্রভাবক হিসেবে কাজ করবেএ প্রসঙ্গে অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক এম আবু ইউসুফ বলেন, ‘আমাদের যে পরিমাণ রেমিটেন্স আসার কথা, সেই পরিমাণ রেমিটেন্স বৈধ চ্যানেলে আসছে নাযারা প্রবাসী, তাদের যদি আমরা একটি রেমিটেন্স কার্ড দিই, তাহলে তারা সম্মানবোধ করবেতারা সেই কার্ড যদি বিমানবন্দরে দেখান, তাহলে বিশেষ সুযোগ-সুবিধা পাবেন

অথবা তাদের সন্তানদের ক্ষেত্রে বা স্বাস্থ্যক্ষেত্রে তারা কার্ডের মাধ্যমে বিশেষ সুবিধা পাবেনসেটি যদি দেওয়া যায়, তাহলেও কাজে আসবেসম্প্রতি নার্স নিয়োগের সুযোগ দিয়ে দক্ষ কর্মী পাঠানোর যে পথ উন্মুক্ত করেছে সৌদি; সেই পথে ইউরোপে বাজার সম্প্রসারণের পরামর্শ দিচ্ছে অভিবাসন বিষয়ক গবেষণা সংস্থা রিফিউজি অ্যান্ড মাইগ্রেটরি মুভমেন্টস রিসার্চ ইউনিট (রামরু), যা দীর্ঘ মেয়াদে প্রবাসী আয়ের প্রবাহকে শক্তিশালী করবে বলে মনে করে সংস্থাটি

এ বিষয়ে রামরুর প্রোগ্রাম পরিচালক মেরিনা সুলতানা বলেন, ‘ইউরোপে নার্সিংয়ের প্রচুর সুযোগ রয়েছেতাহলে আমাদের যদি যে পরিমাণ নার্স তৈরি হয়; সেখানে যদি এই মেকানিজমটি ডেভেলপ হয়; যদি একটি সহযোগিতাপূর্ণ কার্যক্রমের মাধ্যমে নার্সিংয়ের জায়গাগুলোয় ফোকাস করা যায়, তাহলে কিন্তু অবশ্যই কাজের জায়গা, পরিধি ও এর সুবিধা অনেকাংশে বাড়বে

 

 

 

×