ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১

আবারোও বাড়লো স্বর্ণের দাম

প্রকাশিত: ১৮:২৭, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩

আবারোও বাড়লো স্বর্ণের দাম

স্বর্ণ

আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম বাড়ছেই। মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) নিরাপদ আশ্রয় ধাতুটির বৈশ্বিক মূল্য আরেক দফা বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ২ সপ্তাহেরও বেশি সময়ের মধ্যে যা সর্বোচ্চ। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাত দিয়ে সিএনবিসির এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে। 

এতে বলা হয়, গত নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে বার্ষিক মূল্যস্ফীতির হার ৩ শতাংশের নিচে নেমে এসেছে। ফলে ২০২৪ সালের মার্চে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের (ফেড) সুদের হার হ্রাসের সম্ভাবনা জোরালো হয়েছে। সঙ্গত কারণে প্রধান আন্তর্জাতিক মুদ্রা ডলার দর হারিয়েছে। সেই সঙ্গে মার্কিন বন্ড ইল্ড নিম্নমুখী হয়েছে। পরিপ্রেক্ষিতে বুলিয়ন বাজার আরও চাঙা হয়েছে।  

আলোচ্য কার্যদিবসে স্পট মার্কেটে বৈশ্বিক বেঞ্চমার্ক স্বর্ণের দাম ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ। প্রতি আউন্সের দর স্থির হয়েছে ২০৬৩ ডলার ৭৮ সেন্টে। গত ২ সপ্তাহের মধ্যে যা প্রায় সবচেয়ে বেশি। একই কর্মদিবসে ফিউচার মার্কেটে ইউএস বেঞ্চমার্ক স্বর্ণের সরবরাহ মূল্য ঊর্ধ্বগামী হয়েছে শূন্য দশমিক ৩ শতাংশ। আউন্সপ্রতি দাম নিষ্পত্তি হয়েছে ২০৭৪ ডলার ৯০ সেন্টে।

বিশ্বখ্যাত আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইজি মার্কেটের কৌশলবিদ ইয়েপ জুন রঙ বলেন, বিশ্বের বৃহত্তম অর্থনীতি যুক্তরাষ্ট্রে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে আসছে। ফলে ফেডের সুদের হার কমানোর প্রত্যাশা জেগেছে। তাতে স্বর্ণের দর বাড়ছে। শিগগিরই গুরুত্বপূর্ণ ধাতুটির মূল্য ২০৮০ ডলারে পৌঁছতে পারে।
 
মূল্যস্ফীতি ২ শতাংশে নামিয়ে আনতে চায় ফেড। ইতোমধ্যে যা ৩ শতাংশের নিচে নেমে এসেছে। ফলে আগামী মার্চেই সুদের হার কমাতে পারে ফেড। সেই প্রত্যাশায় ডলারের অবমূল্যায়ন ঘটেছে। স্বাভাবিকভাবেই স্বর্ণের দর বেড়েছে। 

উল্লেখ্য, নিম্ন সুদের হার নন-ইল্ডিং বুলিয়ন কাছে রাখার খরচ কমিয়ে দেয়। ফলে স্বর্ণের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আকর্ষণ বাড়ে।

 

এস

সম্পর্কিত বিষয়:

×