ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

বেশি বয়সে বিয়ে করে সিলেটের ছেলে-মেয়েরা, চাঞ্চল্যকর তথ্য 

প্রকাশিত: ২২:১৭, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩

বেশি বয়সে বিয়ে করে সিলেটের ছেলে-মেয়েরা, চাঞ্চল্যকর তথ্য 

বিয়ের ফাইল ছবি।

বাংলাদেশের অনেক এলাকাতেই কম বয়সে বিয়ে হচ্ছে। এমনকি নাবালক অবস্থাতেও অনেকের বিয়ে হচ্ছে বলে অভিযোগ। তবে সেই জায়গায় ব্যতিক্রম সিলেট। বাংলাদেশের মধ্যে সব থেকে দেরিতে বিয়ে করে সিলেটের ছেলে মেয়েরা।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) জনশুমারিতে উঠে এসেছে বিয়ে সংক্রান্ত নানা তথ্য। তাতে বলা হয়েছে জাতীয় পর্যায়ে ছেলেদের বিয়ের গড় বয়স ২৫ বছর এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে ১৯ বছর। কিন্তু একটু বেশি বয়সে বিয়ে করেন সিলেটের ছেলে-মেয়েরা। সিলেটে ছেলেদের বিয়ের গড় বয়স ২৭ বছর আর মেয়েদের ক্ষেত্রে তা ২১ বছর ৪ মাস। গত ২৯ নভেম্বর জনশুমারির রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। 

আইন অনুযায়ী, সরকারিভাবে মেয়েদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স ১৮ বছর। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে তার থেকে কম বয়সে বিয়ে হচ্ছে। যদিও বিবিএসের ওই রিপোর্ট অনুসারে, জাতীয়ভাবেও দেরিতে বিয়ে করার প্রবণতা বাড়ছে। বর্তমানে জাতীয় পর্যায়ে পুরুষের বিয়ের গড় বয়স ২৫ বছর ৩ মাস আর মেয়েদের ক্ষেত্রে ১৯ বছর ৩ মাস। ২০২১ সালের বিবিএসের এক সমীক্ষায় বলা হয়েছিল, পুরুষের বিয়ের গড় বয়স ২৪ বছর ৪ মাস আর মেয়েদের ক্ষেত্রে তা ১৮ বছর ৭ মাস।

সিলেট ছাড়া বাংলাদেশের অন্য সাতটি বিভাগে মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৮ থেকে ১৯ বছর। সিলেটে মেয়েদের বিয়ের বয়স ২১ বছরের বেশি। সব থেকে তাড়াতাড়ি বিয়ে হয় রাজশাহী বিভাগের মেয়েদের। 

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ ফারুকউদ্দিন বলেন, 'সিলেট অঞ্চলের ছেলেমেয়েরা আগে অর্থনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত হতে চান। বিয়ের ক্ষেত্রে মেয়ের পরিবার দেখে, ছেলে কতটা প্রতিষ্ঠিত। তাছাড়া এই অঞ্চলের মানুষ বেশির ভাগ বিদেশমুখী। তাই বিদেশে প্রতিষ্ঠিত হয়ে দেশে এসে বিয়ে করতে তাদের সময় লাগে বেশি।'

সিলেটের বাসিন্দারা জানান, সিলেটের মানুষ বেশিরভাগ একান্নবর্তী পরিবারে বসবাস করে। আগে বোনদের বিয়ে এবং পরিবারকে দেখা হয়। তারপরেই তারা বিয়ে করেন। 

এম হাসান

×