ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

জাতীয়

‘আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশে ঔপনিবেশিক শাসন চালু করেছে’

প্রকাশিত: ০০:১২, ২২ মে ২০২২

‘আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশে ঔপনিবেশিক শাসন চালু করেছে’

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশে ঔপনিবেশিক শাসন ব্যবস্থা চালু করেছে। বর্তমানে দেশে গণতন্ত্রের ছিটেফোঁটাও নেই। সকল ক্ষেত্রে প্রশাসক নিয়োগ দেয়া হয়েছে, রাজনীতিবিদদের কোন কর্তৃত্ব নেই। তাই দেশের জনগণের কাছে কারো জবাবদিহিতা নেই। কর্তৃত্ববাদী সরকারের সামনে প্রশাসন বা সংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলো অসহায় হয়ে পড়ে। তাই কর্তৃত্ববাদী সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে আশঙ্কা আছে। শনিবার দুপুরে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আলোকিত মানুষ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নাজমিন সুলতানা তুলির নেতৃত্বে একদল নারী উদ্যোক্তা জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদেরের হাতে ফুল দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। এ সময় তাদের স্বাগত জানিয়ে দেয়া বক্তৃতায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের একথা বলেন। গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, ইতোমধ্যেই সরকার প্রধান ঘোষণা করেছেন আগামী জাতীয় নির্বাচন হবে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন ইভিএমে। সব আসনে ইভিএমে ভোটগ্রহণ না করলেও, যেসব আসনে সরকার দলীয় প্রার্থীরা প্রকাশ্যে প্রভাব বিস্তার করতে পারবে না সেখানে হয়তো ইভিএমে ভোটগ্রহণ চলবে। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি প্রহসনের নির্বাচন চায় না। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে রাজনৈতিক দলকে আলোচনার জন্য ডাকা হলে আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে সংলাপে অংশ নেব। প্রধান অতিথি হিসেবে দেয়া বক্তৃতায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশে ঔপনিবেশিক শাসন ব্যবস্থা চালু করেছে। তিনি বলেন, ঔপনিবেশিক আমলে মানুষকে শোষণ করতে প্রশাসক নিয়োগ দেয়া হতো। প্রশাসকদের জবাবদিহিতা থাকত শুধু সরকারের কাছে, কারণ সাধারণ মানুষের কাছে প্রশাসকদের কোন জবাবদিহিতা থাকে না। বর্তমানে দেশে গণতন্ত্রের ছিটেফোঁটাও নেই। সকল ক্ষেত্রে প্রশাসক নিয়োগ দেয়া হয়েছে, রাজনীতিবিদদের কোন কর্তৃত্ব নেই। তাই দেশের জনগণের কাছে কারও জবাবদিহিতা নেই। এ সময় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির আদর্শগত পার্থক্য থাকলেও, চরিত্রগত কোন পার্থক্য নেই। দল দুটি দুর্নীতি, দুঃশাসন, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, দলবাজি করে মানুষের মাঝে বিভেদ তৈরি করেছে। তারা বারবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় গিয়ে দেশের মানুষের মাঝে বৈষম্য সৃষ্টি করেছে। দেশের মানুষের কোন অধিকার নেই, দেশের মানুষের নিরাপত্তা নেই।

শীর্ষ সংবাদ:

১৫ লাখ টন আসছে ॥ স্থিতিশীল হবে চালের বাজার
তৃণমূলের কর্মীরাই আওয়ামী লীগের শক্তি ॥ শেখ হাসিনা
২৮ হাজার টিকেটের জন্য লাখ লাখ মানুষের ভিড়
সিলেট বিভাগে ৬৩ লাখ মানুষ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত
সড়ক দুর্ঘটনায় জুনে ৫২৪ জন নিহত
পশুবাহী গাড়িতে চাঁদা দাবির অভিযোগ পেলেই ব্যবস্থা
১২ খালের সংস্কার কাজ সম্পন্ন করেছে সেনাবাহিনী
ভিভিআইপিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন : রাষ্ট্রপতি
হাওড়কে রক্ষা করার জন্য সব করা হবে : পানি সম্পদ উপমন্ত্রী
প্রেসক্লাবে নিজের শরীরে আগুন দিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা
আড়াই লাখ টন চাল আমদানির অনুমতি পাচ্ছে আরও ১২৫ প্রতিষ্ঠান
ঈদ যা্ত্রায় বাড়ি যেতে ডিএমপি’র ১২ নির্দেশনা
টুঙ্গিপাড়া থেকে ২ ঘণ্টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী
ডেসটিনির রফিকুলের আপিল গ্রহণ, ২০০ কোটি টাকা দণ্ড স্থগিত
সদরঘাটের চিরচেনা সেই ব্যস্ততা আর নেই
করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ জনের মৃত্যু
এদেশের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠার প্রধান অন্তরায় বিএনপি
মেয়াদোত্তীর্ণ রেপিড টেস্ট ডিভাইস দিয়ে কোভিড-১৯ পরীক্ষা
গ্যাস সংকটে কমেছে বিদ্যুৎ উৎপাদন, বেড়েছে লোডশেডিং
ঢাবির ক ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা ৯০ শতাংশই ফেল
৩ দিনের মধ্যে সারাদেশে বাড়বে বৃষ্টি
সৌদি আরবে আরও এক বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু
বিশ্বরেকর্ড গড়লেন সাকিব