ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ আগস্ট ২০২২, ২ ভাদ্র ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

এসএসসি পরীক্ষা আগস্টে

ঈদের পরে নতুন রুটিন

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১৮:০৯, ৩ জুলাই ২০২২

ঈদের পরে নতুন রুটিন

শিক্ষা মন্ত্রণালয়

দেশজুড়ে বন্যা পরিস্থিতির কারণে স্থগিত হওয়া এসএসসি সমমানের পরীক্ষা আগামী আগস্ট মাসে আয়োজনের সিদ্ধান্ত আন্ত:শিক্ষা বোর্ড বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির সাপেক্ষে আসন্ন কোরবানীর ঈদের পরে নতুন করে রুটিন ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন আন্ত:শিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার

রবিবার সিলেটসহ বন্যাকবলিত এলাকার শিক্ষাবোর্ডগুলোর সঙ্গে বৈঠক শেষে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে জানিয়ে অধ্যাপক তপন কুমার সরকার জনকণ্ঠকে বলেন, সিলেট অঞ্চলের বর্তমান পরিস্থিতিতে সেখানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পরীক্ষা আয়োজন সম্ভব নয়

তারা বলেছে কেন্দ্রগুলো মেরামত এবং পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত করতে জুলাই মাসটা প্রয়োজন তাই কবে নাগাদ পরীক্ষা হবে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট করে এখনই কিছু বলতে না পারলেও ঈদের পর এসএসসি সমমান পরীক্ষার নতুন রুটিন প্রকাশ করা হবে তবে তখনও সবার সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে তিনি জানান, এসএসসি পেছানোর কারণে পিছিয়ে যাবে এইচএসসি পরীক্ষাও

গত ১৯ জুন চলতি বছরের এসএসসি সমমানের পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা ছিলো কিন্তু দেশের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার কারণে ১৭ জুন স্থগিত করা হয় পরীক্ষা

এবারের পরীক্ষার সময় ঘণ্টা থেকে কমিয়ে ঘণ্টা নির্ধারণ করা হয়েছে এর মধ্যে প্রশ্নপত্রের এমসিকিউ অংশের জন্য ২০ মিনিট এবং সৃজনশীল অংশের জন্য ঘণ্টা ৪০ মিনিট নির্ধারিত থাকবে

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, বছর ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ শিক্ষার্থীর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা এর মধ্যে ৯টি সাধারণ বোর্ডে ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন, দাখিলে লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন কারিগরিতে লাখ ৬৩ হাজার ৬৬২ জন গত বছর পরীক্ষার্থী ছিল ২২ লাখ ৪৩ হাজার ২৫৪ জন বছরের এসএসসি সমমানের পরীক্ষায় গত বছরের চেয়ে প্রায় সোয়া দুই লাখ পরীক্ষার্থী কমেছে

শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, চলতি বছর ঢাকা বোর্ডের আওতায় মোট পরীক্ষার্থী তিন লাখ ৯৪ হাজার ৯৯৮ জন এছাড়া রাজশাহীতে এক লাখ ৯৬ হাজার ৬০০ জন, কুমিল্লায় এক লাখ ৮৮ হাজার ৭১৪ জন, যশোরে এক লাখ ৭০ হাজর ৩৭৭ জন, চট্টগ্রামে এক লাখ ৪৯ ৭১০ জন, বরিশালে ৯৫ হাজার ৯৭৬ জন, সিলেটে এক লাখ ১৬ হাজার ৪২৭ জন, দিনাজপুরে এক লাখ ৭৩ হাজার ৯৬১ জন এবং ময়মনসিংহে এক লাখ ১২ হাজার ৯৪৮ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে সব মিলে নয় বোর্ডের অধীনে মোট ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন অংশগ্রহণ করবে

মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে নয় হাজার ৯৩টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী এই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে মোট ৭১৫টি কেন্দ্রে দুই লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন অংশ নেবে আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে মোট দুই হাজার ৮১৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে দেশের ৮২৮টি পরীক্ষাকেন্দ্রে মোট এক লাখ ৫৩ হাজার ৬৬২ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে

এছাড়াও দেশের বাইরে আটটি দেশে এই পরীক্ষা আয়োজন করা হবে এর মধ্যে জেদ্দায় ৭০ জন, রিয়াদে ৪৮ জন, ত্রিপলিতে চারজন, দোহাতে ৬৮ জন, আবুধাবিতে ৫৯ জন, দুবাইয়ে ৩১ জন, বাহরাইনে ৫৩ জন এবং ওমানে ৩৪ জনসহ মোট ৩৬৭ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে

প্রতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে এসএসসি এপ্রিলে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হলেও বছর করোনার কারণে দুটি গুরুত্বপূর্ণ পাবলিক পরীক্ষা এখনও নেয়া সম্ভব হয়নি করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে দ্বিতীয় দফায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সশরীরে ক্লাস বন্ধ করা হয় চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি দফায় শিক্ষাঙ্গনে সশরীরে ক্লাস বন্ধ থাকে এক মাস পরে ২২ ফেব্রুয়ারি ষষ্ঠ থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত শিক্ষাঙ্গনগুলো আবার প্রাণচঞ্চল হয়ে ওঠে মার্চ শুরু হয় প্রাথমিকে সশরীরে ক্লাস টানা দুই বছর বন্ধের পর ১৫ মার্চ প্রাক-প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের সশরীরে ক্লাস শুরু হয় এর আগে ২০২০ সালের মার্চ দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর দুই দফায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয় প্রায় দেড় বছর বন্ধ থাকার পর গত বছরের ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করে শিক্ষাঙ্গনের দুয়ার

 

শীর্ষ সংবাদ:

১৫ আগষ্ট কোথায় ছিল মানবাধিকার? প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর
যাত্রাবাড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা
বরগুনায় বাড়াবাড়ি হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল
লঞ্চের ভাড়া বাড়লো ৩০ শতাংশ
অপেক্ষার প্রহর শেষে সাকিবের দেখা পেল ক্ষুদে ভক্ত
গার্ডার দুর্ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
‘বিআরটি প্রকল্পের ন্যূনতম নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেই, কাজ বন্ধ’
সেফটির বিষয়টি অনেকবার লঙ্ঘন করেছে চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান
আজও বিশ্ব বাজারে কমলো তেলের দাম
ওমিক্রনের টিকা ৬ মাসের মধ্যে বাজারে আসছে!
গার্ডার পড়ে পাঁচজন নিহতের ঘটনায় মামলা
গার্ডার দুর্ঘটনা: রুবেলের লাশ নিতে স্ত্রী দাবিদার ৫ জন
একটি ডিমের দাম ১৪ টাকা!