বুধবার ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দুই দিনের মাঝারি শৈত্য প্রবাহে নীলফামারী জনজীবন স্থবির

দুই দিনের মাঝারি শৈত্য প্রবাহে নীলফামারী জনজীবন স্থবির

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ গত দুই দিন ধরে তিস্তা নদী বিধৌত নীলফামারী জুড়ে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। কনকনে শীতে কাবু হয়ে পড়েছে মানুষ। জেলার শীতজনিত রোগের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। ২১ লাখ ৬৯ হাজার ১৫৪ জনসংখ্যা অধুষ্যিত নীলফামারী জেলার মানুষজন মাঘের শীতে হিমসিম খাচ্ছে। তারপরেও কায়িত শ্রমিকরা এইঠান্ডায় ফসলের মাঠে নেমে কাজ করতে বাধ্য হচ্ছে।

আজ শনিবার (২৯ জানুয়ারি) নীলফামারীর ডিমলা আবহাওয়া অফিস সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়াও জেলার সৈয়দপুর বিমানবন্দর আবহাওয়া অফিস সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে ৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

ডিমলা কৃষি ও সিনপটিক আবহাওয়া পর্যবেক্ষন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার জানান, গতকাল শুক্রবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২২ ডিগ্রি সেলসেলিয়াস। সেখানে আজ সেটি নেমেছে ১৯ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। সর্বনিম্ন তাপমাত্র গতকালের চেয়ে দশমিক ৪ ডিগ্রি বাড়লেও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কমে আসায় গতকালের চেয়ে আজ কনকনে ঠান্ডা বেশী অনুভুত হচ্ছে। সৈয়দপুর বিমানবন্দর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ লোকমান হাকিম জানালেন সৈয়দপুরে আজ সর্বোচ্চ তাপমাত্র ২০.৬ ডিগ্রি রের্কড করা হয়। যা গতকাল শুক্রবার ছিল ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাপমাত্রা কমেছে ৩দশমিক ৪ ডিগ্রি। অপর দিকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা গতকালের চেয়ে আজ দশমিক ২ ডিগ্রি বেড়েছে। এতে আগামী ৩-৪ দিন মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাবে। বাতাস বেড়ে যাওয়ায় তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে।

এদিকে মাঘের মাঝামাঝি সময়ে নামছে তাপমাত্রার পারদ। এ কারণে বাড়ছে শীতের দাপট। হাঁড় কাপানো শীত এই জনপদের মানুষকে কাঁবু করে ফেলেছে। সকালে ঘনকুয়াশা ও শৈত্যপ্রবাহ বেড়ে যাওয়ায় কনকনে শীতে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। প্রান্তিক জনপদের শীতার্ত মানুষ খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে।

আজ সকাল ১১টার পর আকাশে সূর্য দেখা মেলে। তবে রোদের তেজ না থাকায় হিমেল হাওয়ায় শীতের তীব্রতা বেড়েছে। এতে স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন।

এদিকে আজ সকালে পঞ্চগড়ের তেতুঁলিয়া এবং কুড়িগ্রামের রাজারহাটে দেশের সর্বনিম্ন ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবাহওয়া অফিস।

শীর্ষ সংবাদ:
কক্সবাজারকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলা অপরিহার্য ॥ প্রধানমন্ত্রী         বিদ্যুতের দাম ৫৮ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ         ‘নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার জন্য দায়ী আন্তর্জাতিক বাজার’         দেশে আরও ২২ জনের করোনা শনাক্ত         দেশে খাদ্যের কোনো ঘাটতি নেই ॥ খাদ্যমন্ত্রী         ১৯৮২ সালের পর যুক্তরাজ্যে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতি         রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ॥ চিকিৎসাধীন তিন জনের মৃত্যু         রায়পুরে মাদ্রাসা ছাত্রী হত্যায় ৪ জনের যাবজ্জীবন         বাতাসে জলীয়বাষ্প বেশি থাকায় ভ্যাপসা গরম         বিদেশী মনোপলি ব্যবসা বন্ধ করে দেশীয় মালিকানাধীন তামাক শিল্প রক্ষা করুন         ১ জুন ফের শুরু বাংলাদেশ-ভারত ট্রেন চলাচল         হাইকোর্টে সম্রাটের জামিন বাতিল         পরীমনির মামলায় নাসিরসহ ৩ জনের বিচার শুরু         আজ আন্তর্জাতিক জাদুঘর দিবস