রবিবার ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সন্ধ্যার পর ভাসানচর থেকে নৌযান চলাচল বন্ধ

সন্ধ্যার পর ভাসানচর থেকে নৌযান চলাচল বন্ধ
  • জাতীয় কমিটির সভা শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, এখন থেকে সন্ধ্যার পর ভাসানচর থেকে নোয়াখালী কিংবা হাতিয়ায় যাতায়াত বন্ধ থাকবে। এ সময় ওই পথে মূল ভূখÐের কোন নৌযান চলাচল করতে পারবে না। এছাড়া ডিসেম্বর থেকে ভাসানচরে এক লাখ রোহিঙ্গা নেয়া জোরদার করা হবে। পাশাপাশি মাদক চোরাচালান প্রতিরোধে মিয়ানমার সীমান্তে টহল আরও বাড়ানো হবে। নাফ নদীতে আইনশৃঙ্খলা বহিনীর তদারকি আরও জোরদার করা হবে। প্রয়োজনে উখিয়া ও টেকনাফে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য বাড়ানোর চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বলপ্রয়োগে বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিকদের সমন্বয়, ব্যবস্থাপনা ও আইনশৃঙ্খলা সম্পর্কিত জাতীয় কমিটির সভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ এনামুর রহমান, মুখ্যসচিব আহমদ কায়কাউসসহ কমিটির অন্য সদস্যরা।

বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান সাংবাদিকদের বলেন, কক্সবাজার ও ভাসানচরে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোর ভেতরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করা ও সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে এবং নিরাপত্তা পরিস্থিতি এসব এলাকায় বাড়ানোরও ব্যবস্থা করা হবে। নিরাপত্তা বাড়াতে এপিবিএন কোস্টগার্ডসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জনবল ও লজিস্টিক সাপোর্ট দেয়া হবে।

ক্যাম্পের ভেতরে পুলিশ, এপিবিএন, আনসার ও র‌্যাবের যৌথ টহল আরও বাড়ানো হবে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, ক্যাম্পের বাইরে সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব রয়েছে। তারা সবসময় সতর্ক অবস্থায় রয়েছে ও থাকবে। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মাদক প্রবেশ, মাদক ব্যবস্থা ও বিক্রয়রোধে মনিটরিং বাড়ানো হবে। মাদকের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক অভিযান চালানো হবে।

নিরাপত্তা নিশ্চিতে ক্যাম্পগুলোতে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ শেষ পর্যায়ে রয়েছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, বেশি কিছু ওয়াচ টাওয়ার হয়েছে, আরও হবে। অভ্যন্তরীণ রাস্তার কাজও শুরু হবে কিছুদিনের মধ্যেই। কোন কোন জায়গায়ও হয়েছে। সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোর সেটা করছে। সেখানে ফায়ার সার্ভিসের সুবিধাও বাড়ানো হচ্ছে। এছাড়া মাদক চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্তে টহল আরও বাড়ানো হবে। নাফ নদীতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তদারকি আরও জোরদার করা হবে। প্রয়োজনে উখিয়া ও টেকনাফে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য বাড়ানোর চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে আন্তর্জাতিক ফোরামে প্রতিনিয়ত চেষ্টা চলছে। সেটা অব্যাহত থাকবে। দ্বিপক্ষীয় ও বহুপাক্ষিক ব্যবস্থা চলছে। দ্বিপক্ষীয় কথাবার্তা আরও জোরদার করা হবে।

ডিসেম্বরে ভাসানচরে রোহিঙ্গা নেয়া জোরদার হবে ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ডিসেম্বর থেকে ভাসানচরে এক লাখ রোহিঙ্গা নেয়া জোরদার করা হবে বলে জানিয়েছেন। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি ভাসানচরে ডিসেম্বর থেকে স্বল্প সময়ের মধ্যে আমাদের যে টার্গেট একলাখ রোহিঙ্গা নিয়ে যাওয়ার সেটা আমরা জোরদার করব। যাতে ডিসেম্বর থেকে শুরু করে এক লাখ রোহিঙ্গা তারপর আরও অবশিষ্ট অংশ সেখানে নেব। তাদের থাকা, নিরাপত্তা, আসা-যাওয়ার জন্য যা যা লজিস্টিক সাপোর্ট দরকার সেগুলো সেখানে প্রতিষ্ঠিত হবে।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্মহার আপনারা দেখেছেন। লাগামহীনভাবে এদের পরিবারের পরিসর বেড়ে যাচ্ছে। জন্মহার নিয়ন্ত্রণ ও নতুন জন্ম নেয়া রোহিঙ্গাদের তালিকাভুক্ত করার বিষয়টি আলোচনায় আসছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছিলেন মিয়ানমার সীমান্তে এখন থেকে গুলি হবে, আপানার সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। সেই বিষয়টি আজকে সভায় এসেছিল কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সীমান্তে গুলির আমাদের কোন উদ্দেশ্য নেই। কেউ যদি সীমান্তের নিয়ম ভাঙ্গে তখন বিজিবি ব্যবস্থা নেয়। বিপরীত দিক থেকে কেউ যদি গুলি করে, বিজিবিও পাল্টা গুলি করে।

মুহিবুল্লাহ হত্যার সঙ্গে যারা জড়িত প্রায় সবাই গ্রেফতার ॥ রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের অগ্রগতি জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, এত বড় জনগোষ্ঠী থাকলে সহিংসতা থাকতেই পারে। কিন্তু মুহিবুল্লাহর বিষয়টা আমাদের আঘাত করেছে, আহত করেছে। মুহিবুল্লাহ রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য সোচ্চার ছিল।

শীর্ষ সংবাদ:
শাহবাগে প্রতীকী লাশ নিয়ে শিক্ষার্থীদের মিছিল         ৬.২ ওভার পর আবার বৃষ্টিতে থেমে গেছে মিরপুর টেস্ট         ১১ দফা বাস্তবায়নে ব্যঙ্গচিত্র নিয়ে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন         ‘খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে’         লাঞ্চ বিরতির পর প্রথম বল মাঠে গড়ালো         ভোলায় বন্দুকযুদ্ধে দুই জলদস্যু নিহত ॥ অস্ত্র উদ্ধার         নাগাল্যান্ডে বিদ্রোহী ভেবে গ্রামবাসীর ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত ১৪         শুধুমাত্র চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হোন ॥ যুবসমাজকে প্রধানমন্ত্রী         কলাপাড়ায় অগ্নিকাণ্ডে ৪ দোকান পুড়ে ছাই         ‘পঁচাত্তরের পর গণতন্ত্র ষড়যন্ত্রের বেড়াজালে বারবার বলি হয়েছে’         রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিয়ে নিয়ে সংঘর্ষে নিহত-১         পটুয়াখালীর উপকূলে ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে হালকা বৃষ্টিপাত         কক্সবাজারে হোটেল থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার ॥ নারী আটক         শ্যুটিং চলাকালে বাইকের ধাক্কায় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা আহত         বাবার জিম্মায় দুই মেয়ে ॥ হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে মায়ের আপিল         কেনিয়ায় বাস দুর্ঘটনায় ২৩ জন নিহত         ইন্দোনেশিয়ায় আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে ১৩ জনের মৃত্যু         ‘সামাজিক সমতা-ন্যায়বিচারই শান্তি প্রতিষ্ঠার মূল ভিত্তি’         ইউক্রেনের বিষয়ে বাইডেন ও পুতিন ভিডিও বৈঠক মঙ্গলবার         গণতন্ত্রের মানসপুত্র সোহরাওয়ার্দীর ৫৮তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ