রবিবার ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭, ০৭ মার্চ ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পঞ্চগড়ে আদালতের চত্বরেই মারধরের শিকার বিচার প্রার্থীরা

পঞ্চগড়ে আদালতের চত্বরেই মারধরের শিকার বিচার প্রার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার, পঞ্চগড় ॥ পঞ্চগড় চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চত্বরেই মারধরের শিকার হয়েছে এক মামলার বাদী পক্ষের তিন নারী ও এক শিশু। মঙ্গলবার দুপুরে পঞ্চগড় চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন পঞ্চগড় সদর উপজেলার টুনিরহাট বানিয়াপাড়া এলাকার মকছেদুর রহমানের স্ত্রী আজিমা খাতুন (২৮), তার প্রতিবন্ধী মেয়ে মারিয়া শেখ (৫) আজিমার মা সকিনা বেগম (৫০) এবং খালা আরজিনা বেগম (৪৫)। আদালতে তাদের করা এক মামলায় বিবাদী পক্ষের দুই জনের জামিন নামঞ্জুর করে আদালত জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিলে ক্ষুব্ধ হয়ে আদালত চত্বরেই বাদী পক্ষের ওই তিন নারী ও এক শিশুকে মারধর করে আসামী পক্ষের লোকজন।

আদালত চত্বরে আহত অবস্থায় বেশ কিছু সময় পড়ে থাকলেও কেউ তাদের হাসপাতালে নেয়ার উদ্যোগ নেয় নি। পরে আদালত চত্বরে থাকা লোকজনের সহযোগিতায় পুলিশ তাদের উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহতরা নারীরা জানান, গত ৪ ফেব্রুয়ারি বাড়ির গাছের ডালপালা কাটাকে কেন্দ্র করে পঞ্চগড় সদর উপজেলার টুনিরহাট বানিয়াপাড়া এলাকার মকছের রহমান ও প্রতিবেশি আজিরত ইসলামের পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় মকছেদুরের পরিবারের বেশ কয়েকজন আহত হন।

১০ ফেব্রুয়ারি মকছেদুর বাদী হয়ে আজিরতসহ ৮ জনের নামে আদালতে মামলা করেন। ওই মামলায় মঙ্গলবার আদালতে আত্মসমর্পণ করে আসামীরা জামিন আবেদন করলে আদালত আজিরত ও রয়েল নামের দুই আসামীর জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন এবং বাকি আসামীদের জামিন মঞ্জুর করেন। আদালত প্রধান দুই আসামীর জামিন নামঞ্জুর করে তাদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিলে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন আসামী পক্ষের লোকজন। এ সময় আসামী পক্ষের আনোয়ার হোসেন, তার স্ত্রী শ্রুতি বেগম এবং তার বোন রুবিনা খাতুন বিরোধী পক্ষের তিন নারী ও এক শিশুকে মারধর করেন। এক পর্যায়ে আহত হয়ে তারা আদালত চত্বরে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

বেশ কিছু সময় পর আদালতে নিয়োজিত পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এ সময় পুলিশ আসামী পক্ষের রুবিনা খাতুন (৩৩) নামের এক নারীকে আটক করলেও বাকিরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় পঞ্চগড় সদর থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

আহত নারী ও বাদী মকছেদুর রহমানের স্ত্রী আজিমা খাতুন বলেন, আজ মামলার শুনানি থাকায় আমরা আদালতে উপস্থিত ছিলাম। আদালত প্রধান দুই আসামীর জামিন নামঞ্জুর করার পর যখন আমরা ভবন থেকে বের হচ্ছিলাম তখন তাদের পক্ষের আনোয়ার, তার স্ত্রী শ্রুতি ও তার বোন রুবিনা আমাদের টেনে হিচরে আদালত চত্বরে নিয়ে সবার সামনেই আমাদের মারধর করে। এমনকি আমার প্রতিবন্ধী মেয়েটিকেও ছাড়েনি তারা।

আমরা চিৎকার করছিলাম কিন্তু কেউ এগিয়ে আসেনি। পরে পুলিশ আমাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

পঞ্চগড় আদালতের পরিদর্শক মকবুল হোসেন বলেন, ঘটনার সাথে সাথেই আমরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করার ব্যবস্থা করি। একই সাথে এক নারীকে আটক করা হয়েছে। আমরা বিষয়টি পঞ্চগড় সদর থানা পুলিশকে জানিয়েছি এখন তারা আইনগত ব্যবস্থা নিবে।

পঞ্চগড় সদর থানার উপ-পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ওই ঘটনায় এক নারী আটক রয়েছে। এ বিষয়ে থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

শীর্ষ সংবাদ:
এবার স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন ১০ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান         করোনা : গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬০৬         “বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ পৃথিবীর কালজয়ী ভাষণগুলোর অন্যতম”         নারী দিবসে জাতীয় পর্যায়ে সম্মাননা পাচ্ছেন শ্রেষ্ঠ ৫ জয়িতা         বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর ২১ বছর বাজেনি ৭ মার্চের ভাষণ         বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে স্পিকারের শ্রদ্ধা         উপসচিব পদে পদোন্নতি পেলেন ৩৩৭ কর্মকর্তা         বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা         “রাজনৈতিক কূটকৌশলে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে বিএনপি”         নওগাঁয় ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ দিবস পালিত হয়েছে         জিয়ার খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত এখনও চূড়ান্ত হয়নি ॥ মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী         স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করায় বিএনপিকে সাধুবাদ তাপসের         ঐতিহাসিক ৭ মার্চ আজ         জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে সর্বস্তরের শ্রদ্ধা         কার্টুনিস্ট কিশোরের শারীরিক পরীক্ষার প্রতিবেদন আজ         কমনওয়েলথের শীর্ষ তিন মহিলা নেতার অন্যতম শেখ হাসিনা         বিএনপির ৭ মার্চ পালনের ঘোষণা রাজনৈতিক ভন্ডামি ॥ কাদের         যৌতুকমুক্ত সমাজ গড়তে সরকার বলিষ্ঠ পদক্ষেপ নিয়েছে ॥ তথ্যমন্ত্রী         বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ভাষণের মধ্যে অন্যতম ॥ আমু         সূত্রাপুরে হিযবুত তাহরীরের তিন সদস্য গ্রেফতার