বৃহস্পতিবার ১৪ মাঘ ১৪২৭, ২৮ জানুয়ারী ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মামুনুল-ফয়জুলকে ৩ দিনের মধ্যে গ্রেফতার করুন ॥ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ

মামুনুল-ফয়জুলকে ৩ দিনের মধ্যে গ্রেফতার করুন ॥ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ নবীজীর অবমাননা ও বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যবিরোধী মামুনুল হক ও ফয়জুল করীমের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ সাত দফা দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। আগামীকালের (সোমবার) মধ্যে মামুনুল-ফয়জুলকে গ্রেফতার না করলে পরের দিন সারাদেশে একযোগে প্রতিবাদ সমাবেশ করবে বলে ঘোষণা দেয় সংগঠনটি। শনিবার বিকেল সাড়ে তিনটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ থেকে শাহবাগ পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল শেষে শাহবাগ মোড় অবরোধ করে প্রতিবাদ সমাবেশ করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল। এতে আরও বক্তব্য রাখেন সুপ্রীমকোর্টের সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, ভাস্কর শিল্পী রাশা, গৌরব ৭১-এর সাধারণ সম্পাদক এফএম শাহীন, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ঢাবি শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য প্রমুখ। এ সময় বিভিন্ন ইউনিটের প্রায় পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিবাদ সমাবেশে সুপ্রীমকোর্টের সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, ‘মহানবী (সা.)-এর অবমাননা ও বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ বিরোধিতাকারী মামুনুল-ফয়জুল গংদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। এরা ইসলামের শত্রু, মানবতার শত্রু। যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংতে আসবে, আমরা তাদের হাত ভেঙ্গে বুড়িগঙ্গায় ভাসিয়ে দিব। একাত্তরের পরাজিত অপশক্তিকে কঠোর হস্তে দমন করার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছি।’

ভাস্কর শিল্পী রাশা বলেন, সৌদি আরব, ইরান, ইরাক, তুরস্কসহ বিশ্বের মুসলিম দেশে ভাস্কর্য রয়েছে। মৌলবাদীরা ভাস্কর্য ও মূর্তির পার্থক্য নিয়ে জনগণের মাঝে বিভ্রান্তি তৈরি করার চেষ্টা করছে। ইসলামের দৃষ্টিতে ভাস্কর্য বৈধ। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধিতাকারীদের মূল উদ্দেশ্য মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির সরকার পতনের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করা। সময় এসেছে এদের লাগাম টেনে ধরার।

আল মামুন বলেন, সম্প্রতি একটি ইসলামী ধর্মসভায় হেফাজত ইসলামের যুগ্ম-মহাসচিব মামুনুল হক কর্তৃক মহানবী (সা.)কে প্রকাশ্য দিবালোকে অবমাননা করা হয়েছে। মহানবী (সা.) কিভাবে ঠোঁট নাড়াতেন এটা তিনি দেখেছেন এবং হুবহু বলে দিতে পারবেন বলে মন্তব্য করেছেন। ইসলামের দৃষ্টিতে মহানবী (সা.)-এর কোন অবয়ব দেখানো সম্পূর্ণ হারাম। ধর্ম ব্যবসায়ী মামুনুল হক প্রকাশ্য দিবালোকে মহানবী (সা.)-এর অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন করে নবীজীকে অবমাননা করেছেন। নবীজীকে অবমাননা করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

তিনি আরও বলেন, কিছুদিন আগে মৌলবাদী অপশক্তি মামুনুল হক ও ফয়জুল করিম কর্তৃক সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভেঙ্গে বুড়িগঙ্গা নদীতে ফেলে দেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছে। জাতির পিতার ভাস্কর্য অপসারণের দাবি যারা তুলেছে, সেই মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত পদক্ষেপ না নিলে আমরা দেশ ও জাতির ‘সমূহ বিপর্যয়ের’ আশঙ্কা প্রকাশ করছি।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাত দফা দাবিগুলো হলো : মহানবী (সা.)কে অবমাননা ও বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধিতা করার অপরাধে মামুনুল-ফয়জুলকে দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে; দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও জেলা, উপজেলায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করতে হবে; সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার লক্ষ্যে বাংলাদেশে অবিলম্বে ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে হবে এবং পবিত্র মসজিদ-মাদ্রাসাগুলোতে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা বন্ধ করতে হবে; বিভিন্ন ধর্মীয় সভা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ধর্মীয় উস্কানিমূলক গুজব ছড়ানো ও অপপ্রচারকারীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে; ধর্ষণের ন্যায় বলাতকারের অপরাধে অভিযুক্তদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড নিশ্চিত করতে হবে; মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে হবে এবং মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের ওপর যৌন নিপীড়ন বন্ধে মনিটরিং সেল গঠন করে নজরদারি বাড়াতে হবে; সকল মাদ্রাসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত জাতীয় সঙ্গীত বাজানো, জাতীয় পতাকা উত্তোলন, শহীদ মিনার নির্মাণ ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানানো বাধ্যতামূলক করার জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে।

এছাড়া বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্য বাস্তবায়ন পরিষদও শনিবার দোলাইরপাড় চৌরাস্তায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন শেখ হাসিনার সাবেক একান্ত সচিব কৃষিবিদ ড. মোঃ আওলাদ হোসেনসহ অনেকেই। বক্তারা বলেন, রাজাকার আলবদররা স্বাধীনতা ঠেকাতে পারেনি, তেমনি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনও ঠেকাতে পারবে না।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১০০৩৩৭০৯০
আক্রান্ত
৫৩৩৪৪৪
সুস্থ
৭২৩৮৫৬৮৩
সুস্থ
৪৭৭৯৩৫
শীর্ষ সংবাদ:
জয়ের পথে নৌকা         ঐতিহাসিক দিন         সম্মুখসারির করোনা যোদ্ধাদের কথা         উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি আগামী মাসে ॥ অর্থমন্ত্রী         পেনশনের আওতায় আসবেন সবাই         বাণিজ্যে আশার আলো ॥ যুক্তরাষ্ট্রে নতুন সরকার         ভ্যাকসিন নেয়ার পর রুনুসহ সবাই সুস্থ         দুর্নীতি দমনকে আন্দোলন হিসেবে গড়ে তোলার অঙ্গীকার করতে হবে         সড়ক দুর্ঘটনায় বছরে আর্থিক ক্ষতি দেড় হাজার কোটি টাকা         সম্মুখসারির কর্মী হিসেবে ১২ হাজার ভ্যাকসিন প্রয়োজন বেবিচকের         পদ্মা সেতু বাস্তবায়নে সততার জয় হয়েছে         সন্ত্রাসী কিলার আব্বাস ও কাইল্যা পলাশ বন্দী থেকেই বাবা হয়েছে         আজ ও কাল ভাসানচর যাচ্ছে তিন হাজার রোহিঙ্গা         করোনায় দেশে আরও ১৭ জনের মৃত্যু         দেশ উন্নত হওয়ায় ভোটে অনীহা : মো. আলমগীর         চসিক নির্বাচন: আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রেজাউল এগিয়ে         আগামী মাসে উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি : অর্থমন্ত্রী         জেলা জজদের উদ্দেশে বক্তব্য দেবেন প্রধান বিচারপতি-আইনমন্ত্রী         ৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ         করোনা : ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৭, নতুন শনাক্ত ৫২৮