বৃহস্পতিবার ৭ কার্তিক ১৪২৭, ২২ অক্টোবর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নিয়মতান্ত্রিকভাবেই ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে ॥ প্রতিশ্রুতি রিপাবলিকানদের

নিয়মতান্ত্রিকভাবেই ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে ॥ প্রতিশ্রুতি রিপাবলিকানদের

অনলাইন ডেস্ক ॥ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর নিয়মতান্ত্রিক উপায়েই ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রভাবশালী রিপাবলিকান নেতারা।

বৃহস্পতিবার সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশের নেতা মিচ ম্যাককনেল বলেছেন, ৩ নবেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে যেই জিতুক না কেন, আগামী বছরের ২০ জানুয়ারিতে তার অভিষেক শান্তিপূর্ণভাবেই অনুষ্ঠিত হবে।

আর সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহাম বলেছেন, নির্বাচন নিরাপদ ও সুষ্ঠু হবে।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত হলে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রতিশ্রুতি দিতে ডোনাল্ড ট্রাম্প অস্বীকৃতি জানানোর পর তারা এ আশ্বাস দিয়েছেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

ট্রাম্প এর আগে বুধবার নির্বাচনে হেরে গেলেও ফল মেনে নেবেন- এমন প্রতিশ্রুতি দিতে রাজি হননি।

“কী হয়, দেখা যাক,” বলেছিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবারও তিনি ডাকযোগে ভোট নিয়ে নিজের সন্দেহের কথা পুনর্ব্যক্ত করেছেন।

নির্বাচনী কর্মকর্তারা তার এ সন্দেহ উড়িয়ে দিয়েছেন। ডাকযোগে ভোট ‘নিরাপদ’ বলেও ভাষ্য তাদের। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এবার ডাকযোগে অনেকেই ভোট দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রে গণতন্ত্রের মূলভিত্তি হচ্ছে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর। ট্রাম্প তা না করলে, বা নির্বাচনে হেরে যাওয়ার পর ফল মেনে না নিলে দেশটি সাংবিধানিকভাবে বিপদে পড়ে যেতে পারে।

তেমনটা হলে সামরিক বাহিনী ট্রাম্পকে হোয়াইট হাউস থেকে সরিয়ে দিতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন ডেমোক্র্যাট পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন।

সাম্প্রতিক জনমত জরিপগুলোতেও যুক্তরাষ্ট্রের এ সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্টকে রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্পের চেয়ে সামান্য এগিয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে।

“৩ নবেম্বরের নির্বাচনে বিজয়ীর অভিষেক ২০ জানুয়ারিতেই হবে। ১৯৭২ সালের পর থেকে প্রতি চার বছর অন্তর অন্তর যে নিয়মতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় ক্ষমতা হস্তান্তর হয়, এবারও তেমনটাই হবে,” বৃহস্পতিবার টুইটারে এমনটাই বলেছেন সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশের নেতা ম্যাককনেল।

এর আগে রিপাবলিকান সিনেটর মিট রমনিও বলেছিলেন, “শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর গণতন্ত্রের মূল ভিত্তি। এর অন্যথা হলে দেশের অবস্থা হবে বেলারুশের মতো। একজন প্রেসিডেন্ট এই সাংবিধানিক প্রতিশ্রুতিকে সম্মান দেখাবেন না- এমন কোনও ধরনের ইঙ্গিত অকল্পনীয় এবং তা মেনে নেওয়া যায় না।”

ট্রাম্পঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত লিন্ডসে গ্রাহাম নিরাপদ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। অবশ্য নির্বাচনে কোনো ধরনের গণ্ডগোল হলে সিদ্ধান্তের জন্য সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হওয়া লাগতে পারে বলেও অনুমান এ রিপাবলিকান সিনেটরের।

“এটা যে শান্তিপূর্ণ হবে, তা আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই। যদি রিপাবলিকানরা হারে, তাহলে অবশ্যই আমরা ফল মেনে নেব। যদি সুপ্রিম কোর্ট বাইডেনের পক্ষে রায় দেয়, আমরা সেটিও মেনে নেব,” বলেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি কেইলি ম্যাকএনানি বলেছেন, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ফল ট্রাম্প মেনে নেবেন।

শীর্ষ সংবাদ:
যারা গাড়ি চালাচ্ছে, তারা মাদক সেবন করে কি না, তা পরীক্ষা করা দরকার॥ প্রধানমন্ত্রী         মানবতাবিরোধী অপরাধ ॥ কায়সারের মৃত্যু পরোয়ানা জারি         সুস্পষ্ট লঘুচাপ ॥ পূজার দিনে হতে পারে বৃষ্টি         যুক্তরাষ্ট্রে নাইটক্লাবে বন্দুক হামলা ॥ নিহত ৩         ইরান-রাশিয়ার কাছে যুক্তরাষ্ট্রের ভোটারদের তথ্য আছে ॥ এফবিআই         বিদেশ ফেরত ৮৩ জনের বিরুদ্ধে ৫৪ ধারার চলমান কার্যক্রম স্থগিত         তাইওয়ানে ১৮০ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রি অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্রের         টিউশন ফি মওকুফের দাবি জানিয়েছে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ         করোনা ভাইরাস ॥ স্পেনে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ১০ লাখ         প্রথম সমাবেশে ওবামা বললেন, এবারের ভোট জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ!         রাজনীতিবিদ তোফায়েল আহমেদের আজ ৭৮ তম জন্ম দিন         এবার মেঘালয়ের সব বাঙালীকে বাংলাদেশি দাবি!         অক্সফোর্ডের করোনা ভাইরাসের টিকায় প্রাণ গেল স্বেচ্ছাসেবকের         ইস্তফার জন্য থাই প্রধানমন্ত্রীকে ৩ দিন সময় দিলেন বিক্ষোভকারীরা         আজারবাইজানকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে ইরানের সমর্থন চায় আর্মেনিয়া         নিরাপদ হয়নি সড়ক ॥ উদ্যোগের কমতি নেই         সাগর ও নদীতে ভাসছে ২০ লাখ টন পণ্য ॥ উৎকণ্ঠায় ব্যবসায়ীরা         ধর্ষণের অপরাধে সালিশ কেন অবৈধ নয়?         বাইডেনকেই পছন্দ ভোটারদের         রাতারাতি বড়লোক হওয়ার চিন্তা করবেন না