বুধবার ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

এপ্রিল জুড়ে লকডাউনে যুক্তরাষ্ট্র

  • যুক্তরাষ্ট্রে করোনা রোগীকে ভাইরাসবিরোধী ওষুধ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন দেয়া হচ্ছে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প রবিবার বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার মতো (স্টে এ্যাট হোম) ফেডারেল করোনাভাইরাস গাইড লাইন্স অন্তত ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হবে। সিএনএন, বিবিসি।

ট্রাম্প দু’সপ্তাহ আগে ১৫ দিনের জন্য এ গাইড লাইন্স ঘোষণা করেছিলেন যা সোমবার শেষ হওয়ার কথা। তিনি গত সপ্তাহে বলেছিলেন, দেশে অন্তত কিছু এলাকায় এ ব্যবস্থা শিথিল করবেন বলে ভাবছেন। তিনি এমনকি ১২ এপ্রিল ইস্টারের আগেই প্রত্যাহারের কথা ভাবছিলেন। তিনি তখন ভেবেছেন, এ সময়ের মধ্যে দেশে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসবে। কিন্তু রবিবার তিনি বলেন, গাইড লাইন্স ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ ব্যবস্থায় বড় সমাবেশ সীমিত করার বিষয়ও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ট্রাম্প রবিবার হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, যতটা শীঘ্রই ব্যবস্থা নেয়া যাবে তত দ্রুত এ ভয়াবহ আতঙ্কে অবসান হবে। তিনি বলেন, এ সপ্তাহের প্রথমদিকে একটি নতুন পরিকল্পনা ও কৌশল চূড়ান্ত করতে যাচ্ছেন এবং মঙ্গলবার তা বিস্তারিত ঘোষণা করবেন। তিনি সংক্রমণের হার অন্তত বেড়ে যাওয়ার দিকটার প্রতি আভাস দিচ্ছেন বলে মনে হচ্ছে। হোয়াইট হাউসে মেডিক্যাল উপদেষ্টা ডাক্তার এ্যান্থনি ফাউসি এর আগে সতর্কতা উচ্চারণ করে বলেছেন যে, করোনাভাইরাসে প্রায় ২ লাখ আমেরিকান মারা যাবে। তিনি বলেছেন, এটা সম্পূর্ণভাবে ধারণা করা যায় যে, লাখ লাখ আমেরিকান সংক্রমিত হয়ে পড়বে। দেশে রবিবার বিকেল পর্যন্ত কোভিড-১৯-এ ২ হাজার ৪শ’ ৯৩ জন মারা গেছে বলে জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগৃহীত এক রিপোর্টে বলা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র গত সপ্তাহে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সংখ্যার দিক থেকে চীন ও ইতালিকে ছাড়িয়ে গেছে। ট্রাম্প করোনাভাইরাস টাস্কফোর্সের প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার মতো পদক্ষেপ গ্রহণই এ ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায়। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর হার দু’সপ্তাহে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছতে পারে। তিনি বলেন, বিজয় অর্জিত হওয়ার আগে বিজয় ঘোষণার চেয়ে কিছুই খারাপ হবে না এবং তা হবে সকলের জন্য সবচেয়ে বড় ক্ষতি।

কিন্তু তিনি প্রত্যয়ের সঙ্গে বলেন, তার আশা ১ জুনের মধ্যে দেশে এ ভাইরাস থেকে মুক্তি অর্জনে সফলতা আসবে। তিনি বলেন, আমি আমাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে চাই। ট্রাম্প মনে হয় স্বীকার করছেন যে, ভাইরাসটির বিস্তার শ্লথ হয়নি। বিশ্লেষকরা বলেছেন, ট্রাম্প মৃত্যু হারে যে সর্বোচ্চ সংখ্যার উল্লেখ করেছেন তাতে তিনি সম্ভবত রেকর্ডে আক্রান্ত রোগীদের মোট সংখ্যা বোঝাতে চেয়েছেন।

ট্রাম্প রবিবার চিকিৎসা সম্পর্কেও কথা বলেছেন। তিনি বলেন, কোভিড-১৯’র ফল পাঁচ মিনিটের মধ্যে পাওয়ার জন্য ‘দ্রুত পরীক্ষা’ অনুমোদন করা হয়েছে এবং ডাক্তার, নার্স ও অন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের পরীক্ষা করা হবে। ইতোমধ্যে নিউইয়র্কে ১ হাজার ১শ’ রোগীকে ভাইরাসবিরোধী ওষুধ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন দেয়া হচ্ছে। ট্রাম্প বলেন, দেখা যাক কেমন কাজ করে। আমরা কিছু বিস্ময়কর ফল পেতে পারি। তিনি বলেন, বিশেষজ্ঞরা অসুস্থ লোকদের চিকিৎসার জন্য অন্যের শরীরে রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া বা ব্লাড ট্রান্সফিউজনের চেষ্টা করছেন। এ ব্যাপারে তারা আরোগ্য লাভ করা লোকদের শরীরের রক্ত ব্যবহার করবেন।

ট্রাম্প রবিবার চিকিৎসা সরঞ্জামাদির অপ্রতুলতার জন্য কয়েকটি রাজ্যের হাসপাতালগুলোর বিরুদ্ধে ভেন্টিলেটর, ফেইস মাস্ক ও অন্যান্য জটিল মেডিক্যাল সরঞ্জামাদি মজুদ করে রাখার অভিযোগ আনেন। তিনি বলেন, এতে আমরা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি। হাসপাতালগুলোকে এগুলো ছেড়ে দিতে হবে যেসব ক্ষেত্রে তাদের প্রচুর রয়েছে। নিউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী মারাত্মক শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যায় ভুগতে পারে। তাই রোগীদের শ্বাস-প্রশ্বাস গ্রহণে ভেন্টিলেটর সহায়তা দেয়। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চাহিদা মেটানোর জন্য মেডিক্যাল সরঞ্জামাদি আরও উৎপাদনের জন্য ডেট্রয়েটে জেনারেল মোটরসকে নির্দেশ দিয়েছেন।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩১৫০৭৬৮৫
আক্রান্ত
৩৫২১৭৮
সুস্থ
২৩১৩৪৭১২
সুস্থ
২৬০৭৯০
শীর্ষ সংবাদ:
প্রতিরোধের প্রস্তুতি ॥ শীতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা         বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ চাই         সাউদিয়ার টিকেট নিয়ে হাহাকার- ক্ষোভ প্রবাসীদের         স্বাস্থ্যখাত যেন লুটপাটের সোনার খনি         নেদারল্যান্ডস-নিউজিল্যান্ড থেকে পেঁয়াজ আসছে         করোনায় দেশে মৃত্যু পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে         জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী         ৮ বিভাগে ৭১ উপজেলায় প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে         শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগে এইচএসসি পরীক্ষা হচ্ছে না         কুকুর নিধন কিংবা অপসারণ করবে না উত্তর সিটি         জলবায়ু পরিবর্তনে ঠিক থাকছে না শরতের আবহাওয়া         স্ত্রীর কথায় হাতি কিনলেন দরিদ্র কৃষক         অবশেষে কালুরঘাটে সড়ক-রেল সেতু নির্মাণ হচ্ছে         জার্মানির সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে কাজ করতে হবে : স্পিকার         অর্থনীতি সচল রেখে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবিলা করা হবে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব         ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে ফেরত দিতে চায় সৌদি : পররাষ্ট্রমন্ত্রী         শ্রমিকের বেতন নিয়ে তালবাহানা মানা হবে না : সাকি         আইন অনুযায়ী নুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তা নেয়ার জন্য বাড়তি সড়ক না নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         কারা ডিআইজি বজলুরের সম্পতি ক্রোক ও ব্যাংক হিসাব ফ্রিজের নির্দেশ