রবিবার ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কোয়ারেন্টাইন মানছেন না রোনাল্ডো!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভয়াবহ করোনাভাইরাস নিয়ে গোটা দুনিয়া ভীতসন্ত্রস্ত। দিনের পর দিন আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। যে কারণে ক্রীড়াঙ্গনও থমকে গেছে। সব পর্যায়ের ক্রীড়াবিদরাই ঘরে অবস্থান করছেন। সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোও এই শর্তে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাস ছেড়ে নিজ দেশ পর্তুগালে গেছেন। কিন্তু সেখানে গিয়ে সি আর সেভেন নিয়ম মানছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে। সাম্প্রতিক সময়ে সুইমিংপুলসহ বিভিন্ন জায়গায় রোনাল্ডোকে দেখা গেছে খালি গায়ে। আর তাতেই সমালোচকরা তেতে উঠেছেন। যে কারণে রোনাল্ডোর ইতালি ছেড়ে পর্তুগালে ফেরার সমালোচনা করেছেন জুভেন্টাসের সাবেক সভাপতি কোবোল্লি গিগি। ড্যানিয়েলে রুগানি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ নিয়েছিল জুভেন্টাস। পুরো দলকে ‘কোয়ারেন্টাইন’-এ পাঠিয়ে দিয়েছিল ইতালিয়ান ক্লাবটি। এই সময়ে স্ট্রোকে আক্রান্ত হন সি আর সেভেনের মা ডলোরেস আভেইরো। যে কারণে দ্রুতই নিজ দেশ পর্তুগালে চলে যান পাঁচবারের ফিফা সেরা তারকা।

এরপর জানা গিয়েছিল, পর্তুগালে নিজ শহর মাদেইরায় কোয়ারেন্টাইনে আছেন রোনাল্ডো। কিন্তু আসলে পর্তুগাল অধিনায়ক সেটা মানছেন না বলে অভিযোগ করেছেন জুভেন্টাসেরই সাবেক সভাপতি কোবোল্লি গিগি। এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, রোনাল্ডো যাওয়ার পর থেকেই বিষয়টা কঠিন হয়ে গেছে জুভেন্টাসের জন্য। যাওয়ার সময় সে বলেছিল মায়ের কাছে যাচ্ছে। কিন্তু এখন তো দেখা যাচ্ছে সে শুধু পুলে ছবি তুলছে। বিষয়টি মানা যায় না। এতে করে অন্যদের মধ্যেও একই প্রবণতা হতে পারে। ইতোমধ্যে অন্য ফুটবলাররাও ক্লাব ছাড়তে চেয়েছেন। ক্লাবের উচিত ছিল সবাইকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো।

গিগি আরও বলেন, সমালোচনা করা সহজ। তবে বাইরে থেকে দেখে একটি বিষয় বুঝতে পারছি না কিছু খেলোয়াড় কেন ইতালি ছাড়তে চেয়েছিল। ফেরার পর ছন্দে থাকা তাদের জন্য অনেক কঠিন হয়ে পড়বে। ভুলে গেলে চলবে না কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে ১৪ দিন। কিন্তু সেটা তো কেউ কেউ মানছেন না। মাদেইরায় ফেরার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক ছবি দিয়েছেন রোনাল্ডো। ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে সি আর সেভেন সবাইকে লড়াই করার আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু বিষয়টি ভাল লাগেনি অনেকের। তাদের মতে, এভাবে তার বাইরে যাওয়াটা ঠিক হয়নি।

শীর্ষ সংবাদ:
নির্দিষ্ট এলাকার বাইরে কল কারখানা নয়         তিন বন্দর দিয়ে ভারতে আটকে থাকা পেঁয়াজ আসা শুরু         দুর্নীতির বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান অব্যাহত রয়েছে ॥ কাদের         কওমি বড় হুজুর আল্লামা শফীকে চিরবিদায়         ওষুধ খাতের ব্যবসা রমরমা         করোনার নমুনা পরীক্ষা ১৮ লাখ ছাড়িয়েছে         করোনা সংক্রমণ বাড়ছে ॥ ফের লকডাউনে যাচ্ছে ইউরোপ         বিশেষ মহলের ইন্ধন-ভাসানচরে যাবে না রোহিঙ্গারা         তুলা উৎপাদনে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার         দগ্ধ আরও দুজনের মৃত্যু, তিতাসের গ্রেফতার ৮ জন দুদিনের রিমান্ডে         শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প আগামী মাস থেকেই ॥ করোনায় সব লণ্ডভণ্ড         আর কোন জিকে শামীম নয় ॥ গণপূর্তের দৃশ্যপট পাল্টেছে         ব্যক্তিগত ও পারিবারিক দ্বন্দ্বই অধিকাংশ খুনের কারণ         এ্যাটর্নি জেনারেলের অবস্থার উন্নতি         বর্তমান সরকারের আমলে রেলপথে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে : রেলপথমন্ত্রী         ইউএনও ওয়াহিদা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বদলী, স্বামী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে         সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল পরিচালকের রুম ঘেরাও         চিরনিদ্রায় শায়িত হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী         সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছি ॥ মির্জা ফখরুল         করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে একদিনে ১২৪৭ জনের মৃত্যু