বৃহস্পতিবার ১৩ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কোয়ারেন্টাইন মানছেন না রোনাল্ডো!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভয়াবহ করোনাভাইরাস নিয়ে গোটা দুনিয়া ভীতসন্ত্রস্ত। দিনের পর দিন আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। যে কারণে ক্রীড়াঙ্গনও থমকে গেছে। সব পর্যায়ের ক্রীড়াবিদরাই ঘরে অবস্থান করছেন। সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোও এই শর্তে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাস ছেড়ে নিজ দেশ পর্তুগালে গেছেন। কিন্তু সেখানে গিয়ে সি আর সেভেন নিয়ম মানছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে। সাম্প্রতিক সময়ে সুইমিংপুলসহ বিভিন্ন জায়গায় রোনাল্ডোকে দেখা গেছে খালি গায়ে। আর তাতেই সমালোচকরা তেতে উঠেছেন। যে কারণে রোনাল্ডোর ইতালি ছেড়ে পর্তুগালে ফেরার সমালোচনা করেছেন জুভেন্টাসের সাবেক সভাপতি কোবোল্লি গিগি। ড্যানিয়েলে রুগানি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ নিয়েছিল জুভেন্টাস। পুরো দলকে ‘কোয়ারেন্টাইন’-এ পাঠিয়ে দিয়েছিল ইতালিয়ান ক্লাবটি। এই সময়ে স্ট্রোকে আক্রান্ত হন সি আর সেভেনের মা ডলোরেস আভেইরো। যে কারণে দ্রুতই নিজ দেশ পর্তুগালে চলে যান পাঁচবারের ফিফা সেরা তারকা।

এরপর জানা গিয়েছিল, পর্তুগালে নিজ শহর মাদেইরায় কোয়ারেন্টাইনে আছেন রোনাল্ডো। কিন্তু আসলে পর্তুগাল অধিনায়ক সেটা মানছেন না বলে অভিযোগ করেছেন জুভেন্টাসেরই সাবেক সভাপতি কোবোল্লি গিগি। এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, রোনাল্ডো যাওয়ার পর থেকেই বিষয়টা কঠিন হয়ে গেছে জুভেন্টাসের জন্য। যাওয়ার সময় সে বলেছিল মায়ের কাছে যাচ্ছে। কিন্তু এখন তো দেখা যাচ্ছে সে শুধু পুলে ছবি তুলছে। বিষয়টি মানা যায় না। এতে করে অন্যদের মধ্যেও একই প্রবণতা হতে পারে। ইতোমধ্যে অন্য ফুটবলাররাও ক্লাব ছাড়তে চেয়েছেন। ক্লাবের উচিত ছিল সবাইকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো।

গিগি আরও বলেন, সমালোচনা করা সহজ। তবে বাইরে থেকে দেখে একটি বিষয় বুঝতে পারছি না কিছু খেলোয়াড় কেন ইতালি ছাড়তে চেয়েছিল। ফেরার পর ছন্দে থাকা তাদের জন্য অনেক কঠিন হয়ে পড়বে। ভুলে গেলে চলবে না কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে ১৪ দিন। কিন্তু সেটা তো কেউ কেউ মানছেন না। মাদেইরায় ফেরার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক ছবি দিয়েছেন রোনাল্ডো। ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে সি আর সেভেন সবাইকে লড়াই করার আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু বিষয়টি ভাল লাগেনি অনেকের। তাদের মতে, এভাবে তার বাইরে যাওয়াটা ঠিক হয়নি।

শীর্ষ সংবাদ:
আসন্ন শীতে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে : প্রধানমন্ত্রী         ডেঙ্গু : ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১৭৩         ‘দুই মাসের মধ্যে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিবন্ধন নিতে হবে’         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৬, শনাক্ত ২৯৪         এক বছর মেয়াদ বাড়ছে ডিএমপি কমিশনার শফিকুলের         সাম্প্রদায়িক হামলা ॥ বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের         ডিএমপি কমিশনারের মেয়াদ আরও ১ বছর বাড়ল         ‘বিএনপি কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে আ'লীগ প্রতিহত করবে’         দেশে করোনাকালেও খাদ্যের সংকট নেই ॥ কৃষিমন্ত্রী         ১ নবেম্বর থেকে স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু         ‘পুলিশের সব কর্মকাণ্ডে শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান’         রোহিঙ্গাদের সহায়তায় আরও ১২ মিলিয়ন ইউরো দেবে ইইউ         অবশেষে বধ্যভূমি দখলমুক্ত করা হলো         বরিশাল বাজারে ডিমওয়ালা ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে         বাংলাদেশে ফাইজারের আরও ৩৫ লাখ টিকা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র         বিনিয়োগ চাইলেন আফগানিস্তানের তালেবান সরকারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী         দেড় বছর পর ঢাকা-সিঙ্গাপুর ফ্লাইট শুরু         চুয়াডাঙ্গায় ৬ স্বর্ণের বারসহ গৃহবধূ আটক         আবাসিক হোটেল থেকে ঢাবি শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার         সমালোচনা জীবনের একটা অংশ, এটা সহ্য করাও একটা আর্ট ॥ মাশরাফি