রবিবার ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

গণপরিবহন আজ থেকে বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় ইতোমধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে রেল, নৌ ও আকাশ পথে যোগাযোগ। লকডাউন করা হয়েছে বিভিন্ন উপজেলা ও মহল্লা। জেলা-উপজেলা প্রশাসনকে সহযোগিতা করতে নামানো হয়েছে সেনাবাহিনী। দোকানপাট ও স্কুল বন্ধের পর আজ থেকে বন্ধ হতে যাচ্ছে গণপরিবহনও।

এই প্রেক্ষাপটে সর্বোচ্চ করোনা ঝুঁকি নিয়ে বাড়ি ফিরছেন মানুষ। মূলত সোমবার রাত থেকে টার্মিনালগুলোতে ঘরমুখো মানুষের ঢল নামে। ঢাকার রাস্তায় মানুষ না থাকলে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহনের চাপে ১৯ কিলোমিটার পর্যন্ত যানজটের খবর পাওয়া গেছে। এ থেকে অনুমান করা যায় উত্তরাঞ্চলে ঘরে ফেরা যাত্রী চাপ অনেক বেশি। মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত রাজধানীর কমলাপুর থেকে যে কটি ট্রেন ছেড়েছে এর সবকটিতেই দেখা গেছে উপচেপড়া ভিড়। ছাদেও তিল ধারনের ঠাঁই ছিল না বাসগুলোতে।

বুধবার ভোর থেকেই ভিড় শুধু বাস টার্মিনালগুলোতে। যারা রেল ও নৌ পথে চেষ্টা করে বাড়ি ফিরতে পারেননি তারা বাসের ভরসায় গেছেন টার্মিনালে। কষ্ট হলেও বাড়ি ফিরতে পেরেছেন সবাই। অনেক যাত্রী বিভিন্ন পরিবহন কোম্পানির বিরুদ্ধে বাড়তি ভাড়া নেয়ারও অভিযোগ করেছেন। একটু সামর্থ্যবানরা ভাড়া করা গাড়িতে বাড়ি গেছেন। ঘরমুখো মানুষের মধ্যে সবার বক্তব্য একটাই, নিজেকে নিরাপদ রাখতেই তারা বাড়ির দিকে ছুটছেন। ঢাকা থেকে গ্রামেই নিজেদের নিরাপদ মনে করছেন প্রত্যেকেই। সবার মধ্যেই ঘরে ফেরার জন্য রীতিমতো হুড়োহুড়ি দেখা গেছে।

মহাখালী গিয়ে দেখা গেছে, টার্মিনালের বাইরে হাত ধোয়ার জন্য বেসিন ও সাবান দেয়া হয়েছে। কিন্তু যাত্রীদের মধ্যে হাত ধোয়ার প্রবণতা খুবই কম। যে যার মতো করেই বাসে উঠছেন। তবে পরিবহন কর্তৃপক্ষকে বাসের ভেতর যাত্রী নিরাপত্তার জন্য কোন পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি। স্বাস্থ্য ও সিটি কর্পোরেশনের কর্মীদের সাদা গেঞ্জি পরে সাধারণ যাত্রীদের হাত ধোয়া ও সচেতন করার চেষ্টা করতে দেখা গেছে। তারা বলছেন, করোনার জন্য আতঙ্ক নয়, সচেতন হোন। করোনা রোধে যাত্রীদের হাতে সচেতনতামূলক লিফলেট দিতেও দেখা গেছে।

জনসমাগম এড়িয়ে নিজ বাসায় অবস্থান করতেই বৃহস্পতিবার থেকে সরকারী সব দফতর ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু ছুটি পেয়ে নিজ বাসায় হোম কোয়ারেন্টাইন না মেনে উল্টো দলে দলে বাড়ি ফিরছেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার তিন ফুট দূরত্ব বজায় রেখে চলাচলের নির্দেশ দিলেও তা মানছেন না কেউ। গণপরিবহন ব্যবহার ও জনসমাগমের ফলে করোনাভাইরাস ছড়ানোর ঝুঁকি বাড়ছে। এতে করে গ্রামেও ঝুঁকি বাড়বে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

শীর্ষ সংবাদ:
অবিশ্বাস্য অর্জন ॥ বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল         বাসযোগ্য পৃথিবী গড়তে ঐক্য চাই         বঙ্গবন্ধুর শাসনব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করুন         ছাত্রলীগ নেতাসহ ৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার         শক্তি হারিয়ে জাওয়াদ গভীর নিম্নচাপে পরিণত         সড়কে অনিয়মের বিরুদ্ধে লাল কার্ড প্রদর্শন শিক্ষার্থীদের         এলডিসি উত্তরণে ১০ বছরের মাস্টারপ্ল্যান         উন্নয়নে পাকিস্তান আমাদের ধারে কাছেও নেই         আমদানির জ্বালানি তেল আর লাইটারিং করতে হবে না         পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থা রাজধানীর ৮০ ভাগ ভবনে নেই         চট্টগ্রামে অটোরিক্সা-ডেমু ট্রেন-বাস সংঘর্ষে পুলিশসহ হত ৩         খালেদাকে বিদেশ নিতে কূটনৈতিক পাড়ায় বিএনপির দৌড়ঝাঁপ         আন্দোলনেই খালেদার বিদেশে চিকিৎসা নিশ্চিত করা হবে         বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় ঐক্যের বিকল্প নেই ॥ রাষ্ট্রপতি         করোনা ভাইরাসে আরও ৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৭৬         ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ ॥ সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত         বৈধ সরকারের পতন ঘটানো যাবে না: কৃষিমন্ত্রী         ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ ॥ সেন্টমার্টিন রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা         কুয়েটের শিক্ষকের মৃত্যু ॥ ৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার         ১৬ জানুয়ারি আমরা প্রধানমন্ত্রীকে নৌকা উপহার দেব ॥ আইভী