রবিবার ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৯ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

উচ্চ মাধ্যমিকের প্রস্তুতি ২০২০ বিষয় ॥ জীববিজ্ঞান

  • তাসলিমা আফরোজ ;###;আরামবাগ হাই স্কুল এন্ড কলেজ;###;আরামবাগ, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০। ;###;মোবাইল: ০১৭১১০৪৩৭৭৭

দ্বিতীয় অধ্যায়

এই অধ্যায় থেকে তোমরা যা শিখবে-

১। প্রাণিকোষের গঠন ব্যাখ্যা করতে পারবে।

২। প্লাজমামেমব্রেনের রাসায়নিক গঠন বর্ণনা করতে পারবে।

৩। ফ্লুইড মোজাইক মডেল বর্ণনা করতে পারবে।

পাঠ শিরোনাম : প্রাণিকোষের গঠন, প্লাজমামেমব্রেন এর অবস্থান, রাসায়নিক গঠন ও কাজ

i) একটি প্রান্ত পানি গ্রাহী মস্তক,

ii) অন্য প্রান্ত পানি বিদ্বেষী লেজ।

ফসফোলিপিড অণুর ফাঁকে ফাঁকে কোলেস্টেরল অণু থাকে।

(খ) লিপিড বাইলেয়ার : ফসফেলিপিড দিয়ে গঠিত। এতে প্রাণিগ্রাহী

মাথা ও পানিবিদ্বেষী লেজ আছে।

(গ) মেমব্রেন প্রোটিন : তিন

ধরনের প্রোটিনশনাক্ত করা হয়েছে।

১) প্রান্তীয় প্রোটিন,

২) অন্তর্নিহিত প্রোটিন,

৩) আন্তঃঝিল্লি প্রোটিন

(ঘ) গ্লাইকোক্যালিক্স : গ্লাইকোপ্রোটিন ও গ্লাইকোলিপিড কে একত্রে গ্লাইকোক্যালিক্স বলা

হয়।

(ঙ) কোলেস্টেরল : প্রাণিকোষের ঝিল্লীতে এটি অপেক্ষাকৃত বেশি থাকে।

প্লাজমামেমব্রেনের কাজ :

১) কোষের সজীব অংশকে রক্ষা করা।

২) কোষের নির্দিষ্ট আকৃতি প্রদান করা।

প্রাণিকোষের অঙ্গাণুর নামগুলো কী কী?

প্রাণিকোষের অঙ্গাণুর গঠন ও কাজ বর্ণনা কর, ফ্লুইড মোজাইক মডেল কী?

প্রাণিকোষ ও ফ্লুইড মোজাইক মডেলের চিহ্নিত চিত্র অংকন করে আন।

সাইটোপ্লাজম (Cytoplasm)

প্লাজমা মেমব্রেন থেকে নিউক্লিয়ার মেমব্রেন পর্যন্ত বিস্তৃত সজীব, ঈষদষ্ণু, দানাদার ও অর্ধতরল প্রোটোপ্লাজমীয় পদার্থকে সাইটোপ্লাজম বলে। এর মধ্যে বিভিন্ন কোষীয় অঙ্গাণু ভাসমান অবস্থায় থাকে। সজীব কোষের সাইটোপ্লাজম দুটি স্পষ্ট অবস্থা (Phase) নিয়ে গঠিত। যথা:

১) সাইটোসল (Cytosol),

২) কোষীয় অঙ্গাণু (Cell Organelles)।

সাইটোসলকে ঘনত্ব অনুযায়ী দু‘ভাগে ভাগ করা যায়। যথা:

১. এক্টোপ্লাজম (Ectoplasm)

২. এন্ডোপ্লাজম (Endoplasm)

কোষীয় অঙ্গাণু (Cell Organelles):

আবরণীবদ্ধ কোষীয় অঙ্গাণু এ ধরনের কোষীয় অঙ্গাণুগুলো সুনির্দিষ্ট আবরণী দ্বারা আবৃত থাকে। যেমন- মাইটোকন্ড্রিয়া, এন্ডোপ্লাজমিক জালিকা, গলগি বডি, লাইসোসোম, ভ্যাকুওল, পারঅক্সিসোম, ভেসিক্ল।

আবরণীবিহীন কোষীয় অঙ্গাণু এ ধরনের কোষীয় অঙ্গাণুগুলো কোন আবরণী দ্বারা আবৃত থাকে না। যেমন- রাইবোসোম, প্রোটিয়োসোম, সেন্ট্রিওল, মাইক্রোফিলামেন্ট, ইন্টারমিডিয়েট ফিলামেন্ট, মাইক্রোটিউবিউলস।

রাইবোসোম এর অবস্থান গঠন ও কাজ :

রাইবোসোম : সাইটোপ্লাজমে মুক্ত অবস্থায় বিরাজমান যে দানাদার কনায় প্রোটিন সংশ্লেষণ ঘটে তাকে রাইবোসোম বলে।

প্রকার : আকার ও সেডিমেন্টেশন সহজ হিসাবে এটি দু’প্রকার। যথা ঃ ৭০ং এবং ৮০ং

গঠন : এর প্রধান উপাদান হচ্ছে জঘঅ ও প্রোটিন।

কাজ : প্রোটিন সংশ্লেষণ করা।

রাইবোসোম : সাইটোপ্লাজমে মুক্ত অবস্থায় বিরাজমান অথবা অন্তঃপ্লাজমীয় জালিকার গায়ে অবস্থিত যে দানাদার কণায় প্রোটিন সংশ্লেষণ ঘটে তাকে রাইবোসোম বলে। বিজ্ঞানী ক্লড (Claude) ১৯৪০ সালে এটি সর্বপ্রথম আবিষ্কৃার করেন। পরে Palade (১৯৫৫) প্রাণীকোষে এর ইলেকট্রনিক আণুবীক্ষণিক গঠন পর্যবেক্ষণ করেন।

শীর্ষ সংবাদ:
দাম কমানোর টার্গেট ॥ সংসদে বাজেট পেশ ৯ জুন         ৫৭ বছর পর ঢাকা থেকে ‘মিতালি এক্সপ্রেস’ যাবে ভারতে         রাজনীতির মাঠ গরম করতে চায় বিএনপি         মাঙ্কিপক্সে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে তরুণরা         দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ করা হবে ॥ রিফাত         পাহাড়ে বিচ্ছিন্নতাবাদী তৎপরতা দিন দিন বাড়ছে         ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি ঢাকায় আসছে ৮ জুন         আজ জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস ॥ নানা আয়োজন         উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় কমিউনিটি রেডিও শক্তিশালী মাধ্যম         অবৈধ ক্লিনিক বন্ধে দেশজুড়ে অভিযান         ইয়াবা ও মানব পাচারে কমিশন পায় রোহিঙ্গা নারীরা         চলচ্চিত্র ব্যবসায় আশার আলো মিনি সিনেপ্লেক্স         সিলেটে ডায়রিয়াসহ পানিবাহিত রোগ বাড়ছে         বিএনপি খোমেনি স্টাইলে বিপ্লব করার দুঃস্বপ্ন দেখছে ॥ কাদের         শান্তিরক্ষীগণ পেশাদারিত্ব, দক্ষতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন : প্রধানমন্ত্রী         প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে সময়োপযোগী কারিকুলাম প্রণয়নের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির         বাংলাদেশ আজ শান্তি ও সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত : রাষ্ট্রপতি         ভারতের গুয়াহাটিতে তৃতীয় নদী সম্মেলন শুরু         রাজধানীকে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বাগেরহাটে ঝড়ে গাছ ভেঙ্গে পড়ল ইউএনওর গাড়ির উপর