রবিবার ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পোর্ট এলিজাবেথে বিপদে দক্ষিণ আফ্রিকা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ৫ দিনের টেস্টে তৃতীয় এবং চতুর্থদিনই ছিল বৃষ্টির বাগড়া। তবু বিপাকে দক্ষিণ আফ্রিকা। স্বাগতিকদের বিপদ বাড়িয়েছে মূলত তাদের ব্যাটিং ব্যর্থতা। ৯ উইকেটে ৪৯৯ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে সফরকারী ইংল্যান্ড। জবাবে মাত্র ২০৯ রানে অলআউট প্রোটিয়ারা ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নামে। রবিবার চতুর্থদিন চা-বিরতির পর এ রিপোর্ট লেখার সময় ৪ উইকেট হারিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে তাদের সংগ্রহ ৬৬। ইনিংস হার এড়াতে তখনও প্রয়োজন ২২৪ রান। অধিনায়ক ফ্যাফ ডুপ্লেসিস ক্রিজে ছিলেন ২২ রান নিয়ে, কুইন্টন ডি কক ০। উল্লেখ্য, ১-১এ চলমান চার টেস্টে সিরিজে পোর্ট এলিজাবেথের তৃতীয় টেস্টটা দু’দলের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। দাপুটে নৈপুণ্যে যেখানে সফরকারী ইংলিশদের এগিয়ে রেখেছেন দুই সেঞ্চুরিয়ান বেন স্টোকস (১২০) ও ওলি পোপ (১৩৫*) এবং স্পিনার ডম বেজ (৫/৫১)।

পোর্ট এলিজাবেথে সফরকারী বোলাররা এদিন ১৯৮১ সালে এ্যাশেজের এজবাস্টন টেস্টে ইয়ান বোথামের সেই ‘অলৌকিক’ স্পেলের কথা মনে করিয়ে দিয়েছিলেন। সাবেক ইংলিশ গ্রেট ২৮ বলের এক স্পেলে অস্ট্রেলিয়ার শেষ ৫ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন মাত্র ১ রান খরচায়। প্রায় চার দশক আগের সেই টেস্টের স্মৃতি যেন ফিরে এসেছিল। রবিবার চতুর্থদিন সকালে ২৮ বলে ১ রান দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার শেষ ৪ উইকেট তুলে নেয় ইংল্যান্ড। আরও নির্দিষ্ট করে বললে শেষ ৪ উইকেট নিতে ইংলিশ বোলারদের লাগে ঠিক ২৩ বল। তৃতীয়দিনের ৬ উইকেটে ২০৮ রান নিয়ে চতুর্থদিন শুরু করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। আগেরদিন ষষ্ঠ উইকেটে ৫৪ রানের জুটিতে অবিচ্ছিন্ন ছিলেন কুইন্টন ডি কক ও ভারনন ফিল্যান্ডার। তাদের ব্যাটে ফলোঅন এড়ানোর স্বপ্ন দেখছিল প্রোটিয়ারা। কিন্তু সে স্বপ্ন পূরণ হয়নি। দিনের প্রথম ওভারের শেষ বলে ফিল্যান্ডারকে ফিরিয়ে দেন স্টুয়ার্ট ব্রড। ওভারটা ছিল উইকেট মেডেন। পরের ওভারে কোন রান না দিয়ে ডি ককের স্টাম্প উপড়ে দেন স্যাম কুরান। ব্রড উইকেট মেডেন নেন তার পরের ওভারে এসেও, এবার ফেরান কেশভ মহারাজকে।

পরের ওভারে কাগিসো রাবাদা নিয়েছিলেন এক রান। সেটাই দিনের প্রথম ও শেষ রান। এর পরের ওভারের চতুর্থ বলে রাবাদাকে ফিরিয়েই স্বাগতিকদের ইনিংস গুটিয়ে দেন ব্রড। এদিন ৪ উইকেটের ৩টিই নিয়েছেন ইংলিশ পেসার। আগেরদিন ৫ উইকেট নিয়েছিলেন অফ স্পিনার ডম বেস। এদিন আর ১ রান যোগ করে দক্ষিণ আফ্রিকা অলআউট হয়ে যায় ২০৯ রানেই। ফলোঅন এড়ানোর জন্য তখনও দরকার ছিল ৯১ রান। ফলোঅনে পড়ে ৪৪ রানেই ৩ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। পিটার মালান, ডিন এলগার ও যুবায়ের হামজা ফেরেন যথাক্রমে ১২, ১৫ ও ২ রান করে। পরে ডার ডুসেন ফেরেন ব্যক্তিগত ১০ রানে। দুটি করে উইকেট নেন জো রুট ও মার্ক উড।

শীর্ষ সংবাদ:
বাবার জিম্মায় দুই মেয়ে ॥ হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে মায়ের আপিল         কেনিয়ায় বাস দুর্ঘটনায় ২৩ জন নিহত         ইন্দোনেশিয়ায় আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে ১৩ জনের মৃত্যু         ‘সামাজিক সমতা-ন্যায়বিচারই শান্তি প্রতিষ্ঠার মূল ভিত্তি’         ইউক্রেনের বিষয়ে বাইডেন ও পুতিন ভিডিও বৈঠক মঙ্গলবার         গণতন্ত্রের মানসপুত্র সোহরাওয়ার্দীর ৫৮তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ         বৃষ্টির কারণে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হয়নি         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মৃত্যু কমেছে প্রায় দেড় হাজার         অবিশ্বাস্য অর্জন ॥ বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল         বাসযোগ্য পৃথিবী গড়তে ঐক্য চাই         বঙ্গবন্ধুর শাসনব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করুন         ছাত্রলীগ নেতাসহ ৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার         শক্তি হারিয়ে জাওয়াদ গভীর নিম্নচাপে পরিণত         সড়কে অনিয়মের বিরুদ্ধে লাল কার্ড প্রদর্শন শিক্ষার্থীদের         এলডিসি উত্তরণে ১০ বছরের মাস্টারপ্ল্যান         উন্নয়নে পাকিস্তান আমাদের ধারে কাছেও নেই         আমদানির জ্বালানি তেল আর লাইটারিং করতে হবে না         পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থা রাজধানীর ৮০ ভাগ ভবনে নেই         চট্টগ্রামে অটোরিক্সা-ডেমু ট্রেন-বাস সংঘর্ষে পুলিশসহ হত ৩         খালেদাকে বিদেশ নিতে কূটনৈতিক পাড়ায় বিএনপির দৌড়ঝাঁপ