বুধবার ৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আওয়ামী লীগের সম্মেলনে তরুণ নেতৃত্বকে প্রাধান্য দেয়া হবে ॥ ড. রাজ্জাক

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল, ৯ নবেম্বর ॥ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগ একটি প্রগতিশীল রাজনৈতিক দল। দেশের সকল আন্দোলন, সংগ্রামে দলটি নেতৃত্ব দিয়ে আসছে। আওয়ামী লীগ একটি ডায়নামিক রাজনৈতিক দল। প্রতি সম্মেলনে দলের গঠনতন্ত্র যুগোপযোগী ও আধুনিকায়ন করা হয় এবং নতুন নেতৃত্ব আনা হয়ে থাকে। আগামী ২১তম সম্মেলনে যোগ্য, সৎ, নিষ্ঠাবান এবং তরুণ নেতৃত্বকে প্রাধান্য দেয়া হবে। আওয়ামী লীগ চায় তরুণদের মধ্য থেকে নেতৃত্ব আসুক। সেদিক বিবেচনায় নিয়ে তরুণ, প্রতিভাবান, মেধাবীদের সম্মেলনে নেতৃত্বে স্থান দেয়া হবে। মন্ত্রী বলেন, দেশে ঘূর্ণিঝড় আশঙ্কাজনক এলাকায় সকল কর্মকর্তার ছুটি বাতিল করা হয়েছে। দ্রুতই দুর্যোগপূর্ণ এলাকায় যেতে নিদের্শনা দেয়া হয়েছে। সেখানে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে এবং কৃষির ক্ষয়ক্ষতি হলে তা নিরূপণ করতে বলা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় দ্রুত কৃষি পুনর্বাসন কার্যক্রম চালানো হবে। বীজ, সারসহ যত রকম সাহায্য-সহযোগিতা দরকার তা করা হবে।

শনিবার বিকেলে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদের আয়োজনে ‘বৃহত্তর ময়মনসিংহ নৃতাত্ত্বিক জন উৎসব’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় কৃষিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, দেশে বোরো ও আমন ধান উদ্বৃত্ত উৎপাদন হয়েছে। এই উদ্বৃত্ত হওয়ার কারণে ধানের দাম কমে গেছে। চেষ্টা করছি কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনার জন্য। কিন্তু গুদামগুলোতে স্থান সংকুলান না হওয়াতে ধান কিনতে পারছি না। তবুও এবার ৬ লাখ টন ধান ক্রয় করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি এই ধান ক্রয় করা হবে। এখানে মধ্যস্বত্বভোগীর কোন স্থান হবে না। লটারীর মাধ্যমে তাদের তালিকা চূড়ান্ত করা হবে। এ বছর যারা পাবে তারা আবার বোরো মৌসুমে পাবে না।

কৃষিমন্ত্রী আরও বলেন, দেশের ও জাতির জন্য টাঙ্গাইলের মধুপুরের বন খুব গুরুত্বপূর্ণ। মধুপুরের বন এখন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। একে রক্ষার অনেক চেষ্টা করা হয়েছে। দুই ধাপে প্রায় ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্প করে বন ধ্বংসে ভূমিকায় থাকাদের নিয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় ধ্বংস কিছুটা ঠেকানো গিয়েছিল। বনের চেহারার ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছিল। আবারও নেয়া প্রকল্পে আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় ডিজাইন বদল হয়ে গেছে। মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিগণ দেশে দেশে ভ্রমণ করলেও মধুপুর বনে এসে একে রক্ষায় প্রয়োজনীয় বাস্তব পদক্ষেপ গ্রহণের সুযোগ তাদের হয় না। সংস্কৃতিসমৃদ্ধ মধুপুরের আদিবাসীরা বনে বিচরণ করে। বনেই তাদের বসবাস। এ বনকে তারা অন্তর দিয়ে ভালবাসে। তাদের রক্ষা করা গেলে বন রক্ষা পাবে। বিভিন্ন ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর পৃথক সংস্কৃতির চর্চা ও সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা গেলে হারানোর সুযোগ থাকবে না। বরং দেশের সংস্কৃতি আরও সমৃদ্ধ হবে।

মন্ত্রী বলেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যগুলো বিশেষ করে চরম দারিদ্র্য ও ক্ষুধা নির্মূল করা এবং নারী-পুরুষের সমতা ও নারীর ক্ষমতায়নে এ খাত ব্যাপক ভূমিকা রাখতে সক্ষম। বাংলাদেশ এখন ভিক্ষুকের দেশ নয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পন্ন একটি দেশে পরিণত হয়েছে। এখন আমরা অন্য দেশকে খাদ্য সাহায্য করতে পারি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অর্থনীতির গতিকে বৃদ্ধি করেছেন। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বিশ্বের দরবারে প্রশংসিত হয়েছে। অথচ বিএনপি দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করেছে। তারা জঙ্গী উৎপাদন করেছে। বিএনপি সন্ত্রাসী দল। তারা নির্বাচনের আগে হরতাল ও আন্দোলনের নামে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সাধারণ মানুষ হত্যা করেছে। বর্তমান সরকার জঙ্গী, মাদক কারবারি ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে।

টাঙ্গাইলের মধুপুরে জেলা পরিষদের অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত উৎসবে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ বাবু। এ সময় বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিক্যাল বিশ^বিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ডাঃ কামরুল হাসান খান, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব আব্দুস সামাদ, সমন্বয় পরিষদের মহাসচিব রাশেদুল হাসান শেলী, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছরোয়ার আলম খান আবু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার শফিউদ্দিন মনি, মধুপুরের মেয়র মাসুদ পারভেজ, আদিবাসী নেতা অজয় এ মৃ, ইউজিন নকরেক ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান যষ্ঠিনা নকরেক।

শীর্ষ সংবাদ:
হোতারা রেহাই পাবে না ॥ স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতির বিরুদ্ধেও জিরো টলারেন্স         উন্নয়ন প্রকল্পে ব্যয়ে সাশ্রয়ী হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         কক্সবাজার-সাতক্ষীরা সুপার ড্রাইভওয়ে হচ্ছে         করোনায় সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ তিন হাজার         সীমান্ত পাড়ি দেয়ার জন্য সাহেদ মৌলভীবাজারে!         করোনার নকল সনদ ॥ সাবরিনার বিরুদ্ধে মামলা         নিয়ন্ত্রণহীন বেসরকারী হাসপাতাল         ১৯ দিন ধরে বন্যায় ভাসছে উত্তরের বিভিন্ন জেলা         যশোর-৬ ও বগুড়া-১ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়ী         সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করতে চায় বিএনপি         বাস ও লঞ্চ টার্মিনালে হকারদের ছবিসহ তালিকা হচ্ছে         ঈদের দিনসহ ৫ দিন ৬ স্থানে বসবে পশুর হাট         চট্টগ্রামে করোনায় ডাক্তার ও ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু         নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে বিদ্যুত উৎপাদনে চীনা বিনিয়োগ আসছে         করোনা ও উপসর্গ নিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীসহ ১১ জনের মৃত্যু         একনেকে ১০ হাজার কোটি টাকার ৮ প্রকল্প অনুমোদন         কেশবপুর উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের শাহীন চাকলাদার নির্বাচিত         ঈদের জামাত নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ১১ নির্দেশনা         অধিদপ্তরের সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের কোনো সমস্যা নেই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ১৪ লাখ মানুষ        
//--BID Records