বুধবার ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দিশাহীন গন্তব্যে আইএস

  • বাগদাদির পর কে ধরছেন জঙ্গী গ্রুপটির হাল

আইএস নেতা আবু বকর আল-বাগদাদির মৃত্যুর পর দিশাহীন গন্তব্যে জঙ্গী গ্রুপটি। বাগদাদি ছিলেন আইএসের একজন পলাতক আমির যিনি একটি বিচ্ছিন্ন গোষ্ঠীকে ঐক্যবদ্ধ করেন। মধ্যপ্রাচ্যের মানচিত্র দখলের জন্য হুমকি দিয়ে দলটি বহু বেসামরিক মানুষকে হত্যা করে। ইরাক এবং সিরিয়ায় জিহাদ করার জন্য যেসব বিদেশী নাগরিকদের প্রলুব্ধ করে নিয়োগ দেয়া হয়েছিল তাদের বেশিরভাগই মারা গিয়েছে। যে সন্ত্রাসবাদী সংগঠনটি কঠোর পরিশ্রম করে একত্রিত হয়েছিল তাদের ভবিষ্যত গন্তব্য এখন কি হতে পারে সেটাই দেখার বিষয়।

আইএস জঙ্গীগোষ্ঠীটি বর্তমান বিভিন্ন উপায়ে তাদের দলটিকে বিকশিত করছে। গত পাঁচ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলা যুদ্ধে আইএস তাদের নেতৃত্বের পদক্ষেপগুলোর স্থিতিশীলতা প্রমাণ করেছে। গোষ্ঠীটি নতুন পরিস্থিতিতে খাপ খাইয়ে নিতে নিজেদের অবস্থানে অনেক দ্রুত অগ্রসর হচ্ছে। কিন্তু বর্তমান তাদের দখলকৃত অঞ্চলগুলো ধরে রাখতে তারা আর সক্ষম অবস্থানে নেই। কারণ আইএসের বেঁচে থাকা সৈন্য তাদের গেরিলা শিবিরে ফিরে গিয়ে বোমা হামলা ও হত্যাকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। ইরাক ও সিরিয়ায় দখলকৃত আঞ্চলিক খিলাফতের ক্ষতি হওয়া সত্ত্বেও এশিয়া এবং আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে ১৪টি পৃথক সহযোগী সংগঠনে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য আইএস নিজেদের প্রসারিত করেছে। গত পাঁচ বছরের মধ্যে ২০১৮ সালের ২৯ এপ্রিল আল-ফুরকান মিডিয়ায় প্রকাশিত একটি ভিডিওতে প্রথমবারের মতো আইএস নেতা আবু বকর আল-বাগদাদিকে দেখা গিয়েছিল। দীর্ঘ সময় ধরে গবেষণা করে আসা বিশ্লেষকরা বলেছেন, গত শনিবারের স্পেশাল অপারেশনস কমান্ডো অভিযানে যে বিষয়টি সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে তা হলো ইসলামিক স্টেট গ্রুপের ছায়াময় শ্রেণীবিন্যাস থেকে আল-বাগদাদির অপসারণ নয় বরং তার বিপরীতে কাকে সেখানে বসানো হবে সেটাই মূল বিষয়। ইরাকের পূর্বসূরিদের সংগঠন আল-কায়েদার মতো এই দলটিও নিয়মিতভাবে যেসব নেতা খুন হয় তাদের শূন্যস্থান পূরণ করতে নতুন কমান্ডারদের ডেকে পাঠায়। দলগুলোর শূন্যস্থান পূরণ নিয়মানুযায়ী ঘটে বলে মার্কিন স্পেশাল অপারেশনস কমান্ডোবাহিনী এই নেতাদের অপসারণকে রসিকতার সঙ্গে ‘ঘাস কাটা’ বলে উল্লেখ করে। আগস্টে ন্যাশনাল কাউন্টার টেররিজম সেন্টার থেকে সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল এবং কৌশল পরিচালক হিসেবে অবসর করা মাইকেল নাগাটা বলেছেন, আবু বকর আল-বাগদাদির মৃত্যুর বিষয়টি অনেক বড় প্রাপ্তি এবং যদিও এটি গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে তবে আইএসের নেতৃত্বের জন্য এটি কোন বিপর্যয়মূলক আঘাত নয়। -নিউইয়র্ক টাইমস

শীর্ষ সংবাদ:
ওমিক্রন ঠেকাতে প্রবাসীদের আসতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে         বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকের ধাক্কায় দুই মটরসাইকেল অরোহী নিহত         ডাসারে মোটরসাইকেল চাপায় ইউপি সদস্য নিহত         রামপুরায় বাসে আগুন ও ভাঙচুর ॥ আসামি ৮০০         যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরের গুলিতে নিহত ৩, আহত ৮         রেফারিকে হত্যার হুমকি আর্জেন্টাইন ফুটবলারের         নিরাপদ সড়ক দাবি ॥ রামপুরায় শিক্ষার্থীদের অবরোধ         শারীরিক উপস্থিতিতে শুরু হলো আপিল বিভাগের বিচারকাজ         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে ২ হাজার ৩০০ জনের         বায়োএনটেক প্রধান ওমিক্রন নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন         সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে রাজশাহীর পৌর মেয়র আব্বাস গ্রেফতার         ঢাবি জাতিকে যা কিছু উপহার দিয়েছে তা নিঃসন্দেহে গর্ব ও গৌরবের         রোহিঙ্গাদের উচিত এখন নিজ দেশে ফিরে যাওয়া         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         জাপানে ওমিক্রন শনাক্ত         শতবর্ষের আলোয় আলোকিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ল এক মাস         আগাম জামিন নিতে আসা শংক দাস বড়ুয়া কারাগারে         করের টাকাই দেশের উন্নয়নের মূল চালিকাশক্তি