মঙ্গলবার ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপভোগ করেন রিয়াদ

  • সাকিবের সঙ্গে কোন দ্বন্দ্ব নেই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ দলের নতুন কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো এখনও দায়িত্ব বুঝে নেননি। বুধবার দায়িত্ব নেবেন। তবে এর আগেই জানিয়ে দিয়েছেন তিনি সিনিয়রদের মধ্যে তরুণদের দিয়ে একটা ভাল প্রতিদ্বন্দ্বিতার পরিবেশ তৈরি করতে চান। আজ থেকে বাংলাদেশ দলের প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হবে। কয়েকদিন কন্ডিশনিং ক্যাম্প চলবে। ফিটনেস নিয়েই কাজ করা হবে। এরপর শুরু হবে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ৫ সেপ্টেম্বর শুরু হতে যাওয়া টেস্টকে সামনে রেখে ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং অনুশীলন। নিজে থেকেই ফিটনেস ঠিক রাখার চেষ্টা করছেন মাহমুদুল্লাহ। রবিবার তিনি জানালেন, তরুণ ক্রিকেটারদের সঙ্গে যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা তা তিনি ইতিবাচকভাবেই দেখেন এবং এই প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপভোগও করেন। এই প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা বলার সঙ্গে সাকিব আল হাসান ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে যে দ্বন্দ্বের গুঞ্জন বিশ্বকাপের পর উড়ে বেড়িয়েছে, তারও ব্যাখ্যা দেন রিয়াদ। কোন দ্বন্দ্ব যে নেই তাও জানান।

ডোমিঙ্গো জানান, ‘বাংলাদেশ দলে দারুণকিছু খেলোয়াড় আছে। তবে তরুণদের দিকটাও বিবেচনায় নেয়া উচিত। তাতে সিনিয়র ক্রিকেটারদের ওপর কিছুটা হলেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা তৈরি হয়। সঙ্গে এই তরুণদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলার সুযোগও করে দিতে হবে। কারণ একটা সময় এরাই তো দলটাকে চালাবে।’ আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্ট থেকেই হয়তো তরুণদের নিয়ে এগিয়ে চলার যাত্রা শুরু হয়ে যাবে। এরপর বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, জিম্বাবুইয়েকে নিয়ে অনুষ্ঠেয় ত্রিদেশীয় টি২০ সিরিজেও এর ঝলক দেখার মিলবে। ভবিষ্যতের ভাবনায় তরুণদের গড়ে তোলার কাজ শুরু হয়ে যাবে। এই প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সিনিয়রদের ওপর চাপ তৈরি হবে না? মাহমুদুল্লাহ উপভোগের মন্ত্রেই বিশ্বাসী।

তিনি বলেন, ‘আমি খুব ইতিবাচকভাবে নিচ্ছি বিষয়টি (চ্যালেঞ্জ)। কারণ আপনি যাদের নাম বললেন সাইফ, আফিফ ওরা কয়েক বছর ধরে ঘরোয়া ক্রিকেটে অনেক ভাল করছে। তারা সকলেই অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড়। আমি সবসময় স্বাস্থ্যকর প্রতিযোগিতাকে স্বাগত জানাই। স্বাস্থ্যকর প্রতিযোগিতা না থাকলে ক্রিকেটে কখনও উন্নতি হবে না আর আমাদেরও উন্নতি হবে না। তাই আমি প্রতিযোগিতা সবসময় উপভোগ করি আর এটা আমাদের সবার জন্যই ভাল।’ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে ধীরগতিতে ব্যাটিং করায় মাহমুদুল্লাহকে একাদশের বাইরে রাখার কথা মাশরাফি বিন মর্তুজাকে বলেন সাকিব। এ নিয়ে সাকিব ও মাহমুদুল্লাহর মধ্যে নাকি দ্বন্দ্বও তৈরি হয়। এ নিয়ে রিপোর্টও হয়। কিন্তু মাহমুদুল্লাহ তা নাকচ করে দেন। তিনি জানান, ‘আমার মনে হয়, এ ধরনের বিষয় নিয়ে কথা না বলাই ভাল। এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে চাচ্ছি না। শুধু একটা কথাই বলতে চাই, যেভাবে মিডিয়াতে ব্যাপারগুলো উপস্থাপন করা হয়েছে, তেমন কিছু হয়নি। উপস্থাপন ভিন্নভাবে হতে পারত। এটুকুই বলতে চাই।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘আমার মনে হয় না কোন সতীর্থের সঙ্গে গ-গোল আছে। আমরা এখনও খুব ভাল বন্ধু। ড্রেসিং রুমে আপনারা (সাংবাদিকেরা) চাইলে আসতে পারেন। আমরা কিভাবে কথা বলি, একজন আরেকজনের সঙ্গে কেমন মজা করি, কত ভালভাবে সময় কাটাই। আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি, এসে দেখে যেতে পারেন ড্রেসিং রুম। ছোট হোক, বড় হোক আমরা একজন একজনের সঙ্গে কতটুকু ভালভাবে থাকি দেখুন। সবসময় চেষ্টা করি যেন সবার সঙ্গে ভালভাবে থাকতে পারি, দলের জন্য ভাল খেলতে পারি। সবসময় এটা বলি, আজও এটা বলি, ভবিষ্যতেও এটাই বলব, সবকিছু ঠিকভাবেই চলছে।’

রবিবার সংবাদ মাধ্যমের কাছে এমন বলার পর ফেসবুকেও ভিডিও বার্তায় এ নিয়ে আরও কিছু বলেন মাহমুদুল্লাহ, ‘একটি শিরোনাম দেখলাম, সাকিবের সঙ্গে ড্রেসিং রুমের ঘটনাটা ভিন্নভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। সত্যি হলো সাকিবের সঙ্গে আমার কোন রকমের দ্বন্দ্ব বা সমস্যা হয়নি। আমরা যতদিন ধরে একসঙ্গে খেলছি, খুবই ভাল সতীর্থ ছিলাম। এখনও আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব। সাকিবের সঙ্গে আমার কোনরকমের কিছু হয়েছে এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। আমার মনে হয়েছে এটা পরিষ্কার করে বলা দরকার। এ কারণেই এ ভিডিওটা দেয়া হচ্ছে।’ বিশ্বকাপ শেষ। এখন সামনে টেস্ট আর টি২০তেই মজে থাকতে হবে। টি২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত টেস্ট আর টি২০ খেলাই অনেক। এ দুই ফরমেটকে মাথায় রেখেই ক্রিকেটারদের প্রস্তুত হতে হবে। মাহমুদুল্লাহও সেভাবেই প্রস্তুত হতে চান। বিশ্বকাপে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। এরপর শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজে ৩ ম্যাচে মাত্র ১৮ রান করতে পারা এ অলরাউন্ডার বলেন, ‘এখন টেস্ট এবং টি২০ ম্যাচের সংখ্যাই বেশি। এখন সেভাবেই ফোকাস করতে হবে। ডিফেন্স করতে হবে এবং মারতে হবে। এ কয়দিন আমরা ব্রেকে ছিলাম। কয়েকদিন ফিটনেস নিয়ে কাজ করব। প্রত্যেকদিনই ফিটনেস নিয়ে কিছু না কিছু কাজ করব। সামনে সিরিজ আছে, আফগানিস্তানের সঙ্গে টেস্ট আছে, তারপর টি২০ টুর্নামেন্ট।’

নতুন কোচ নিয়োগ হয়েছে। নতুন কোচকে সহযোগিতা করা এবং সমন্বয় করে একটা ভাল ফল বের করে আনার কথা বলেন মাহমুদুল্লাহ, ‘ওনারা (কোচরা) যখন খেলতেন, তখন বেশ হাই প্রোফাইল ক্রিকেটার ছিলেন। এখন কোচ হিসেবেও তিনি বেশ সমৃদ্ধ। কোচ এবং ক্রিকেটার, সবার কষ্টের বিনিময়েই আসলে ফলাফল আনতে হবে। এ রকম না যে আমরা কষ্ট করে গেলাম, ওনারা করল না বা ওনারা কষ্ট করে গেল আমরা করলাম না। দুই পাশ থেকেই আমাদের যথেষ্ট তথ্য আদান-প্রদান করতে হবে। সবাই মিলে চেষ্টা করব কিভাবে ভাল করা যায়।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘ওনার (ডোমিঙ্গোর) সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে কথা হয়নি। এখন ইনশাল্লাহ হবে। যেহেতু ওনার প্রোফাইল বেশ সমৃদ্ধ। সাউথ আফ্রিকার কোচ ছিলেন বেশ কয়েক বছর। খুব ভাল কাজই করেছেন সাউথ আফ্রিকার হয়ে। আমরা অনেক কিছু শিখতে পারব, একই সঙ্গে আমাদের দলের জন্যও ভাল হবে।’

শীর্ষ সংবাদ:
শীর্ষে যাবে রফতানিতে ॥ গার্মেন্টস শিল্পে ঈর্ষণীয় সাফল্য         ঢাকা-দিল্লী সম্পর্ক আস্থা ও শ্রদ্ধায় বিস্তৃত         ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার ১১ মাসের মাথায় সুচির কারাদণ্ড         বিশ্বজুড়ে শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছেন শেখ হাসিনা         অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের সচিব পদোন্নতি দেয়ার প্রক্রিয়া!         বিজয়ের মাস         জাওয়াদ দুর্বল হয়ে লঘুচাপে রূপ নিয়েছে         ৪৩ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে রিপোর্ট দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ         অরাজকতা সৃষ্টির নীলনক্সা জামায়াতের         আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জনের সূচনা ৬ ডিসেম্বর         বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী ছিন্ন করা যাবে না         বন্ড সুবিধার অপব্যবহার, ২৭৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি         বিএনপি রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে         সমিতি সংগঠন খুলে ফায়দা লুটে নিচ্ছে বিশেষ শ্রেণী         তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         দেশে টিকা উৎপাদনে দুই-চার দিনের মধ্যেই চুক্তি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         সমাপনী পরীক্ষা না থাকলেও বৃত্তি ও সনদের ব্যবস্থা থাকবে : শিক্ষামন্ত্রী         চরফ্যাশনে ট্রলার ডুবি ॥ ২১ মাঝি-মাল্লা নিখোঁজ         পেট্রোবাংলার নতুন চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান         আড়াইহাজারে আগুনে দুই শিশুসহ একই পরিবারের চারজন দগ্ধ