শনিবার ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পাওনা টাকা পরিশোধ না করলে ট্যানারিতে চামড়া দেবেন না আড়তদাররা

পাওনা টাকা পরিশোধ না করলে ট্যানারিতে চামড়া দেবেন না আড়তদাররা

অনলাইন ডেস্ক ॥ আড়তদারদের পাওনা টাকা পরিশোধ না করলে এবার ট্যানারি মালিকদের কাছে চামড়া বিক্রি করবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন পুরনো ঢাকার পোস্তার কাঁচা চামড়ার আড়তদাররা। আড়তদারদের এক জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শনিবার রাজধানীর লালবাগের পোস্তায় সাংবাদিকদের এতথ্য জানান কাঁচা চামড়া আড়তদারদের সংগঠন বাংলাদেশ হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের (বিএইচএসএমএ) সভাপতি দেলোয়ার হোসেন। এ সময় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হাজি মো. টিপু সুলতানসহ সংগঠনের অন্য নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘ট্যানারি মালিকদের কাছে আড়তদারদের প্রায় ৪০০ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। এই পরিমাণ টাকা পরিশোধ না করা পর্যন্ত ট্যানারি মালিকদের কাছে আমরা চামড়া বিক্রি করবো না। সভায় আমরা এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘রবিবার (১৮ আগস্ট) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ট্যানারি মালিক, আড়তদার ও কাঁচা চামড়া সংশ্লিষ্টদের বৈঠক আছে। সেখানে আলোচনার পর আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবো। আজ শনিবার চামড়া বিক্রি করার কথা থাকলেও এখন থেকে আমরা আর বিক্রি করবো না।’

ট্যানারি মালিকদের কারণে এবার চামড়ার দাম কমে গেছে এমন অভিযোগ করে দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘ট্যানারিগুলো বকেয়া টাকা না দেওয়ায় এবার অর্থের অভাবে চামড়া কিনতে পারিনি। অন্যান্য বছর ঈদের আগের দিন আড়তদারদের সঙ্গে আলোচনা করলেও এবার তারা কোনও কথা বলেননি। তারা যদি আমাদের আশ্বস্ত করতো যে, ন্যায্য দামে চামড়া কিনবে, তাহলে এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হতো না। কিন্তু এটি না করে উল্টো মিডিয়ার কাছে তারা নানা কথা বলেছেন। এ কারণে দর আরও কমেছে।’ ট্যানারি মালিকরাই এই পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছেন বলেও দাবি করেন তিনি।

এদিকে, পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী কোরবানির পশুর লবণযুক্ত কাঁচা চামড়া কেনা শুরু করেছেন ট্যানারি মালিকরা। শনিবার (১৭ আগস্ট) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও সালমা ট্যানারির মালিক সাখাওয়াত উল্লাহ। তিনি বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে আজ থেকে আমরা ট্যানারি মালিকরা লবণযুক্ত কাঁচা চামড়া কেনা শুরু করেছি। সরকার নির্ধারিত মূল্যে আগামী দুই মাস আমরা চামড়া সংগ্রহ করবো।

শীর্ষ সংবাদ:
মুখোশ উন্মোচিত হোক         জিয়া আমাকে মন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল         মাত্র সাড়ে ৩ বছরেই শূন্য অর্থনীতির দেশকে প্রতিষ্ঠিত করে যান বঙ্গবন্ধু         বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডে পরোক্ষ মদদ ছিল জিয়ার         শনাক্ত বিবেচনায় করোনায় মৃত্যু হার ১.৩২ শতাংশ         ’৭৫ পরবর্তী দেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিলেন জিয়া         যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঁচ কর্মকর্তার নেতৃত্বে চলে পৈশাচিক নির্যাতন         আইনের ফাঁক-ফোকরে অধিকাংশই এখন জামিনে মুক্ত         কোভিড ভ্যাকসিন ॥ দেশে দেশে তোড়জোড়         প্রদীপের প্রতিহিংসার বলি সিনহা, আজ গণশুনানি         বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করা দেশের অস্তিত্ব ও মুক্তিযুদ্ধকে অস্বীকার         জাতির পিতাকে মেনে নিয়েই সকলের রাজনীতি করা উচিত         বিচার বিভাগ বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে কাজ করছে         বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণে কাজ করাই তাঁর প্রতি শ্রদ্ধার প্রকাশ         উপকূলীয় অঞ্চলে ৮০ কিলোমিটার বেগে আসছে ঝড়         বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন         টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে জাতির জনকের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৬৪৪         হত্যাকারীরা বাংলাদেশকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিল ॥ নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী         বঙ্গবন্ধু হত্যার মূল পরিকল্পনাকারীরা ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে ॥ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী