সোমবার ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০১ জুন ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বিচারকরা আইন ভুলে গেছেন ॥ জাফরুল্লাহ

বিচারকরা আইন ভুলে গেছেন ॥ জাফরুল্লাহ

অনলাইন রিপোর্টার ॥ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, আজকে সবচেয়ে চরম অবনতি হয়েছে বিচার বিভাগের। জজ সাহেবদের চরিত্রহীনতা, তারা আইন ভুলে গেছেন। আইনের অনুশাসন তারা মানেন না।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে আদর্শ নাগরিক আন্দোলন আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

জাফরুল্লাহ বলেন, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের ঘটনা বলি - মাসুদা ভাট্টিকে নিয়ে একটি মন্তব্য করেছিলেন। পরের আবার ক্ষমাও চেয়েছিলেন। বিভিন্ন ব্যক্তি সংশ্লিষ্ট মামলাগুলো করলো। অথচ যাকে মন্তব্য করা হয়েছিল মামলা করার অধিকার ছিল তার। আর কোটি কোটি টাকার দাবিদার হলে কোর্ট ফি দিতে হয়,ম্যাজিস্ট্রেট-জজ সাহেবরা সেটা জানেন। এসব মামলা গ্রহণ করে জামিন আটকে দেওয়া হয়। একই ঘটনা ঘটেছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রেও।

তিনি আরও বলেন, আজকে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা হচ্ছে না। খালেদা জিয়ার মূল চিকিৎসা হলো তাকে জেল থেকে মুক্তি দেওয়া, পৃথিবীর আলো বাতাস দেখতে দেওয়া। এটি হলো তার মূল চিকিৎসা। সেটা না করে যদি মাথা ব্যথার জন্য পা টিপে দেওয়া হয়, তাহলে কি মাথা ব্যাথা কমবে? খালেদা জিয়ার দ্বিতীয় চিকিৎসা হবে তার মানসিক একাকীত্বের। এর জন্য কোনও চিকিৎসককে যুক্ত করা হয়নি। তারা নানা কল্প কাহিনি করে, আজকে উনার যে মানবাধিকার, নৈতিক অধিকার আছে, তাকে আর কিছু না হোক জামিনে মুক্তি দেওয়া হোক। গণতন্ত্র না থাকলে বিচার বিভাগের অবনতি হবে। বিচার বিভাগের বিবেকহীনতা বলেই এই জাতীয় ঘটনা, বিচারকদের মনে রাখতে হবে, কখনও না কখনও আপনাদেরকে জনতার আদালতে দাঁড়াতে হবে।

আজকে প্রধানমন্ত্রীর কোনও কথা কাজে আসছে না এমন মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, ‘শাসন আজকে অপশাসনে পরিণত হয়েছে। স্থানীয় কর্মকর্তাদের পরিবার নিয়ে যার যার এলাকায় অবস্থান করার নির্দেশ দিলেও কয়জন থাকছে? তাদের নড়াচড়া কী দেখতে পেয়েছেন? পাঁচ বছর ধরে চিকিৎসকদের গ্রামে যাওয়ার কথা বলছেন। কোনও স্পন্দন কি আপনি শুনতে পারছেন? আজকে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে সব মামলা প্রত্যাহার করেছেন, কিন্তু বিরোধী দলের কোনও মামলার ক্ষেত্রে কি তা হয়েছে? মামলা প্রত্যাহার করছেন না, জামিন দিচ্ছেন না। এটা না করে ভুল কাজ করছেন। আমি অনুরোধ করবো, অনতিবিলম্বে আলোচনার পথ সুগম করুন, যাতে আমরা দেশে গণতন্ত্রের জন্য কাজ করতে পারি।’

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মো রহমতুল্লাহ। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

শীর্ষ সংবাদ:
করোনায় মারা যাওয়া নার্সের পরিবারকে ২ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র দিচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১         অফিসে ২৫ শতাংশের বেশি কর্মকর্তার উপস্থিতে মানা         সারাদেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সরকারকে আরও কঠোর হতে হবে ॥ সেতুমন্ত্রী         মশক নিয়ন্ত্রণে তৃণমূল থেকে উচ্চ পর্যায়ে পর্যন্ত ঢেলে সাজানো হবে ॥ তাপস         লিবিয়ায় বাংলাদেশী হত্যা ॥ মাদারীপুরে ৩টি মামলা, নারী গ্রেফতার         পুলিশের গুলিতে যুক্তরাষ্ট্রে একবছরে নিহত এক হাজারের বেশি         চলাচল শুরু করল হাতিরঝিলের ওয়াটার ট্যাক্সিও         হাঁটু গেড়ে বিক্ষোভে সংহতি জানালো নিউ ইয়র্ক-মিয়ামির পুলিশ         বাস ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত অমানবিক ॥ ফখরুল         গাজীপুরে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত         ৬৭ দিন পর ঘুরল গণপরিবহনের চাকা         বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট         দূতাবাস কর্মকর্তা বহিষ্কার ॥ পাক-ভারত উত্তেজনা         এবার ভ্রমণকারীদের জন্য দরজা খুলছে জাপান         দেশের ১৯ অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস         ভারত সীমান্তে শক্তিশালী অস্ত্র মজুদ করছে চীন         ইতালির চিকিৎসকের দাবি, শক্তি হারাচ্ছে করোনা         কারফিউ উপেক্ষা করে আমেরিকায় বিক্ষোভ; গ্রেফতার ১৪০০        
//--BID Records