ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

হতাশ হবেন না, দল পুনর্গঠন হচ্ছে ॥ মোশাররফ

প্রকাশিত: ০৯:৩৫, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

হতাশ হবেন না, দল পুনর্গঠন হচ্ছে ॥ মোশাররফ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আপনারা হতাশ হবেন না, দল পুনর্গঠন শুরু হচ্ছে। শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকার রচিত দুটি গ্রন্থের (‘নিশি রাত্রির দ্বিপ্রহর’ ও ‘মিথ্যার কাছে জাতি পরাজিত’) প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ড. মোশাররফ বলেন, ইতোমধ্যে দল পুনর্গঠনের কাজ শুরু হয়েছে। যেখানে যা দুর্বলতা আছে তা খুঁজে বের করে দলকে শক্তিশালী করা হবে। তিনি বলেন, একটি সভ্য ও গণতান্ত্রিক সমাজে আজ সত্য পরাজিত, মিথ্যা প্রতিষ্ঠিত। গণতন্ত্রের ‘মা’ খালেদা জিয়া আজ কারাগারে বন্দী। দলকে শক্তিশালী করে তার মুক্তি আন্দোলনে নেমে পড়তে হবে। তাই বিএনপির সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের বলব হতাশ না হয়ে জেগে উঠুন। ড. মোশাররফ বলেন, ৯ বছর আগে নিমতলীতে ভয়াবহ অগ্নিকা-ের পর পুরান ঢাকা থেকে রাসায়নিক ও দাহ্য পদার্থের গুদাম সরিয়ে নেয়ার সুপারিশ এলেও তার বাস্তবায়ন হয়নি। তাহলে সরকার ৯ বছর কি করেছে। তখন যদি এই গুদামগুলো সরিয়ে নেয়া হতো তাহলে চকবাজারে এত হতাহতের ঘটনাটি ঘটত না। প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে দেশে গণতন্ত্র হত্যা করা হয়েছে মন্তব্য করে ড. মোশাররফ বলেন, মৌলিক অধিকার হরণ করা হয়েছে মানুষের। এত কিছু হরণ হয়ে গেল তাই দেশের মানুষ এমনিতে বসে থাকবে তা বিশ্বাস করি না। অনেকে বলেন, বিএনপি পরাজিত। নেতাকর্মীরা হতাশ। এটা সত্য নয়। আমি বলব বিএনপি পরাজিত নয়। চকবাজারের ভয়াবহ অগ্নিকা-ের ঘটনায় নিহতদের প্রতি শোক প্রকাশ করে ড. মোশাররফ বলেন, এই সরকার কোন ট্রাজেডির পর কথা রাখেনি। কোন প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করেনি। তারা যা বলে তা করে না। আমি মনে করি আবাসিক এলাকায় যেসব কেমিক্যাল গোডাউন আছে, তার জন্য আলাদা জায়গা নির্ধারণ করে তাদের স্থানান্তর করতে হবে। নইলে চকবাজারের মতো আবারও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, তৈমুর আলম খন্দকার, লেবার পার্টির চেয়াররম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, সাংবাদিক নেতা আবদুল হাই শিকদার, প্রকাশক সান্তা ফারজানা প্রমুখ। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, কিভাবে গভীর রাতে ভোট কারচুপি করতে হয় সেটার জন্য সারা বিশ্বে ট্রেনিং দেয়ার দক্ষতা অর্জন করেছে বর্তমান সরকার।