শুক্রবার ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মারাত্মক অপরাধ

  • রেশমা খানম

সমাজে একশ্রেণীর অশিক্ষিত, মূর্খ ব্যবসায়ী দেশে ভেজাল ও নকল ওষুধ তৈরির সঙ্গে জড়িত। এটি একটি মারাত্মক অপরাধ। এই অপরাধপ্রবণতাকে রোধ করতে হবে। এই ধরনের ওষুধ সেবনে রোগী সুস্থ হওয়ার বদলে মৃত্যুবরণ করে। শিক্ষিত লোকজন সমাজের অশিক্ষিত লোকজন দিয়ে ভেজাল ওষুধ তৈরি করে থাকে। কারণ তারা এটা কি ওষুধ তা বুঝতে পারে না। সমাজের শিক্ষিত মানুষরাই অসাধু ব্যবসায়ীদের দিয়ে অল্প খরচে বেশি লাভ করার জন্য মানুষ হত্যায় পিছপা হয় না। এ বিষয়ে দেশবাসী সরকারের কাছে আশু দৃষ্টি কামনা করছে। সরকার পদক্ষেপ নিলেই দেশবাসী সুফল পাবে।

এ ছাড়াও অনেক ওষুধ বিক্রেতা মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করে থাকে। বলাবাহুল্য এ ধরনের ওষুধ রোগ প্রতিরোধে কোন ভূমিকা রাখতে পারে না। উল্টা এ ধরনের ওষুধ সেবনে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় মানুষ মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়তে থাকে। জীবন রক্ষাকারী ওষুধ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সমাজে তথা দেশবাসীকে উপহার দেয়ার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।

অন্যদিকে দেশে তৈরি বহু ওষুধের মূল্য সাধারণ মানুষের ক্রয়ের নাগালের বাইরে। তাদের পক্ষে দেশে তৈরি অসাধারণ মূল্যমানের ওষুধ ক্রয় করে সেবন করা সম্ভব নয়। তাই দেশে তৈরি ওষুধের মূল্য কম রাখার জন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। বিত্ত-বৈভবের মালিকগণ উচ্চ মূল্যের ওষুধ ক্রয় করতে পারে এবং বিদেশী ওষুধও ক্রয় করে খেতে পারে। এই দুটি দিক বিচার করলে দেখা যায়, সাধারণ মানুষ ওষুধ সেবনের অভাবে মৃত্যুবরণ করে। আর অধিক সম্পদের অধিকারী লোকজন দামী দামী ওষুধ সেবন করে ভালভাবে বেঁচে থাকে। অথচ গরিব লোকজন ওষুধের অভাবে অকালে মৃত্যুবরণ করে। যা একটি স্বাধীন, সার্বভৌম দেশে অনাকাক্সিক্ষত।প্রতিটি নাগরিকের কাছে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে হলে এসব বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নিতেই হবে। দেশের প্রতিটি নাগরিককে কাজে লাগিয়ে ভেজালমুক্ত ওষুধ প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। তা ছাড়াও দেশের সার্বিক উন্নতির জন্যও জনগণ একমাত্র চালিকাশক্তি।

প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারসহ জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে যে ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছেন, এ ধরনের পদক্ষেপ নিলে আমার বিশ্বাস এ দেশ ভেজাল ওষুধসহ সব ধরনের খাদ্যদ্রব্য ভেজালমুক্ত হবে। আমরা সবাই ওষুধ ক্রয় করার সময় ওষুধের মেয়াদ আছে কিনা তা পরীক্ষা করে ও জেনেশুনে ব্যবহার করি এবং মানুষের জীবন বাঁচাই, তাহলে এ দেশ একদিন উন্নত দেশের কাতারে আসবে এবং পরবর্তী প্রজন্ম এর সুফল জন্ম থেকে জন্মান্তরে ভোগ করবে। পাশাপাশি ওষুধসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দামও সহনীয় পর্যায়ে রাখা যাবে।

উত্তর বাসাবো, ঢাকা থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
ফটিকছড়িতে এক মাদক ব্যবসায়ী আটক         দিনাজপুরে বাল্যবিয়ে দেয়ার চেষ্টায় কাজী কারাগারে, বরের জরিমানা         রাজধানীর শেওড়াপাড়ায় মোটরসাইকেল আরোহীকে গুলি করে আহত         আফ্রিকার ৭ দেশ থেকে ফিরলেই নিজ খরচে কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক         মানুষকে আগামী বহু বছর ধরে কোভিডের টিকা নেবার প্রয়োজন হতে পারে ॥ ড. বুর্লা         মুন্সীগঞ্জে বিস্ফোরণে দগ্ধ ভাই-বোন নিহত ॥ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে বাবা-মা         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৭ হাজার ৪২ জন         ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড ॥ আমিনবাজারে ছয় ছাত্র হত্যা         যে কোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা প্রস্তুত         এইচএসসি পরীক্ষা শুরু, ১৪ লাখ পরীক্ষার্থী         ১৬ ডিসেম্বর শপথ করাবেন শেখ হাসিনা         আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা         প্রয়োজনে ফের বন্ধ হতে পারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ॥ দীপু মনি         কোটি কোটি শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যের বই         যানজটে বাজেটের ২০ শতাংশ ক্ষতি হচ্ছে         পাহাড় ও সমতলের ব্যবধান ক্রমেই কমছে         এবার বন্দুকযুদ্ধে প্রধান আসামি নিহত         খালেদাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেয়া হোক ॥ ফখরুল         একটি মহল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করে ফায়দা লুটতে চায়         ময়লার ট্রাকের ধাক্কায় এবার বৃদ্ধা আহত, চালাচ্ছিল হেলপার