শুক্রবার ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

প্রথম সেশনের ব্যাটিং গুরুত্বপূর্ণ ॥ মাকুনুরা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ব্যাটিংয়ে নামার পর বাংলাদেশ দল মাত্র ২৬ রানেই ৩ উইকেট হারিয়েছিল। ম্যাচের প্রথম সেশন ছিল সেটি। কিন্তু এরপরও প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটে ৫২২ রানে ইনিংস ঘোষণা করেছে। এর পেছনে বড় দুটি জুটি মূল ভূমিকা রেখেছে এবং জিম্বাবুইয়ের বোলাররাও ভাল করতে পারেনি। এমনটাই মনে করছেন জিম্বাবুইয়ের ফিল্ডিং কোচ শেফার্ড মাকুনুরা। এখনও ম্যাচ দু’দলের জন্য সাম্যাবস্থানেই আছে দাবি করে মাকুনুরা জানান, আজ প্রথম সেশনটায় জিম্বাবুইয়ের ব্যাটিং পারফর্মেন্স অনেক জরুরী। চলমান মিরপুর টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহ পেয়েছে বাংলাদেশ দল। চতুর্থ ও অষ্টম উইকেটে নতুন জুটির রেকর্ডও গড়েছে তারা। তাই ২৬ রানে ৩ উইকেট হারালেও বড় সংগ্রহ হয়েছে। এ বিষয়ে মাকুনুরা বলেন, ‘এটা ক্রিকেটের অংশ। এমন ধরনের ব্যাপারগুলো অহরহই ঘটে। ক্রিকেটে শুরুর দিকে কিছু উইকেট আপনি নিতেই পারেন, কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে পথটা পাড়ি দিতে জুটি গড়া অবধারিত।’ এর পেছনে দলের বোলিং পারফর্মেন্স খারাপ হওয়াটাকেও কারণ হিসেবে দেখছেন তিনি। মাকুনুরা বলেন, ‘আমার মনে হয় না আমরা তেমন ভাল বোলিং করেছি, কিন্তু আমি সেটাকে আত্মতুষ্টির গ-িতে ফেলতে চাই না। কেউ সে অবস্থায় ছিল না। কিন্তু যেমনটা উচিত ছিল আমরা তেমন বোলিং করতে পারিনি, তবে আমাদের অবশ্যই বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের কৃতিত্ব দিতে হবে।’

এরপরও ম্যাচে সমান অবস্থানেই আছে দু’দল এমন দাবি করলেন মাকুনুরা। কিন্তু নিজেদের অবস্থান দৃঢ় করতে নিজেদের কার্যক্রম নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় খেলাটি এখন পর্যন্ত সাম্যাবস্থানেই আছে। সবকিছুই নির্ভর করছে আমরা আগামীকাল (আজ) কিভাবে ব্যাট করব তার ওপর, বিশেষ করে প্রথম সেশনে। আমরা যদি প্রথম সেশনে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি, সেক্ষেত্রে আমরা নিজেদের অবস্থানই কিছুটা সহজ করতে পারব। আমাদের অনেক বেশি ব্যাটিং করতে হবে। আমাদের ব্যাটসম্যানরা তার (মুশফিক) কাছ থেকে দুয়েকটি বিষয় শিখতে পারে যে কিভাবে তার মতোই আমরা এই পিচে খেলার জন্য নিজেদের প্রয়োগ করব।’

শীর্ষ সংবাদ:
ফটিকছড়িতে এক মাদক ব্যবসায়ী আটক         দিনাজপুরে বাল্যবিয়ে দেয়ার চেষ্টায় কাজী কারাগারে, বরের জরিমানা         রাজধানীর শেওড়াপাড়ায় মোটরসাইকেল আরোহীকে গুলি করে আহত         আফ্রিকার ৭ দেশ থেকে ফিরলেই নিজ খরচে কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক         মানুষকে আগামী বহু বছর ধরে কোভিডের টিকা নেবার প্রয়োজন হতে পারে ॥ ড. বুর্লা         মুন্সীগঞ্জে বিস্ফোরণে দগ্ধ ভাই-বোন নিহত ॥ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে বাবা-মা         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৭ হাজার ৪২ জন         ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড ॥ আমিনবাজারে ছয় ছাত্র হত্যা         যে কোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা প্রস্তুত         এইচএসসি পরীক্ষা শুরু, ১৪ লাখ পরীক্ষার্থী         ১৬ ডিসেম্বর শপথ করাবেন শেখ হাসিনা         আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা         প্রয়োজনে ফের বন্ধ হতে পারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ॥ দীপু মনি         কোটি কোটি শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যের বই         যানজটে বাজেটের ২০ শতাংশ ক্ষতি হচ্ছে         পাহাড় ও সমতলের ব্যবধান ক্রমেই কমছে         এবার বন্দুকযুদ্ধে প্রধান আসামি নিহত         খালেদাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেয়া হোক ॥ ফখরুল         একটি মহল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করে ফায়দা লুটতে চায়         ময়লার ট্রাকের ধাক্কায় এবার বৃদ্ধা আহত, চালাচ্ছিল হেলপার