ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

ফেডারেশন কাপ ফুটবলে রহমতগঞ্জের বিরুদ্ধে ৩-১ গোলে জয়ী চট্টগ্রাম আবাহনী

পার্থক্য গড়ে দিল বিদেশীরাই

প্রকাশিত: ০৫:৫৯, ২৮ অক্টোবর ২০১৮

পার্থক্য গড়ে দিল বিদেশীরাই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অভিজ্ঞতার কাছে অনভিজ্ঞদের হার। বন্দরনগরীর দলের কাছে ডাইলপট্টিদের পরাজয়। শনিবার ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে পর্দা ওঠেছে মৌসুমসূচক ফুটবল আসর ফেডারেশন কাপ ফুটবল। উদ্বোধনী দিনে ‘এ’ গ্রুপে শুভসূচনা করেছে গত আসরের রানার্সআপ চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড। তারা ৩-১ গোলে হারায় পুরনো ঢাকার রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটিকে। বিজয়ী দল প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে ছিল। শনিবারের ম্যাচে আবাহনী জিতেছে মূলত তাদের বিদেশী ফুটবলারদের নৈপুণ্যে। দলের তিনটি গোলই করেছে বিদেশী খেলোয়াড়রা। সেক্ষেত্রে স্থানীয় ফুটবলাররা ছিলেন বেশ নিষ্প্রভ। গত আসরে অল্পের জন্য শিরোপাটা স্পর্শ করতে পারেনি বন্দরনগরীর দলটি। শনিবার কম বাজেটের দল রহমতগঞ্জের কাছ থেকে প্রথম গোলটি আদায় করে নিতে ৩৫ মিনিট অপেক্ষা করতে হয় তাদের। ম্যাচের শুরু থেকেই বেশ শক্ত রক্ষণদুর্গ গড়ে তুলে আক্রমণেও যায় ‘জায়ান্ট কিলার’ খ্যাত রহমতগঞ্জ। ২১ মিনিটে রহমতগঞ্জের বক্সের বাইরে থেকে ডান পায়ের শট নেন আবাহনীর নাইজিরিয়ান ফরোয়ার্ড আওয়ালা মাগালান। গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে পড়েও বলের নাগাল পাননি। কিন্তু কপাল ভাল রহমতগঞ্জের, বল অল্পের জন্য জড়ায়নি জালে। ৩২ মিনিটে ডানপ্রান্ত থেকে রহমতগঞ্জের অধিনায়ক ফয়সাল আহমেদের কৌণিক শট ফিরিয়ে দেন আবাহনী গোলরক্ষক মোহাম্মদ নেহাল। ৩৫ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় চট্টগ্রাম আবাহনী। প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারের ভুলে বল পেয়ে যান আবাহনীর নাইজিরিয়ান ফরোয়ার্ড মাগালান। সতীর্থের উদ্দেশে বল বাড়ান। বল পেয়ে আগুয়ান গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে মাপা শটে জালে বল পাঠান গাম্বিয়ান মিডফিল্ডার মমদৌ বাও (১-০)। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে ফিরতে আপ্রাণ চেষ্টা চালায় রহমতগঞ্জ। ৫৭ মিনিটে সফলও হয়। শাকিল আহমেদের বাড়িয়ে দেয়া বল প্রতিরোধ করার কোন চেষ্টাই করেননি আবাহনীর চার ডিফেন্ডার। বল পেয়ে দারুণ শটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান বদলি মিডফিল্ডার রাকিবুল ইসলাম (১-১)। পরের মিনিটে ডানপ্রান্ত থেকে মাগালানের শট বাধা হয়ে দাঁড়ায় রহমতগঞ্জের ডান পোস্ট। ৭২ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে আবাহনী। এবারও সফলতা আসে একই জুটি থেকে। তবে এবার বলের জোগানদাতার ভূমিকায় প্রথম গোল করা মমদৌ বাও। তার পাসে বল পেয়ে দারুণ ফিনিশিং করেন মাগালান (২-১)। ৭৬ মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ায় তারা। এবার সতীর্থের ক্রসে বল পেয়ে হেডে রহমতগঞ্জের জাল কাঁপান নাইজিরিয়ান ডিফেন্ডার মুফতা লাওয়াল (৩-১)। শেষ পর্যন্ত ম্যাচে ফিরতে পারেনি রহমতগঞ্জ। তাই প্রথম ম্যাচে পূর্ণ ৩ পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছাড়ে চট্টগ্রাম আবাহনী।
monarchmart
monarchmart