বুধবার ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৬ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দুর্দান্ত লড়াইয়ের জন্য বাংলাদেশকে অভিনন্দন ॥ কোহলি

দুর্দান্ত লড়াইয়ের জন্য বাংলাদেশকে অভিনন্দন ॥ কোহলি

অনলাইন ডেস্ক ॥ শুধুই স্বপ্নভঙ্গের যন্ত্রণা। সঙ্গে লড়ে হারার আফসোস। তামিম ইকবাল, সাকিব-আল-হাসানদের ছাড়াই ভারতকে সারাক্ষণ চাপে রাখার তৃপ্তি মাশরফি মর্তুজাদের শিবিরে। মাত্র ২২২ রানের পুঁজি নিয়েও শেষ বল পর্যন্ত লড়াই করার গর্বে ভরপুর।

এ সবেরই প্রতিফলন পাওয়া গেল মাশরাফির কথায়। যিনি উত্তেজনায় ঠাসা এশিয়া কাপ ফাইনালে হারার পরে সাংবাদিকদের বললেন, ‘‘আমাদের গর্ব হওয়া উচিত। তবে আমাদের এই ব্যর্থতা থেকে শিখতে হবে। প্রতিবারই এই ধরনের প্রতিযোগিতার শেষে এসে কোনও না কোনও জায়গায় ভুল করে ফেলছি আমরা। আজ আমরা শুরুটা ভাল করেছিলাম। কিন্তু সে ভাবে এগোতে পারিনি। তা সত্ত্বেও নিজেদের নিয়ন্ত্রণেই রেখেছিলাম সব কিছু। কিন্তু একেবারে শেষে সেই নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে পারিনি।’’

বোলারদের প্রশংসা করলেও দলের স্পিনারদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘‘আমাদের স্পিনাররা মাঝের ওভারগুলোতে ভাল বোলিং করলে হয়তো ছবিটা অন্য রকম হত। উইকেটে বল ঘুরলে তো স্পিনারদের এগিয়ে দিতেই হবে। মেহেদি সারা টুর্নামেন্টে ভাল বোলিং করেছে, মাহমুদুল্লাহ-ও গত ম্যাচে ভাল বোলিং করেছিল। নাজমুল ইসলামেরও আরও ভাল বল করা উচিত ছিল। কিন্তু প্রতিপক্ষের লক্ষ্য যেখানে মাত্র ২২৩, সেখানে আর বোলারদের দোষ দিই বা কী করে?’’

শেষ ওভারের লড়াই নিয়ে মাশরফি বলেন, ‘‘আমরা চাইছিলাম ওদের কোনও একজন ব্যাটসম্যান একটা বল মিসহিট করুক। পঞ্চম বলে কুলদীপ সেটা করেওছিল, স্টাম্পে লাগতে পারত সেটা। কিন্তু আমাদের ভাগ্য ভাল ছিল না।’’ বাংলাদেশ অধিনায়ক স্বীকার করে নেন ৩০-৪০ রান কম তোলেন তাঁরা। বলেন, ‘‘২১ ওভারে বিনা উইকেটে ১২০ রান তুলেছিলাম আমরা। পরের ১৪-১৫ ওভারে যদি ঝুঁকি না নিয়ে ব্যাট করতাম তা হলে হয়তো আরও ৬০-৭০ রান উঠত, তবে একটা উইকেট পড়ত বড়জোর। মুশফিক ভাল ব্যাট করতে পারেনি। অনেকগুলো রান আউট হয়েছে। তীব্রতা মানে বড় শট খেলতে গিয়ে আউট হওয়া নয়। ভাল শুরু করলে তা বজায় রাখতে হয়। এই উইকেটে আমরা ২৫০-২৬০ রান তুলতেই পারতাম।’’

বাংলাদেশের এই লড়াইয়ের জন্য তাদের প্রশংসা করেছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিও। টুইটারে তিনি নিজের দলকে অভিনন্দন জানানোর পরে লেখেন, ‘‘দুর্দান্ত লড়াইয়ের জন্য বাংলাদেশকে অভিনন্দন।’’ এমনকী টুইটারে বীরেন্দ্র সেবাগ, ভিভিএস লক্ষ্মণরাও বাংলাদেশের প্রশংসা করেন। এক সময় বাংলাদেশকে তাচ্ছিল্য করা সেবাগ লেখেন, ‘‘সাকিব-তামিমদের ছাড়াও যে লড়াইটা করল বাংলাদেশ, সে জন্য ওদের টুপি খুলে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আর লক্ষ্মণ লেখেন, ‘‘বাংলাদেশ দৃঢ় মনোভাব দেখিয়ে দুর্দান্ত লড়াই করেছে। কখনও হাল না ছেড়ে নিজেদের উজাড় করে দিয়েছে। এই মানসিকতার জন্য অভিনন্দন।’’

লড়াকু এই মনোভাবই অদূর ভবিষ্যতে মাশরাফিদের সাফল্য এনে দিতে সাহায্য করবে বলে আশা সে দেশের ক্রিকেটমহলের।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

শীর্ষ সংবাদ:
শাবি শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙালেন জাফর ইকবাল         নীলফামারীতে ট্রেন অটো সংঘর্ষে ইপিজেডের ৩ নারী শ্রমিক নিহত         অস্থির চালের বাজার ॥ রেকর্ড মজুদেও কমছে না দাম         বারবার প্রকল্প সংশোধন করা যাবে না ॥ প্রধানমন্ত্রী         করোনা শনাক্ত ১৬ হাজার ছাড়িয়েছে         শাবির জটিলতা নিরসনের কোন লক্ষণ নেই         সাড়ে চার হাজার কোটি টাকার ১০ প্রকল্প অনুমোদন একনেকে         বিএনপি দেশের ক্ষতির জন্য লবিস্ট নিয়োগ করেছে ॥ ড. মোমেন         বেসরকারী হাসপাতালকে প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর         সারাদেশে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে চালু হচ্ছে বিট পুলিশিং         বাণিজ্যমেলা বন্ধ ও বইমেলা পেছানোর সুপারিশ         টেকনিক্যাল ত্রুটি ॥ দ্বিতীয় মামলার ফাইনাল রিপোর্ট, প্রথমটি চলবে         স্ক্র্যাপ ও পুরনো জাহাজের দাম বেড়েছে, রডের বাজার অস্থিতিশীল         পার্বত্য চট্টগ্রামের সব ইটভাঁটির কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ         মানবাধিকার লঙ্ঘনের মতো কোন ঘটনা ঘটেনি         তাড়াহুড়া ইসি নিয়োগ আইন টিকে থাকার নীলনক্সা ॥ ফখরুল         দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দুর্ভোগ সারাবছর         বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমের মুখোমুখি হচ্ছেন সিইসি কেএম নূরুল হুদা         দেশের অর্থনীতিতে গতিসঞ্চারে ভূমিকা রাখতে কাস্টমস কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির         করোনায় মৃত্যু ১৮, শনাক্ত ১৬ হাজার