বুধবার ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দুই দেশের ফের এক হওয়া উচিত ॥ মুন জায়ে ইন

  • উত্তর কোরিয়ায় ঐতিহাসিক ভাষণ

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে উত্তর কোরিয়ার জনগণের সামনে দেয়া ভাষণে ‘দুই কোরিয়ার ফের এক দেশ হওয়া উচিত’ বলে মন্তব্য করেছেন মুন জায়ে ইন। বুধবার পিয়ংইয়ংয়ের স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় মে ডে স্টেডিয়ামে উত্তর কোরিয়ার বৃহৎ ক্রীড়ানৈপুণ্য প্রদর্শনীর অনুষ্ঠানে দক্ষিণের প্রেসিডেন্ট ভাষণ দেয়ার এ অভূতপূর্ব সুযোগ পান। বিবিসি।

সাত মিনিটের ভাষণে মুন বলেন, আমি প্রস্তাব করছি, আমাদের উচিত গত ৭০ বছরের শত্রুতা সম্পূর্ণ শেষ করা এবং ফের এক হওয়ার জন্য বড় ধরনের শান্তির পদক্ষেপ নেয়া। ভাষণে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের প্রসঙ্গও আনেন মুন, পারমাণবিক অস্ত্র ‘স্থায়ীভাবে’ অপসারণের আহ্বান জানান তিনি। তিন দিনের পিয়ংইয়ং সফরে এর আগে মুন উত্তরের নেতা কিম জং উনের সঙ্গে এক ঐতিহাসিক চুক্তিতেও স্বাক্ষর করেছেন। আরিরাং গেমস নামের যে বিশাল ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শনীর অনুষ্ঠানে মুন ভাষণ দিয়েছেন, সেটি উত্তরের সবচেয়ে বড় প্রচারধর্মী আয়োজন। মনোমুগ্ধকর ছন্দোবদ্ধ নৃত্য ও শারীরিক কসরতের মাধ্যমে এ আয়োজনে হাজার হাজার উত্তর কোরীয় তাদের ইতিহাস ও উপকথা তুলে ধরে। চলতি বছর উত্তর কোরিয়া তাদের দেশের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেছে।

পিয়ংইয়ংয়ের মে ডে স্টেডিয়ামে দুই নেতার প্রবেশের সময় দেড় লাখ উত্তর কোরীয় নাগরিক দাঁড়িয়ে তাদের অভ্যর্থনা জানায় বলে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। মুনের ভাষণ দক্ষিণ কোরিয়ায় সরাসরি সম্প্রচারিত হলেও উত্তরে হয়নি। উত্তরের জনগণের উদ্দেশে দেয়া দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের এ ভাষণকে ‘নজিরবিহীন’ বলছেন পর্যবেক্ষকরা।

দক্ষিণের প্রেসিডেন্টের পিয়ংইয়ং সফরকে স্মরণীয় করে রাখতে মুন ও কিম চীন সীমান্তের কাছে মাউন্ট পিকতুও ভ্রমণ করেন। কোরীয় উপাখ্যানে গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে রাখা এ পাহাড়ের কথা আছে দক্ষিণের জাতীয় সঙ্গীতে, পিকতুর উল্লেখ পাওয়া যাবে উত্তরের প্রায় সকল প্রচারেও।

শীর্ষ সংবাদ:
বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনে বাংলাদেশ-চীনের চুক্তি স্বাক্ষর         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২ জনের মৃত্যু         এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষা উপলক্ষে যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ডিএমপি         ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাঙালীর আশা-আকাঙ্ক্ষার এক অনন্য বাতিঘর’         ‘ডিজিটাল আর্কাইভিং ও ই-ফাইলিং বিচারপ্রার্থীর একসেস টু জাস্টিস নিশ্চিতকরণ ত্বরান্বিত করবে’         প্রথম বারের মতো বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে যাচ্ছে ডিএনসিসি         গরুর সঙ্গে বিমানের ধাক্কা ॥ চার আনসারকে প্রত্যাহার, তদন্ত কমিটি গঠন         ‘আফ্রিকা থেকে এলেই বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন’         দেশ থেকে পালাতে চেয়েছিলেন রাজশাহীর মেয়র আব্বাস         ঢাবির শতবর্ষ উদযাপন শুরু         রাস্তায় নেমে গাড়ি ভাঙচুর করা ছাত্রদের কাজ না ॥ প্রধানমন্ত্রী         অস্ট্রেলিয়ায় নারী পার্লামেন্ট সদস্যদের ৬৩ শতাংশই যৌন হয়রানির শিকার         বোট ক্লাব মামলা ॥ সব আসামির নাম না থাকায় পরীমনির আপত্তি         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে জবির শোক         শতাধিক সাবেক নিরাপত্তা সদস্যকে খুন করেছে তালেবান ॥ এইচআরডব্লিউ         ঢাকা মেডিক্যালে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামির মৃত্যু         কুয়াকাটায় টোয়াকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত         ওমিক্রন ঠেকাতে প্রবাসীদের আসতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে         বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকের ধাক্কায় দুই মটরসাইকেল অরোহী নিহত         ডাসারে মোটরসাইকেল চাপায় ইউপি সদস্য নিহত