রবিবার ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মেরুদ-ের হাড়ের ক্ষয়রোগ

  • ডাঃ হারাধন দেবনাথ

মেরদ-ের হাড় বা শরীরের যে কোন হাড়ের যদি ক্যালসিয়ামের ঘনত্ব বা ইগউ (Bone Mineral Density) কমে যায়, তাকে Osteoporosis বলে। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাড়ের ক্ষয়ও বৃদ্ধি পায়। হাড়ের ক্ষয়রোগ বা Osteoporosis মানুষের মধ্যে শতকরা ১২ জন পুরুষকে এবং শতকরা ৩০ জন মহিলাকে ধভভবপঃ করে। ফলে মেরুদ-ের হাড় ভেঙ্গে বসে যায় এবং মেরুদ- Instable হয়ে পড়ে। এটাকে বলে Compressive বা Wedge fracture। হাড়ের ক্ষয়রোগ বা Osteoporosis হলে সাড়া শরীরের ইগউ (Bone Mineral Density) কমে যায়। ফলে উরুর হাড়ের হবপশ বা (neck of femur ভেঙ্গে যায়। এর ফলে মানুষের এক পা Short হয়ে যায়। দুই পা একসঙ্গে শুয়ে থাকলে ঝযড়ৎঃ খবম বোঝা যায়।

সাধারণত মেয়েদের মাসিক বন্ধ হওয়ার পর Osteoporosis হয়ে থাকে। কারণ এই সময় হাড়ে ক্যালসিয়ামের ঘনত্ব কমে যায়। তাছাড়া এ সময় হাড়ের ক্ষয় দ্রুততমভাবে বৃদ্ধি পায়। শরীরের হাড়ের ক্যালসিয়ামের পরিমাণ ২০-৪০ বছর বয়স পর্যন্ত বাড়তে থাকে। কিন্তু এর পরে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ কমতে থাকে। মেয়েদের ক্ষেত্রে মাসিক বন্ধ হওয়ার পর ইস্ট্রোজেন নামক হরমোনের অভাব হয়। যার ফলে হাড়ে ক্যালসিয়াম ক্ষয় বেশি হয়। কারও ক্ষেত্রে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ কমে যাওয়ার জন্য কিছু জিন দায়ী থাকে। হাড়ের বৃদ্ধির সময় নিয়মিত ব্যায়াম ও প্রচুর ক্যালসিয়াম জাতীয় খাবার খেলে শরীরের হাড় শক্ত থাকে। ধূমপান ও অতিরিক্ত মদ্যপান হাড়ের ক্যালসিয়াম ক্ষয়ের অন্যতম কারণ। বয়স্ক পুরুষের ক্ষেত্রে Cortisol ওষুধ খেলে ও টেস্টোস্টেরন নামক হরমোন শরীরে তৈরি কম হলে, হাড় ক্ষয় বৃদ্ধি পায়। তাছাড়া খিচুনির ওষুধ, ঐবঢ়ধৎরহ, ঘুমের ওষুধ, অতিরিক্ত ঞযুৎড়ীরহ, ক্যালসিয়ামের পরিমাণ কমিয়ে ফেলে।

রোগের লক্ষণ : রোগীর মেরুদ-ের হাড়ের ভেতর সরপৎড় ভৎধপঃঁৎব হয়। ফলে কোমড় ব্যথ্যা, পা ঝযড়ৎঃ হয়ে যাওয়া, সামনের দিকে মেরুদ- নুয়ে যাওয়া ইত্যাদি রোগ হতে পারে। মেরুদ- ভেঙ্গে গেলে রোগীর পা প্যারালাইসিস, পায়খানা, প্রস্রাব আটকে যাওয়া, সেক্স পাওয়ার কমে যাওয়াসহ নানা রোগে আক্রান্ত হতে পারে।

চিকিৎসা : কথায় বলে Prevention is better than cure. এই রোগ প্রতিরোধ করতে হলে নিয়মিত ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। বিশেষ করে ছোট বেলায় প্রচুর খেলাধুলা ও দুধ, মাংস, ছোট মাছ প্রচুর পরিমাণ খেতে হবে। আর রোগ হয়ে গেলে ট্যাবলেট ক্যালসিয়াম ১৫০০ মিলিগ্রাম করে প্রতিদিন খেতে হবে, নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে। Osteoporosis ডায়াগনসিস্ করার জন্য ইগউ (Bone Mineral Density) পরীক্ষা করতে হবে। যদি ইগউ (Bone Mineral Density) তে T. Score <-2.5 হয় তাহলে ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা করতে হবে। যেমন- Alendronate, Reserdonet tablet প্রতি সপ্তাহে ৩৫ মিলিগ্রাম করে দিতে হবে। তাছাড়া হরমোন থেরাপি দিতে হবে। মেরুদ-ের হাড় ভেঙ্গে গেলে তা নিউরোসার্জনের সাহায্যে অপারেশন করতে হবে। তাছাড়া কোন কোন ক্ষেত্রে Kyphoplasty নামক অপারেশন করতে হবে।

লেখক : সহযোগী অধ্যাপক

নিউরোসার্জারি

বিএসএমএমইউ, ঢাকা

মোবাইল : ০১৭১১ ৩৫৪১২০

শীর্ষ সংবাদ:
অবিশ্বাস্য অর্জন ॥ বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল         বাসযোগ্য পৃথিবী গড়তে ঐক্য চাই         বঙ্গবন্ধুর শাসনব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করুন         ছাত্রলীগ নেতাসহ ৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার         শক্তি হারিয়ে জাওয়াদ গভীর নিম্নচাপে পরিণত         সড়কে অনিয়মের বিরুদ্ধে লাল কার্ড প্রদর্শন শিক্ষার্থীদের         এলডিসি উত্তরণে ১০ বছরের মাস্টারপ্ল্যান         উন্নয়নে পাকিস্তান আমাদের ধারে কাছেও নেই         আমদানির জ্বালানি তেল আর লাইটারিং করতে হবে না         পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থা রাজধানীর ৮০ ভাগ ভবনে নেই         চট্টগ্রামে অটোরিক্সা-ডেমু ট্রেন-বাস সংঘর্ষে পুলিশসহ হত ৩         খালেদাকে বিদেশ নিতে কূটনৈতিক পাড়ায় বিএনপির দৌড়ঝাঁপ         আন্দোলনেই খালেদার বিদেশে চিকিৎসা নিশ্চিত করা হবে         বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় ঐক্যের বিকল্প নেই ॥ রাষ্ট্রপতি         করোনা ভাইরাসে আরও ৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৭৬         ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ ॥ সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত         বৈধ সরকারের পতন ঘটানো যাবে না: কৃষিমন্ত্রী         ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ ॥ সেন্টমার্টিন রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা         কুয়েটের শিক্ষকের মৃত্যু ॥ ৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার         ১৬ জানুয়ারি আমরা প্রধানমন্ত্রীকে নৌকা উপহার দেব ॥ আইভী