ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

আদিবাসী সাঁওতালদের ৭ দফা দাবিতে গাইবান্ধায় বিক্ষোভ

প্রকাশিত: ০০:১০, ২২ এপ্রিল ২০১৮

 আদিবাসী সাঁওতালদের ৭ দফা দাবিতে গাইবান্ধায় বিক্ষোভ

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা ॥ গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্মে পুড়িয়ে দেয়া আদিবাসী সাঁওতালদের স্কুল পুননির্মাণ ও ৭ দফা দাবিতে আজ রবিবার বিক্ষোভ মিছিল ও জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি পালিত হয়। সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম-ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটি, আদিবাসী বাঙালী সংহতি পরিষদ, বাংলাদেশ আদিবাসী ইউনিয়ন, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ ও জনউদ্যোগ যৌথভাবে এ কর্মসুচির আয়োজন করে। পরে গাইবান্ধা শহরের ১নং রেলগেট থেকে বিভিন্ন ফ্যাস্টুন, পতাকা হাতে নিয়ে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে সমবেত হয়। সেখানে এক সাঁওতাল-বাঙালী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম-ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ফিলিমন বাসকের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কমিউনিস্ট পার্টি জেলা সভাপতি মিহির ঘোষ, সহ-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মুরাদজ্জামান রব্বানী, আদিবাসী বাঙালী সংহতি পরিষদের আহ্বায়ক অ্যাড. সিরাজুল ইসলাম বাবু, জনউদ্যেগের সদস্য সচিব প্রবীর চক্রবর্তীসহ তাজুল ইসলাম, জাফরুল ইসলাম প্রধান, আব্দুল খালেক, স্বপন শেখ, থমাস হেমব্রম, রাফায়েল হাসদা, সুফল হেমব্রম, আদিবাসী নেত্রী প্রিসিলা মুর্মু, রোমেলা কিসকু, অলিভিয়া মার্ডি প্রমুখ। স্মারকলিপি গ্রহণ করে জেলা প্রশাসক গৌতম চন্দ্র পাল বলেন, তিনি দাবিচগুলো যথাযথ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হবে। স্কুল পুণ:প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে তিনি অত্র এলাকা পরিদর্শন করে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ও সরকারি সহায়তায় সাঁওতালদের ভাষায় শিক্ষা প্রদাদের জন্য পৃথক একটি বিদ্যালয় গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ করেন। সমাবেশ শেষে সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ফিলিমন বাসকে জানান আগামী ৩০ জুন গোবিন্দগঞ্জ হাইস্কুল মাঠে সাঁওতাল বিদ্রোহ দিবস উপলক্ষে আদিবাসী সমাবেশসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে।