শুক্রবার ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বায়ান্ন বাজার তিপ্পান্ন গলি

বায়ান্ন বাজার তিপ্পান্ন গলি

মোরসালিন মিজান ॥ ফেব্রুয়ারি বড় আবেগের মাস। ১৯৫২ সালের এই মাসে মায়ের ভাষার জন্য প্রাণ দিয়েছিল বাঙালী। হ্যাঁ, বেদনার। তার চেয়ে বেশি গৌরবের। সেই আবেগ সেই গৌরবের ইতিহাস এখন গভীরভাবে সামনে আসছে। রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন অনুষ্ঠান থেকে, মঞ্চ থেকে উচ্চারিত হচ্ছে সালাম রফিক শফিক বরকতদের নাম। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে শুরু হয়েছে একুশের অনুষ্ঠানমালা। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রতিদিনই থাকবে নাচ গান কবিতা ও নাটকের পরিবেশনা। এসব পরিবেশনা থেকে ভাষা আন্দোলন ও বাঙালীর সংগ্রামের ইতিহাস তুলে ধরা হবে। অন্য আয়োজনগুলোও চলছে যথারীতি। সামনে আবার ফাগুনের দিন। হাতছানী দিয়ে ডাকছে বসন্ত।

তবে এই মাসে বইমেলাই সবচেয়ে বড় আলোচনা। বায়ান্ন বাজার তিপ্পান্ন গলির শহর ঢাকায় মাসের প্রথম দিন থেকেই চলছে বই উৎসব। মূল মেলা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণেও আছে কিছু প্রতিষ্ঠান। উভয় অংশেই বিভিন্ন বয়সী মানুষের ভিড়। দূর-দূরান্ত থেকে পাঠক আসছেন। বই দেখছেন। কিনছেন। সেভাবেই স্টল প্যাভিলিয়ন সাজিয়েছেন প্রকাশকরা। মেলায় প্রতিদিন আসছে নতুন বই। গত এক সপ্তাহে মেলায় এসেছে ৭২৯টি নতুন বই। বৃহস্পতিবার অষ্টম দিনে নতুন বই এসেছে ৬৪টি। বিক্রিও ভাল। প্রথম সপ্তাহে বাংলা একাডেমির নিজস্ব স্টলে বিক্রির পরিমাণ ছিল ২১ লাখ ৩ হাজার ২৬৪ টাকা। এভাবে ক্রমে জমে উঠছে মেলা।

মেলা মঞ্চ ॥ বিকেলে গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় ‘এ বি এম হবিবুল্লাহ ॥ মমতাজুর রহমান তরফদার চৌধুরী’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। এতে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আকবর আলি খান ও মেসবাহ কামাল। আলোচনা করেন অজয় রায়, ড. ফিরোজ মাহমুদ ও এম আসহাবুর রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক পারভীন হাসান। আকবর আলি খান বলেন, ড. হাবিবুল্লাহর গবেষণা থেকে দেখা যায় তুর্কী সুলতানরা ভিন্নমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ছিলেন। দিল্লীর সুলতানদের সাফল্য সম্পর্কে তিনি যে চিত্র এঁকেছেন তা আজও প্রাসঙ্গিক। দক্ষিণ এশিয়ার রাষ্ট্রগুলো দিল্লীর সুলতানদের রাষ্ট্রপরিচালনার অভিজ্ঞতা স্মরণ করে দেশ চালালে অনায়াসেই সুশাসনের দিকে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব। পাকিস্তানের সাম্প্রদায়িক ইতিহাসচর্চার প্রচ- হুমকির কাছে ড. হাবিবুল্লাহ আত্মসমর্পণ করেননি। তিনি প্রগতিশীল চেতনার আলোকবর্তিকাকে লালন ও রক্ষা করেছেন। তাঁর লেখা শুধু বিভাগপূর্ব ভারত বা পাকিস্তানী প্রজন্মের জন্যই প্রাসঙ্গিক নয়, তাঁর বক্তব্য আজকের প্রজন্মের জন্যও সমভাবে সত্য। ইতিহাসচর্চার ক্ষেত্রে তিনি অজ্ঞানতার তিমিরকে চূর্ণ করেছেন।

মেসবাহ কামাল বলেন, ইতিহাসচর্চার গতানুগতিক ধারাকে অতিক্রম করে বিজ্ঞানসম্মত ও প্রগতিশীলতার আলোকে মধ্যযুগের ইতিহাসকে পুনঃগঠন করেছেন মমতাজুর রহমান তরফদার। মধ্যযুগের কাব্যচর্চা থেকে শুরু করে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিচর্চাও ছিল তাঁর ইতিহাস-গবেষণার বিষয়বস্তু।

আলোচক ড. ফিরোজ মাহমুদ বলেন, ইতিহাসচর্চায় বহুমাত্রিকতার ধারক ছিলেন এ বি এম হবিবুল্লাহ এবং মমতাজুর রহমান তরফদার। মধ্যযুগের ভারতীয় ইতিহাসকে প্রগতিশীল ও বিজ্ঞানসম্মতভাবে আমাদের কাছে তুলে ধরেছেন তারা।

শীর্ষ সংবাদ:
বরিশালে পৃথক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত         সন্ত্রাসীদের হামলায় বুরকিনা ফাসোয় নিহত ৫০         বাজারে ডিমসহ বেড়েছে আটা, সবজি ও মুরগির দাম         অভিনেত্রী মঞ্জুষা নিয়োগীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার         মিয়ানমারে বেসামরিক নাগরিকদের সুরক্ষা একটি গুরুতর চ্যালেঞ্জ ॥ রাবাব ফাতিমা         প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপির নেতাকর্মীরা ॥ সতর্ক অবস্থানে পুলিশ         নীলফামারীতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে, আহত ৩২         পাক সরকারের রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আসামির নাম মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় নেই         ইমরান খানসহ তেহরিক নেতাদের বিরুদ্ধে দুটি মামলা         বালিয়াতলীর ফেরি পারাপার নয় বছর ধরে বন্ধ         মুশফিকের আউটের পর সাকিব নেমেই আক্রমনাত্মক         আজ থেকে ৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা শুরু হয়েছে         পেরুতে ৭ দশমিক ২ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভূত         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন এক হাজার ৪১৩ জন         অবৈধ ক্লিনিকের দৌরাত্ম্য ॥ ভুল চিকিৎসায় প্রতিনিয়ত মৃত্যু         ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য উন্নত জীবন নিশ্চিত করতে চাই         জঙ্গী নেতা আবদুল হাই যেভাবে ১৭ বছর আত্মগোপনে ছিলেন         জামিনে মুক্ত দুর্ধর্ষ অপরাধীদের ওপর চলবে নজরদারি         পাচার করা অর্থ ফিরিয়ে আনলে সাধারণ ক্ষমা ॥ অর্থমন্ত্রী         সিরাজগঞ্জে ট্রাক-লেগুনা সংঘর্ষ ॥ নাটোরের ৫ কৃষি শ্রমিক নিহত