ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১

পাঁচবিবিতে কালী মন্দিরে মুর্তি ভাংচুর॥ আটক ১

প্রকাশিত: ২২:১৯, ২২ জানুয়ারি ২০১৮

পাঁচবিবিতে কালী মন্দিরে মুর্তি ভাংচুর॥ আটক ১

নিজস্ব সংবাদদাতা, জয়পুরহাট ॥ পাঁচবিবি রেল ষ্টেশন সংগলগ্ন সার্বজনীন শ্রী শ্রী মুন্ডা কালী মন্দিরে ঢুকে কালী ও শিবের মুর্তি ভাঙ্গার সময় স্থানীয় জনগন একজন কে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে। আটক কৃত ব্যাক্তি নীলফামারী জেলার সদর থানার পঞ্চপুকুর ইউনিয়নের হাতীপাড়া গ্রামের একরামুল হকের পুত্র মোঃ ওয়ালী উল্লাহ (৩৫)। সোমবার ভোরে মন্দিরে ঢুকে মুর্তি ভাঙ্গার সময় ওয়ালী উল্লাহকে আটক করা হয়। শয়তান কে তাড়ানোর জন্যই মুর্তি ভাঙ্গা হয়েছে বলে দাবী করেন থানা হেফাজতে থাকা আটক ওয়ালী উল্লাহ। থানা ও প্রতক্ষ্যদর্শী সুত্রে জানা যায় সোমবার ভোর রাত সাড়ে পাঁচটার দিকে পাঁচবিবি স্টেসনের উত্তর প্রান্তে প্লাটফরম সংলগ্ন সার্বজনীন মুন্ডা কালী মন্দিরের তালা ভাঙ্গার শব্দ পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দা মহাদেব সিং গিয়ে দেখতে পান ওয়ালী উল্লাহ মন্দিরে ঢুকে মুর্তি ভাঙ্গছে। মহাদেব সিং তাকে জাপটে ধরে চিৎকার করলে আশে পাশের লোকজন এসে তাকে আটক করে থানা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ওয়ালী উল্লাহকে থানায় নিয়ে যায়। এই ঘটনায় মন্দির কমিটির সভাপতি শ্রী কালী বাবুর নেতৃত্বে সকাল আটটার দিকে আটক ওয়ালী উল্লার বিচার দাবী করে শহরে মিছিল সমাবেশ করে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন। পাঁচবিবি থানার ওসি ফরিদ হোসেন জানান ঘটনাস্থল রেলওয়ে থানার অধিনে হওয়ায় সান্তাহার রেলওয়ে থানায় মামলা দায়ের হবে। মন্দির এলাকায় তদন্ত করতে আসা সান্তাহার রেলওয়ে থানার এস আই ইমায়েদুল জাহেদী বলেন মন্দির কমিটির সভাপতি কে নিয়ে রেলওয়ে থানায় মামলা দায়ের সহ আটক আসামী কে জয়পুরহাট আদালতে হস্তান্তর করা হবে। জয়পুরহাট পুলিশ সুপার মোঃ রশিদুল হাসান জানান রেলওয়ে থানায় মামলা হলেও ঘটনার বিষয়ে জেলা পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে এবং আটক আসামীর বিষয়ে প্রমান সাপেক্ষে পুলিশ সব ধরনের আইনি পদক্ষেপ গ্রহন করবে। মন্দির এলাকা পরিদর্শন করেছে স্থানীয় সংসদ সদস্য এ্যাড. সামছুল আলম দুদু, পুলিশ সুপার মোঃ রশিদুল হাসান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিবুল আলম, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের জেলা ও উপজেলা নেতৃবৃন্দ। এ দিকে মুর্তি ভাঙ্গার এই ঘটনার বিচার ও প্রতিবাদে সোমবার বিকাল ৩টায় মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানান হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের উপজেলা শাখার সভাপতি সুনিল রায়।
×