ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

রেজা নওফল হায়দার

এক বছর পেরিয়ে চকডাস্ট স্টুডিও

প্রকাশিত: ০৫:১৬, ২৮ অক্টোবর ২০১৭

এক বছর পেরিয়ে চকডাস্ট স্টুডিও

চকডাস্ট স্টুডিও পার করল একটি বছর। গত একটি বছরে দেশের শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানটি বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য প্রজেক্ট শেষ করতে পেরেছে। তৈরি হয়েছে মজবুত টিম বন্ডিং। এই মাসেই প্রথমার্ধে জাঁজজমক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি পালন করে তাদের একবছর পূর্তি। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে প্রতিষ্ঠানটির সাউন্ড আটিস্ট শাহরুখ জে. টি পারভেজ জনকণ্ঠকে বলেন তার সাফল্যের কথা। নিজেই এই প্রতিষ্ঠানের তিনটি গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করছেন। তিনি একাধারে কাজ করছেন শব্দ প্রকৌশলী, ফলি আটিস্ট (কৃত্রিম শব্দ যোযন) এবং সাউন্ড প্রডিসার হিসেবে। সাউন্ড তৈরিতে এরই মধ্যে দেখিয়েছেন যোগ্যতা। ভবিষ্যতে তিনি সিডিএসকে আরও বেশি কাজ উপহার দেবেন বলে জানান। সিডিএস এই বছরেই নির্মাণ করেছে অনিষ্ট নামের একটি শর্টফিল্ম। যেখানে প্রধান শব্দ নির্মাণ শিল্পী হিসেবে সুনাম কুড়িয়েছেন। তারই সঙ্গে আছেন আসিফ রহমান। যিনি এই প্রতিষ্ঠানে সিজি সুপারভাইজার হিসেবে নিজেকে বিকোশিত করেছেন। আসিফ তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, সিডিএস এমন একটি প্রতিষ্ঠান, যে তারা বাণিজ্যিকভাবে যে কোন প্রডাকশনের কাজ করতে পারে। ভবিষ্যতে আরও মানসম্পন্ন কাজ করতে সক্ষম সিডিএস। ইশরাক আজিজ, এ্যানিমেটরদের গৌরবজনক প্রতিষ্ঠান আইটার প্রকাশনা সম্পাদক পদে আছেন। মেধার সবটুকু দিয়ে চকডাস্ট স্টুডিওতে কাজ করছেন। তিনি বলেন, তার কর্মদক্ষতায় তিনি তৈরি করছেন একদল দক্ষ কর্মী। যারা সিডিএসকে ভবিষ্যতে সামনের দিক থেকে নেতৃত্ব দেবেন। তিনি আরও বলেন, তাদের প্রতিষ্ঠানটিতে শিক্ষার্থীরা কর্মবান্ধব পরিবেশে নিজেকে মেলে ধরতে পারছেন, যার কারণে প্রতিষ্ঠানটি দেশের অন্য সব প্রতিষ্ঠান থেকে একেবারে আলাদা। এই প্রতিষ্ঠানের মার্কেটিং ম্যানেজার ও আর্ট সুভারভাইজার এ.আর তামজিদ জনকণ্ঠের প্রতিনিধিকে জানান যে, একটি দক্ষ টিমই পারে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে। সিডিএসএর সেই দক্ষ কর্মী আছে। দেশ ও দেশের বাইরে আরো কাজ করে লাভজনক পর্যায়ে নিয়ে যেতে চান তিনি। চকডাস্ট স্টুডিওর প্রথম দিক থেকে সকল বিষয়ে সাহায্য সহযোগিতা করেছেন প্রতিষ্ঠানটির ফিনান্স ম্যানেজার মোঃ মাইনুল ইসলাম। তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠানটির পরিবেশ যেকোন বিশ্বমানের প্রতিষ্ঠানে মতোই। এখানে আছে কাজ করার বিশাল সুযোগ। তিনি আরও বলেন, অচিরেই সিডিএস লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে এমটিই দেখতে চান। এই প্রতিষ্ঠানের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য রনিত জানান, তাদের প্রতিষ্ঠানটিতে কাজ করার জন্য রয়েছে বিশাল সুযোগ আর কর্মবান্ধব পরিবেশ। তিনি আগামী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নিজেকে মেলে ধরতে চান।
monarchmart
monarchmart