বুধবার ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ছুরি-চাপাতির খোঁজখবর

কারও কথা বলার সময় নেই। কেউ আগুনে তেতে ওঠা লোহার ওপর পাঁচ কেজি ওজনের হাতুড়ি দিয়ে পেটাচ্ছেন। দিচ্ছেন দা, বঁটি আর চাকু চাপাতির আকৃতি। কেউ বা কয়লার আগুনে হাপর দিয়ে বাতাস দিচ্ছেন। ঈদ-উল- আযহাকে সামনে রেখে কর্মকাররা এখন খুবই ব্যস্ত সময় পার করছেন। তাই কামারদের এখন দিনরাত খেটে কাজ করতে হচ্ছে। প্রস্তুতি চলছে নতুন সাজে। নতুন বঁটি, চাকু, চাপাতি যেমন বিক্রি হচ্ছে, তেমনি পুরনোগুলোর শান দিতে আসছেন অনেকেই।

ক্রেতারা ধরে দেখছেন। কেউ আবার দেখেই শেষ নয়। কিনছেন কিংবা ফরমায়েশ দিচ্ছেন। দোকানি কৃষ্ণ কর্মকার জানান, কোরবানির ঈদে ছুরি আর চাপাতি বেশি চলে। হুজুরেরা গরু জবাইয়ের জন্য ১৮ ইঞ্চি ছুরি ব্যবহার করেন। এ সময় এটাও বেশ ভাল চলে। মজুরিসহ এর দাম পড়বে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকার কিছু বেশি। বঁটি ও চাপাতি এক কেজি ওজনের মজুরিসহ ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা। চামড়া আলাদা করার ছোট ছুরি ৪০ থেকে ৬০ টাকা। শাণ ৭০ থেকে ১৩০ টাকা লাগবে। গত বছরের ঈদের চেয়ে এবার চাপাতি আর ছুরির দাম একটু বেশি। এগুলোর দাম এবার প্রায় ৬০ থেকে ১০০ টাকা বেশি লাগছে।

এ বিষয়ে কৃষ্ণ কর্মকার বলেন, সবকিছুর দাম বেশি। ঈদের সময় তো একটু বাড়তি আয় করব। এ ছাড়া ৪৫ কেজি ওজনের এক বস্তা কয়লা এখন সাড়ে ৬০০ টাকায় কিনতে হয়। গত বছরের চেয়ে কায়লার দাম একটু বেড়েছে। লোহা দুই ধরনের।

নরম লোহা ৫৫ থেকে ৭৫ টাকা দরে এবং শক্তটা ১২৫ থেকে ১৮০ টাকা দরে কিনতে হয়। আর এর সঙ্গে মজুরি রয়েছে। পুরানা এই বাজারের পাশের দোকানের কর্মকার সুধী সুন্দর দাসের সঙ্গেও কথা হয়। তিনি জানান, ঈদ উপলক্ষে ফরমায়েশ আসছে। বাড়তি প্রস্তুতিও রয়েছে তাদের। পুরান ঢাকার ঐতিহ্যের সঙ্গে কোরবানির ঈদের আয়োজনটা যেন এখানে এলে টের পাওয়া যায়। ঈদের বেশ আগে থেকেই এর প্রস্তুতিও শুরু হয়ে যায়। ঘরের কোনা থেকে চাপাতি চাকু খুঁজে বের করে কামারবাড়িতে শাণ দিতে পাঠানো হয় কিংবা নতুন করে তৈরি করতেও কামারবাড়িতে যেতে হয়। তাই পুরান ঢাকার কামারবাড়ির ব্যস্ততা এ সময় বেশিই থাকে।

এদিকে ব্যস্ততার কমতি নেই কাওরান বাজারের কামারের দোকানগুলোতেও। এখানে পাশাপাশি প্রায় ২৪টি দোকান রয়েছে। কর্মকার সেলিম তার হাতের কাজটা শেষ করে জানান, সারা বছরই কাজ থাকে। তবে প্রতিবছর কোরবানির আগে কাজের চাপটা বেশি থাকে। বিভিন্ন আকারের বঁটি, ছুরি ও চাপাতির চাহিদা এখন বেশি। কেউ লোহা কিনে তা দিয়ে তৈরি করান। কেউ আবার প্রস্তুত করা জিনিসই কিনে নিয়ে যান। ফরমায়েশি জিনিস একটু ভাল হয়। ফরমায়েশ দেয়ার আগে চাইলে নিজেই লোহা কিনে দিতে পারেন।

এ ক্ষেত্রে লোহাটা দেখে কেনা উচিত। কারণ যে আকারের দা-বঁটি-চাকু বানানো হচ্ছে তার সাইজে আন্দাজেই লোহাটা কিনতে হবে। নরম লোহা হলে তার সঙ্গে পটাশ মিশিয়ে নিতে হয়। তবে শক্ত লোহা দিয়ে দা, বঁটি ও চাপাতি ভাল হয় বলে তিনি জানান। আকার ভেদে একটা বঁটি ১০০ থেকে ৪০০ টাকায় বিক্রি করছেন তিনি। ছোট ছুরি কিনতে ৪০ থেকে ২০০ টাকা লাগবে। শাণ দিতে বঁটি ও চাপাতি ৫৫ থেকে ৬০ টাকা, ছুরি ২০ থেকে ৩০ টাকা নিচ্ছেন তারা। তিনি জানান, ঈদ উপলক্ষে ফরমায়েশ ভালই আসছে।

যাপিত ডেস্ক

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১৩২৪৯৫৭৫
আক্রান্ত
১৯০০৫৭
সুস্থ
৭৭১৮৩০৭
সুস্থ
১০৩২২৭
শীর্ষ সংবাদ:
হোতারা রেহাই পাবে না ॥ স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতির বিরুদ্ধেও জিরো টলারেন্স         উন্নয়ন প্রকল্পে ব্যয়ে সাশ্রয়ী হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         কক্সবাজার-সাতক্ষীরা সুপার ড্রাইভওয়ে হচ্ছে         করোনায় সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ তিন হাজার         সীমান্ত পাড়ি দেয়ার জন্য সাহেদ মৌলভীবাজারে!         করোনার নকল সনদ ॥ সাবরিনার বিরুদ্ধে মামলা         নিয়ন্ত্রণহীন বেসরকারী হাসপাতাল         ১৯ দিন ধরে বন্যায় ভাসছে উত্তরের বিভিন্ন জেলা         যশোর-৬ ও বগুড়া-১ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়ী         সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করতে চায় বিএনপি         বাস ও লঞ্চ টার্মিনালে হকারদের ছবিসহ তালিকা হচ্ছে         ঈদের দিনসহ ৫ দিন ৬ স্থানে বসবে পশুর হাট         চট্টগ্রামে করোনায় ডাক্তার ও ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু         নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে বিদ্যুত উৎপাদনে চীনা বিনিয়োগ আসছে         করোনা ও উপসর্গ নিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীসহ ১১ জনের মৃত্যু         একনেকে ১০ হাজার কোটি টাকার ৮ প্রকল্প অনুমোদন         কেশবপুর উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের শাহীন চাকলাদার নির্বাচিত         ঈদের জামাত নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ১১ নির্দেশনা         অধিদপ্তরের সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের কোনো সমস্যা নেই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ১৪ লাখ মানুষ        
//--BID Records