বুধবার ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৮ জুলাই ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পানিসম্পদ ও নৌ খাতকে উপেক্ষা করে টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয়

  • বিশেষজ্ঞ অভিমত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ নদীমাতৃক ও কৃষিনির্ভর হওয়ায় অভ্যন্তরীণ নৌপথ সারাদেশে বিস্তৃত এবং কৃষিতে সেচ সুবিধার প্রধান উৎস প্রাকৃতিক পানিসম্পদ। বিস্তীর্ণ জনপদে যাতায়াত ও পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রেও প্রধান মাধ্যম নৌপথ। এছাড়া নৌ পরিবহন খাত পরিবেশবান্ধব, তুলনামূলক আরামদায়ক ও ব্যয়সাশ্রয়ী। তাই নদ-নদীসহ প্রাকৃতিক পানিসম্পদ ও নৌ পরিবহন খাতকে উপেক্ষা করে বাংলাদেশে টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয় বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

শুক্রবার রাজধানীর পুরানা পল্টনে কমরেড মণি সিংহ সড়কের মুক্তি ভবনে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় তারা এসব মতামত তুলে ধরেন। নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সাবেক অধ্যাপক ড. আব্দুর রহীমের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটি ‘বাংলাদেশের বাস্তবতায় নৌ পরিবহন ব্যবস্থার গুরুত্ব’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে আয়োজক সংগঠনের পক্ষ থেকে নদ-নদী ও নৌ পরিবহন ব্যবস্থার গুরুত্ব তুলে ধরে সূচনা বক্তব্য রাখেন নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশীষ কুমার দে। দেশের নদ-নদীসহ প্রাকৃতিক পানিসম্পদ ও মানুষের জীবন-জীবিকা বিবেচনায় নিয়ে নৌ পরিবহন ব্যবস্থাকে যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার দাবি জানান তিনি। নৌ পরিবহন অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী একেএম ফখরুল ইসলাম বলেন, নদী রক্ষা ও নৌ খাতের উন্নয়ন সরকারের একার পক্ষে সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে রাজনৈতিক দলগুলোর ইতিবাচক ভূমিকা থাকা দরকার। তবে সরকারকেই মুখ্য ভূমিকা পালন করতে হবে। পরিবেশবাদীসহ সামাজিক সংগঠনগুলোকেও এ বিষয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান এ নৌ পরিবহন বিশেষজ্ঞ। জাতীয় কমিটির উপদেষ্টাম-লীর সদস্য হাজী মোহাম্মদ শহীদ মিয়ার সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেনÑ সিটিজেন্স রাইট্স মুভমেন্টের সভাপতি মেজর (অব) মোঃ মফিজুল হক সরকার, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের সাবেক পরিচালক মোঃ মাহাবুবুল আলম, উন্নয়ন ধারা ট্রাস্টের সদস্য সচিব আমিনুর রসুল বাবুল, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) যুগ্ম-সম্পাদক মিহির বিশ্বাস, জাতীয় কমিটির যুগ্ম-সম্পাদক মুর্শিকুল ইসলাম শিমুল, অর্থ সম্পাদক পুষ্পেন রায়, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জসি সিকদার প্রমুখ।

শীর্ষ সংবাদ:
খুলনা বিভাগে করোনায় মৃত্যু ৩১ জনের, আক্রান্ত ৮৬৬         রামেক হাসপাতালে করোনায় আরও ১৮ জনের মৃত্যু         টেকনাফে পাহাড় ধসে একই পরিবারের ৫জন নিহত         ভারতে বাসের পেছনে ট্রাকের ধাক্কা, বিশ্রামে থাকা ১৮ শ্রমিক নিহত         ভারত থেকে আরও ২শ টন তরল অক্সিজেন সিরাজগঞ্জে পৌঁছেছে         ইয়াবা নিয়ে সৌদি যাচ্ছিলেন তিনি         বগুড়ায় ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে ২১ জনের মৃত্যু         খুলনায় করোনা ও উপসর্গে আরও ১২ জনের মৃত্যু         করোনা ভাইরাসে ॥ সংক্রমণ বাড়ায় যুক্তরাষ্ট্রে টিকাপ্রাপ্তদেরও মাস্ক পরার নির্দেশনা         দিনাজপুরে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৮ জনের মৃত্যু         সিডনিতে লকডাউনের মেয়াদ আরও ৪ সপ্তাহ বাড়ল         ঝিনাইদহে করোনায় মারা গেছে ৫ জন, নতুন আক্রান্ত ৭৬         বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল করিমের মৃত্যুতে আইনমন্ত্রীর শোক         তিউনিসিয়া ॥ অচলাবস্থার অবসানে সংলাপ চায় প্রধান ইসলামী দল         ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তে পূর্ণ নিরাপত্তা বিরাজ করছে ॥ আইআরজিসি         ৩৭ বছর পর অলিম্পিকে সোনা জিতল রোমানিয়া         ৪১ মিলিয়ন পাউন্ডে ম্যানইউতে ভারানে         ভেনিস উৎসবে শিমু অভিনীত কলকাতার সিনেমা         ৩২ কর্মকর্তা ও তিন প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হলো জনপ্রশাসন পদক         এনআইডি দেখিয়ে ৭ আগস্ট থেকে টিকা নেয়া যাবে