মঙ্গলবার ৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ১৪ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ঈদযাত্রা ছিল নিকট অতীতের সবচেয়ে স্বস্তিদায়ক ॥ কাদের

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এবারের ঈদযাত্রা ছিল নিকট অতীত ইতিহাসের সবচেয়ে স্বস্তিদায়ক। গত কয়েক বছরের মধ্যে এবারই রাস্তাঘাট, সড়ক ও মহাসড়ক ছিল তুলনামূলক ভাল। রেল যাত্রাও ভাল ছিল। নৌযাত্রাতেও ছিল স্বস্তিদায়ক। ঈদ শেষে বুধবার অফিস শুরুর প্রথম দিন সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে মন্ত্রী ঈদ ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। কোথায় কোথায় ঈদ যাত্রায় সমস্যা হয়েছে এর কারণ জানতে চান। এছাড়া এসব সমস্যা সমাধানে কারা দায়ী ও করণীয় সম্পর্কেও আলোচনা হয়। কর্মকর্তারা নিজ নিজ অবস্থান থেকে ভবিষ্যতে ঈদে ঘরে ফেরার ভোগান্তি কমাতে বেশকিছু পরামর্শ তুলে ধরেন। মন্ত্রী বলেন, যাত্রার আগেই ঈদে ঘরমুখো মানুষকে নির্বিঘেœ বাড়ি পৌঁছে দিতে সরকার বিভিন্ন ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়েছে। ফলে বিগত বছরের মতো যাত্রীদের যানজটে পড়তে হয়নি। ঘণ্টার পর ঘণ্টা রাস্তায় কাটাতে হয়নি। এ সময় ঈদে ঘরমুখো লাখ লাখ মানুষকে নির্বিঘেœ যাত্রার ব্যবস্থা করে দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

বিএনপির সহায়ক সরকারের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশের মতো শেখ হাসিনার সরকারই নির্বাচনের সময় সহায়ক সরকারের ভূমিকা পালন করবে। প্রথম কর্মদিবসে সচিবালয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন না দিলে বিএনপি আন্দোলনে যাবেÑ এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলন তো আট বছর ধরে শুনছি, আট বছরে আট মিনিটও তাদের সংঘবদ্ধভাবে রাস্তায় দেখিনি। এমনকি ৫৯৬ জনের কমিটিকেও কোনদিন দেখিনি। কোনদিন রাস্তায় এসে একটা সেøাগান দিতে, প্রতিবাদ করতে।

দলটির আন্দোলনের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলনের নামে একটা বিষয় দেখেছি, পেট্রোল বোমার ব্যবহার দেখেছি। মানুষ পুড়িয়ে মারা, গাছ কাটা, রাস্তা কাটা, রেল লাইনের ফিসপ্লেট উঠিয়ে দেয়া, বিদ্যুত স্টেশন উড়িয়ে দেয়া, ইলেকশনের বুথ-বাক্স, স্কুল পুড়িয়ে দেয়া- এগুলো দেখেছি। তবে জনগণকে নিয়ে দলটিকে আন্দোলনে দেখিনি।

নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের সংবিধান অনুযায়ী পরবর্তী নির্বাচন হবে। সংবিধানে যেটা আছে সেটা হচ্ছে, ইলেকশনটা ইলেকশন কমিশনের অধীনেই হবে। কোন সরকারের অধীনে হবে না। ইলেকশনের সময় যে যে বিষয়গুলো, যে যে মন্ত্রণালয় এবং সংস্থা ইলেকশন রিলেটেড সেগুলো কিন্তু ইলেকশন কমিশনের অধীনে ন্যাস্ত হবে। তখনকার রুটিন দায়িত্ব পালন করবে যে সরকার, সেই সরকারের কোন মেজর পলিসি ডিসিশনে কোন ভূমিকা থাকবে না। এমনকি সে সময় আইনশৃঙ্খলার বিষয়টা বেশি প্রয়োজনীয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, জনপ্রশাসনÑ এ দুটো সরকারের কাছে থাকবে না।

ডিসি-এসপিদের দায়িত্ব-কর্তব্য স্থানীয় সরকারের অধীনে নয়, ইলেকশন কমিশনের অধীনে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, বিষয়টা পরিষ্কার জানা উচিত। ইলেকশন কমিশনই তখন মূল বিষয়। ইলেকশন কমিশনের অধীনেই তখন নির্বাচন হবে।

‘আর সরকার থাকবে, এ সরকার থাকবে। অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশে নির্বাচনের সময় সরকার যে ভূমিকা পালন করে, এ সরকারও, শেখ হাসিনার সরকারও একই দায়িত্ব পালন করবে। তাদের মূল কাজ হবে একটা সুন্দর, নিরপেক্ষ, ক্রেডিবল, ফ্রি, ফেয়ার ইলেকশন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করা, ফেসিলেটেড করা। এটাকেই বলে সহায়ক সরকার। ফেসিলেটেড মানে হলো সহায়তা করা। কাজে তখন যে সরকার অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশের মতো ক্ষমতায় থাকবে, সেই সরকারের দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করা। তখন এ সরকারই সহায়ক সরকারের ভূমিকা পালন করবে।

শীর্ষ সংবাদ:
খুলনায় হচ্ছে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়         পঙ্কিলতায় পূর্ণ সাবরিনার জীবন         অপরাধীর অপরাধকেই বিবেচনা করে সরকার ॥ কাদের         বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সব কার্যক্রম সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৬টার মধ্যে ॥ তাপস         করোনাপরবর্তী বিশ্বে টিকে থাকাই হবে বড় চ্যালেঞ্জ         অনলাইনে কোরবানির পশু কেনাবেচার পরামর্শ স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর         অনিয়ম ও প্রতারণার দায়ে আরেকটি হাসপাতাল সিলগালা         যমুনা গ্রুপ চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের ইন্তেকাল         ঈদের ছুটিতে সব চাকরিজীবীকে কর্মস্থলে থাকার নির্দেশ         যশোর-৬ ও বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচন আজ         মাঠে নামছে হাইওয়ে পুলিশের বিশেষ গোয়েন্দা দল ॥ ঈদে মহাসড়কে চাঁদাবাজি         ৮৩ হাসপাতালে তরল অক্সিজেন ট্যাঙ্ক বসানো হচ্ছে         আজম ও তার সহযোগী ডায়মন্ডের আদালতে স্বীকারোক্তি         লাজ ফার্মার কাকরাইল শাখা থেকে বিপুল নকল ওষুধ জব্দ         সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা         যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক         ভারত থেকে ৩৮৪ টন শুকণো মরিচ নিয়ে দেশে আসলো পার্সেল ট্রেন         সন্ধ্যা ৬ টা থেকে ভোর ৬টার মধ্যেই সকল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা করা হবে : মেয়র তাপস         আগামীকাল বনানীতে নুরুল ইসলাম বাবুলের দাফন         লাজ ফার্মাকে জরিমানা ২৯ লাখ, ৫০ লাখ টাকার ওষুধ জব্দ        
//--BID Records