ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

কয়লা খনির জন্য মাটি দেবে তলিয়ে গেছে সড়ক

প্রকাশিত: ০৬:১৮, ১৬ মে ২০১৭

কয়লা খনির জন্য মাটি দেবে তলিয়ে গেছে সড়ক

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর ॥ বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির কারণে মাটি দেবে ও কয়েক দিনের ভারি বর্ষণে আবারও তলিয়ে গেছে ফুলবাড়ী-বড়পুকুরিয়া বাজারের সড়কটি। তলিয়ে যাওয়া ওই সড়ক দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে শত শত যানবহনসহ পথচারী ও স্কুল-কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এলাকাবাসী বলছেন খনির কারণে মাটি দেবে গিয়ে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তারা জানায়, গত এক বছর আগে একই কারণে এই সড়কটি তলিয়ে যায়। সে সময় খনি কর্তৃপক্ষ সড়কটি রাবিস দিয়ে উঁচু করে, এই বছর আবারও তলিয়ে গেল। বড়পুকুরিয়া এলাকার বাসিন্দা লিয়াকত আলী জানান, খনি থেকে কয়লা উত্তোলন করার কারণে, এই এলাকায় মাটি দেবে যাচ্ছে। যার ফলে রাস্তা-ঘাট তলিয়ে যায়, বাড়ি-ঘরে ফাটল ধরে। ২০১১ সালে মাটি দেবে যাওয়ার কারণে খনি কর্তৃপক্ষ নতুন বসতবাড়ির জন্য ৬৫৬ একর জমি অধিগ্রহণ করে। কিন্তু চলাচলের এই রাস্তাটি সরিয়ে না নেয়ার ফলে রাস্তাটির নতুন নতুন জায়গা তলিয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় লোকজন জানান, রাস্তা দিয়ে পার্বতীপুর উপজেলার খয়েরপুকুর হাট, খলিলপুর, সুলতানপুর, সরদারপাড়া, বাঁশপুকুর, বৈদ্যনাথপুর, শিবকৃষ্ণপুর গ্রামের প্রায় ১০ হাজার মানুষ যাতায়াত করে। খবর প্রকাশের পর শ্রমিকের সংখ্যা বেড়ে ১৬ স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ মোরেলগঞ্জে অতি দরিদ্রদের কর্মসংস্থান কর্মসূচীতে অনিয়ম সম্পর্কিত সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় নড়েচড়ে বসেছেন কর্মকর্তারা। সোমবার দৈনিক জনকণ্ঠে ‘খাতায় ১৩১ শ্রমিক, বাস্তবে ১২’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে প্রকল্প পরিদর্শনে যান কর্মকর্তারা। সংবাদটি প্রকাশের পরপরই কর্মকর্তারা নিজেদের স্বচ্ছ অবস্থান তুলে ধরতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এদিন ওই প্রকল্পের উপজেলা সুপারভাইজার শুভঙ্কর ম-ল বহরবুনিয়া ইউনিয়নের প্রকল্পগুলো পরিদর্শন করেছেন। তিনি জানান, ৩নং ওয়ার্ডে ফুলহাতা বাজারের কাছে সেই প্রকল্পে সোমবার শ্রমিক পাওয়া গেছে ১৬ জন। যেখানে নিবন্ধিত শ্রমিক থাকার কথা ১৩১ জন। অনুপস্থিত শ্রমিকদের বিষয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ নাসির উদ্দিন এ প্রতিনিধিকে বলেন, এ উপজেলায় একশ’ ৯টি প্রকল্পে তিন হাজার একশ’ ৮৫ জন শ্রমিক কাজ করছে। সকল প্রকল্প একই সঙ্গে তদারকি করা সম্ভব নয়। তবে যে সব এলাকায় অনিয়মের খবর পাওয়া গেছে সেখানে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে’। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক তপন কুমার বিশ্বাস জানান, চলমান সকল প্রকল্পের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা সুনিশ্চিত করতে সরেজমিনে তদারকি ও রিপোর্ট দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যেই হোন না কেন, অনিয়ম করলে তাকে কোন প্রকার ছাড় দেয়া হবে না।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২